X
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২১ মাঘ ১৪২৯

গাজীপুরে মহাসড়কে বাস কম, বিকল্প যানে বাড়তি ভাড়া

গাজীপুর প্রতিনিধি
১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১৩:৪৮আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১৩:৫৩

গাজীপুর ও ময়মনসিংহ জেলার সীমান্তে জৈনাবাজার এলাকায় গত তিন দিন ধরে পুলিশি প্রহরা ছিল। তবে শনিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ৬টা থেকে সাড়ে ৯টা পর্যন্ত কোনও পুলিশি চৌকি বা তল্লাশি চোখে পড়েনি। ঢাকা-ময়মনসিংহ এবং ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তেমন যানবাহন চলছে না। বিভিন্ন গন্তব্যের যাত্রীদের বাস স্ট্যান্ডগুলোতে দীর্ঘসময় গাড়ির জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

ঢাকায় বিএনপির গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে মহাসড়কে গণপরিবহন চলাচল একেবারেই কমে গেছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। কাজে বের হয়ে গাড়ি না পেয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সড়কে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েছেন পোশাক শ্রমিকরা। তারা বাসার দৈনন্দিন কাজ শেষে হাতে অল্প সময় নিয়ে বের হন। সড়কে পর্যাপ্ত গাড়ি না থাকায় তাদের দেরি করে অফিসে যেতে হচ্ছে।

শ্রীপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী জৈনাবাজারে দেখা যায়, সড়কের ইউটার্নের চেকপোস্ট এলাকায় পুলিশের কোনও সদস্য নেই। স্থানীয় পরিবহন শ্রমিক, ক্ষুদে ব্যবসায়ীরা জানান, গত কয়েকদিন ধরে এই স্থানে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের নিয়মিত পুলিশি প্রহরা ও চেকপোস্ট ছিল। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত এমন কোনও চেকপোস্ট নেই। তবে দুই বার গাজীপুর জেলা পুলিশের একটি গাড়ি ইউটার্ন ঘুরে গেছে।

পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করছে

এছাড়া কিছু সিএনজিচালিত অটোরিকশা মহাসড়কের পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে থাকলেও যাত্রী পাচ্ছে না। যাত্রী পেলেও অতিরিক্তি ভাড়া চাওয়ায় যাত্রীরা অটোরিকশায় চলাচল করতে পারছেন না। গাজীপুর দিয়ে ঢাকায় প্রবেশের সবগুলো প্রবেশমুখে তল্লাশি জোরদার করেছে পুলিশ। মিরের বাজার, শ্রীপুরের জৈনা বাজার, টঙ্গী ব্রিজের উভয় পাশে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করেছে।

গাজীপুরের মাস্টারবাড়ী এলাকার ওয়েল্ডান পোশাক কারখানার রক্ষণাবেক্ষণ বিভাগের ব্যবস্থাপক নাহিদ কামাল বলেন, ‘সকাল ৮টা থেকে মহাসড়কে দাঁড়িয়ে আছি। অফিসে যাওয়ার জন্য সাড়ে ৯টা পর্যন্ত কোনও গাড়ি পাইনি। মহাসড়কে পরিবহন নেই বললেই চলে।’

গাজীপুরের বিলাশপুর এলাকার একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন আনিছুর রহমান। বোর্ড বাজার এলাকায় তার সঙ্গে কথা হয়। তিনি বলেন, ‘সকাল সাড়ে ৭টা থেকে বাসের জন্য সড়কে দাঁড়িয়ে আছি। এক ঘণ্টা ধরে সড়কে দাঁড়িয়ে থেকেও কোনও যাত্রীবাহী বাস পাইনি। যেগুলো আসছে সেগুলোতে অতিরিক্ত ভাড়া চাচ্ছে এবং ভিড়ের কারণে ওঠা সম্ভব হচ্ছে না।’

সড়কে পরিবহন নেই বললেই চলে

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী আসমা আক্তার বলেন, ‘যেসব যাত্রীবাহী গাড়ি পাওয়া যাচ্ছে সেগুলো দূরে কোথাও যেতে চাচ্ছে না। দূরের যাত্রীরা তাদের গন্তব্য যেতে পারছে না। আর যারা যাচ্ছে তাদের দ্বিগুণ ভাড়া দিয়ে যেতে হচ্ছে।’

যানবাহনে ব্যাপক তল্লাশির কারণে জনমনে কিছুটা আতঙ্কও তৈরি হয়েছে। ফলে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঢাকার দিকে যাচ্ছেন না। তবে যারা জরুরি প্রয়োজনে ঢাকায় যাচ্ছেন তারা পড়ছেন পুলিশের তল্লাশিতে। এসব কারণে সড়কে যানবাহন ও যাত্রীর সংখ্যা অনেকটাই কম।

জৈনাবাজার থেকে গফরগাঁও অঞ্চলিক সড়কে প্রতিদিন ১৩টি সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলাচল করে।এ বিষয়ে চালক কবির হোসেন বলেন, ‘প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে যাত্রী পাওয়া যায়। শনিবার বেলা পৌনে ১১টা পর্যন্ত একজন যাত্রীও পাওয়া যায়নি।’

এদিকে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে ‘বিএনপির নৈরাজ্য ও ঢাকায় পুলিশের ওপর হামলা’র প্রতিবাদে মিছিল হচ্ছে। শ্রীপুর পৌর শহরে যুবলীগ নেতা আশরাফুল ইসলাম ওয়াসিমের নেতৃত্বে মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।

শ্রীপুর পৌর শহরে যুবলীগ নেতা

কোনাবাড়ী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা যানবাহন তল্লাশি করছি। তবে কেউ যাতে অযথা হয়রানির শিকার না হয়, সেদিকেও খেয়াল রাখা হচ্ছে। কোনও দুষ্কৃতকারী যাতে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে না পারে, সেদিকে খেয়াল রেখে সব যানবাহনে তল্লাশি করা হচ্ছে।’

গাজীপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) কাজী শফিকুল আলম বলেন, ‘জেলা পুলিশের বিশেষ কোনও তল্লাশি টিম নেই। তবে নিয়মিত প্রতিটি থানা এলাকায় দুটি পুলিশ চেকপোস্ট থাকে। কেউ যেন নাশকতার উদ্দেশ্যে কোনও কিছু বহন করতে না পারে, সেজন্য গাড়িতে তল্লাশি করা হচ্ছে। অন্যান্য দিনের মতো আজও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে জেলায় মোট ১০টি চেকপোস্ট রয়েছে। জনগণের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ সব ধরনের পদক্ষেপ নেবে।’

/এসএইচ/
সর্বশেষ খবর
ভারতকে হারাতে চায় বাংলাদেশ
ভারতকে হারাতে চায় বাংলাদেশ
১১ ফেব্রুয়ারি সারাদেশের ইউনিয়নে বিএনপির পদযাত্রা
লংমার্চ দিয়ে পরাজিত করার ঘোষণা ফখরুলের১১ ফেব্রুয়ারি সারাদেশের ইউনিয়নে বিএনপির পদযাত্রা
গণজাগরণ মঞ্চের দশক পূর্তি আজ
গণজাগরণ মঞ্চের দশক পূর্তি আজ
বারবার বলেছি আর মারিস না, নেপথ্যে মোটরসাইকেলের মালিকানা
বারবার বলেছি আর মারিস না, নেপথ্যে মোটরসাইকেলের মালিকানা
সর্বাধিক পঠিত
দিনদুপুরে তালা ভেঙে ব্যাংক থেকে ৪ লাখ টাকা লুট
দিনদুপুরে তালা ভেঙে ব্যাংক থেকে ৪ লাখ টাকা লুট
শাকিব ও জোভান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন পূজা!
শাকিব ও জোভান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন পূজা!
ক্রাইম প্যাট্রল থেকে কৌশল শিখে ৫ কিশোরের এক রোমহর্ষক কিলিং মিশন
ক্রাইম প্যাট্রল থেকে কৌশল শিখে ৫ কিশোরের এক রোমহর্ষক কিলিং মিশন
রডের টন লাখ ছুঁই ছুঁই
রডের টন লাখ ছুঁই ছুঁই
‘পুরো ইউক্রেন পুড়বে’
‘পুরো ইউক্রেন পুড়বে’