X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

নিখোঁজের ৫ দিন পর নদীতে মিললো গৃহবধূর লাশ

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০০:১৯

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় নিখোঁজের পাঁচ দিন পর মাথাভাঙ্গা নদী থেকে পপি খাতুন (২৬) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার ভাংবাড়িয়া গ্রামের মাথাভাঙ্গা নদী থেকে ওই গৃহবধূর লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত পপি খাতুন একই উপজেলার নগরবোয়ালিয়া গ্রামের তুহিন আলী স্ত্রী। এ ঘটনায় স্বামীসহ দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আলমডাঙ্গা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, সন্ধ্যায় ভাংবাড়িয়া গ্রামের ফেরিঘাট কারিগরপাড়ার মাথাভাঙ্গা নদীতে এক নারীর লাশ ভাসছে- এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। ওই ঘটনায় নিহত পপির স্বামী তুহিন ও এক প্রতিবেশীকে আটক করা হয়েছে।

নিহত পপি খাতুনের বাবা নেকবার ভোলার অভিযোগ, সম্প্রতি বিদেশ যাওয়ার জন্য তুহিন তাদের কাছে টাকা চায়। টাকা দিতে না পারায় পপিকে মারধর শুরু করে। গত বুধবার সন্ধ্যায় স্বামীর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় পপি। তাকে খুঁজে না পেয়ে রবিবার রাতে আলমডাঙ্গা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন তিনি। পরে সোমবার জানতে পারেন, লাশ নদীর পানিতে ভাসছে। তার গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

/এফআর/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ভোরের কাগজের প্রকাশক-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলায় এডিটরস গিল্ডের নিন্দা
ভোরের কাগজের প্রকাশক-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলায় এডিটরস গিল্ডের নিন্দা
বিশ্বকাপের কাজে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে আগ্রহী কাতার
বিশ্বকাপের কাজে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে আগ্রহী কাতার
তালাক দেওয়ায় সাবেক স্ত্রীর সন্তানকে হত্যা
তালাক দেওয়ায় সাবেক স্ত্রীর সন্তানকে হত্যা
কলকাতায় জয় দিয়ে শুরু বসুন্ধরার
কলকাতায় জয় দিয়ে শুরু বসুন্ধরার
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
রান্নাঘরে ভাত খেতে গিয়ে প্রাণ গেলো দম্পতির
রান্নাঘরে ভাত খেতে গিয়ে প্রাণ গেলো দম্পতির
যেখানে বসে রাজ্য চালাতেন খানজাহান আলী
যেখানে বসে রাজ্য চালাতেন খানজাহান আলী
পদ্মা সেতুর নাম ‘জীবনানন্দ সেতু’ করার দাবি
পদ্মা সেতুর নাম ‘জীবনানন্দ সেতু’ করার দাবি
ফল বিক্রির আগে হঠাৎ মারা গেলো অর্ধশতাধিক লিচু গাছ
ফল বিক্রির আগে হঠাৎ মারা গেলো অর্ধশতাধিক লিচু গাছ
কিশোরীকে ভারতে পাচার, স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড
কিশোরীকে ভারতে পাচার, স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড