X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

বকেয়া বেতনের দাবিতে দুই কারখানার শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আপডেট : ১৪ জুলাই ২০২১, ০১:০৭

গাজীপুরে বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে আবারও কর্মবিরতি পালন ও বিক্ষোভ করেছেন দুই পোশাক কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীরা। মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) বিকালে ঢাকা-গাজীপুর ও ময়মনসিংহ সড়ক দুই ঘণ্টা অবরোধ করে রাখেন তারা। ন্যাশনাল কেমিক্যাল ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেড কারখানা ও স্টাইল ক্র্যাফট পোশাক কারখানার শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করেন।

আন্দোলনরত শ্রমিকরা জানান, মহানগরীর ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের সামনে স্টাইল ক্র্যাফট নামের পোশাক কারখানায় প্রায় সাড়ে ৭০০ কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং প্রায় পাঁচ হাজার শ্রমিক রয়েছেন। কারখানার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা চলতি বছরের মার্চ, মে ও জুনসহ গত সেপ্টেম্বর মাসের পূর্ণ বেতন-ভাতা, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর, ২০২০ সালের মার্চ ও আগস্ট মাসের ৫০ ভাগ, অক্টোবর মাসের ৩৫ ভাগ এবং নভেম্বর মাসের ১৫ ভাগ বেতন পাওনা রয়েছেন। 

এছাড়া কর্মচারীরা ইনক্রিমেন্টসহ চার বছরের ছুটির ও দুই বছরের ঈদ বোনাস পাওনা রয়েছেন। বেশ কিছুদিন ধরে পাওনা পরিশোধের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানিয়ে আসছিলেন তারা। কারখানা কর্তৃপক্ষ পাওনা পরিশোধের জন্য একাধিকবার তারিখ দিয়েও পরিশোধ করেনি। 

সর্বশেষ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাওনা গত মার্চ মাসের বকেয়া বেতন ৭ জুলাই, মে ও জুন মাসের বকেয়া বেতন ১৫ জুলাই ও ঈদ বোনাস ১৮ জুলাই পরিশোধের আশ্বাস দেয়। কিন্তু মালিকপক্ষ প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ৭ জুলাই পরিশোধ না করে তিন মাসের বকেয়া পাওনা ১৫ জুলাই পরিশোধের ঘোষণা দেয়। এতে বিক্ষুব্ধ হয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ৬ জুলাই থেকে কর্মবিরতি পালন করে আসছেন। ৮ জুলাই সড়ক অবরোধ করেন তারা। একপর্যায়ে আন্দোলনের মুখে এক মাসের বেতন-ভাতা ১৩ জুলাই এবং দুই মাসের পাওনা ১৫ জুলাই পরিশোধের আশ্বাস দেয়। ঘোষণা অনুযায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মঙ্গলবার কারখানার গেটে অবস্থান নেন। কিন্তু এদিনও পাওনা পরিশোধে অপারগতা প্রকাশ করেন কারখানার মালিক। এ অবস্থায় বিক্ষোভ করেন কর্মচারীরা।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের পরিদর্শক সমীর চন্দ্র সূত্রধর বলেন, স্টাইল ক্র্যাফ্ট পোশাক কারখানার শ্রমিক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মঙ্গলবার কারখানায় আসেন। কিন্তু শ্রমিকরা কাজে যোগ দিলেও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কর্মবিরতি পালন করেন। কারখানার ভেতরে ও গেটে অবস্থান নিয়ে বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ করেন তারা। দুপুরে কারখানার সামনে ঢাকা-জয়দেবপুর সড়কের দুই পাশে অবস্থান নিয়ে মানববন্ধন করেন। বিকালে সড়কের ওপর অবস্থান নেন। তাদের অবরোধের কারণে সড়কের উভয় দিকে শতাধিক যানবাহন আটকাপড়ে।

তিনি বলেন, একপর্যায়ে পাওনা পরিশোধের বিষয়ে মালিক পক্ষের সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নেওয়ার আশ্বাস দিলে অবরোধ প্রত্যাহার করেন তারা। পরে সড়কে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা কারখানায় মালিকের আগমনের অপেক্ষায় গেটে অবস্থান করছিলেন।

ঢাকা-জয়দেবপুর সড়কের দুই পাশে অবস্থান নিয়ে মানববন্ধন করেন শ্রমিকরা

এদিকে, বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে মহানগরীর বড়বাড়ি এলাকার ন্যাশনাল কেমিক্যাল ম্যানুফ্যাকচারিং কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছেন। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বড়বাড়ি এলাকায় কারখানার মূল ফটকে বিক্ষোভ করেন তারা।

ওই কারখানার সহকারী কেমিস্ট এবং শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মাহফুজুল ইসলাম বলেন, কারখানায় দেড় শতাধিক শ্রমিক রয়েছেন। গত এপ্রিল মাস থেকে শ্রমিকরা ঈদুল ফিতরের বোনাসসহ চার মাসের বেতন-ভাতা পাওনা রয়েছেন। কর্তৃপক্ষ একাধিকবার আশ্বাস দিয়েও পরিশোধ করেনি। এ ব্যাপারে কলকারখানা অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেও কোনও সমাধান হয়নি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শ্রমিকরা তিনদিন ধরে বিক্ষোভ করছেন।

কারখানার ইনচার্জ আবু বকর সিদ্দিক বলেন, শ্রমিকদের গত ঈদের আগে এপ্রিল মাসের ১৯ দিনের বেতন এবং ঈদ বোনাস দেওয়া হয়েছে। এখন শুধু এপ্রিলের ১১ দিন এবং মে-জুন মাসের বেতন পাবেন। গত ১০ জুলাই শ্রমিকদের নিয়ে কারখানার এমডি ভার্চুয়ালি মিটিং করেছেন। মিটিংয়ে করোনাকালীন বন্ধের প্রথম ৪৫ দিনের ৫০ শতাংশ এবং পরের দিনগুলোর ২৫ শতাংশ বেতন দেওয়ার কথা বলেছেন এমডি। কিন্তু শ্রমিকরা সিদ্ধান্ত না মেনে বিক্ষোভ করছেন। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে। খুব শিগগিরই সমস্যার সমাধান করা হবে।

/এএম/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সক্রিয় সম্পৃক্ততার আহ্বান মোমেনের
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সক্রিয় সম্পৃক্ততার আহ্বান মোমেনের
রাশিয়ার ছবি নির্বাচন করায় ইউক্রেনীয় পরিচালকের নিন্দা
কান উৎসব ২০২২রাশিয়ার ছবি নির্বাচন করায় ইউক্রেনীয় পরিচালকের নিন্দা
শিশুদের রক্ষায় জীবন বিলিয়ে দেন শিক্ষক ইরমা গার্সিয়া
যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলে বন্দুক হামলাশিশুদের রক্ষায় জীবন বিলিয়ে দেন শিক্ষক ইরমা গার্সিয়া
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য সম্পর্কের ভিত্তি রচনা করে গেছেন: স্পিকার
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য সম্পর্কের ভিত্তি রচনা করে গেছেন: স্পিকার
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
পদ্মা সেতুতে বিদ্যুৎ সংযোগ
পদ্মা সেতুতে বিদ্যুৎ সংযোগ
চালু হচ্ছে স্বপ্নের সেতু, পদ্মা পাড়ে আনন্দের বন্যা
চালু হচ্ছে স্বপ্নের সেতু, পদ্মা পাড়ে আনন্দের বন্যা
সাংবাদিককে উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি, অডিও ভাইরাল
সাংবাদিককে উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি, অডিও ভাইরাল
যমুনা এক্সপ্রেসের সংরক্ষিত টিকিট পায় কারা?
যমুনা এক্সপ্রেসের সংরক্ষিত টিকিট পায় কারা?
বিয়ে না করায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা, ‘প্রেমিকের’ কারাদণ্ড
বিয়ে না করায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা, ‘প্রেমিকের’ কারাদণ্ড