শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী কবি সমাহিত হবেন কুড়িগ্রামে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:৪৬, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৯, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬

সৈয়দ শামসুল হক ছবি সাজ্জাদ হোসেন (৩)

 

মৃত্যুর আগে শৈশবের স্মৃতিগুলো খুব তাড়া করে ফিরতো সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হককে। তাই নিজের জন্মস্থান কুড়িগ্রামেই সমাহিত হওয়ার শেষ ইচ্ছা প্রকাশ করে গেছেন সৈয়দ শামসুল হক। তার স্বজন ও চিকিৎসকদের কাছে এই ইচ্ছার কথা জানিয়ে গেছেন তিনি।

লেখকের পরিবারের বরাত দিয়ে ইউনাইটেড হাসপাতালের জনসংযোগ কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, আমাদের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল ইসলাম জানিয়েছেন, বিশিষ্ট এই লেখকের মৃত্যুর খবরে কুড়িগ্রামের সাহিত্য ও সংস্কৃতি মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কবির পরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ কুড়িগ্রামের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্রাহাম লিংকন বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন, গতবছর একবার প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়ে ও পরে আরও একবার কুড়িগ্রামে এসে মৃত্যুর পর এখানেই শায়িত হবেন বলে ইচ্ছা প্রকাশ করে গেছেন কবি। সে অনুযায়ী কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ প্রাঙ্গনে কবরের স্থানও নির্বাচন করে গেছেন তিনি। সেসময় তার ইচ্ছাকে সম্মান জানিয়ে কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজে তাঁর সমাধি নির্মাণের ব্যাপারে একটি রেজুলেশনও পাস করা হয় যাতে কবি নিজেই স্বাক্ষর করে গেছেন। তার ইচ্ছা অনুযায়ী কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের মূল প্রবেশ গেটের দক্ষিণ পাশে তাঁর কবরের স্থান নির্বাচন করা হয়।

এদিকে, সব্যসাচী এই লেখক-কবির মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর কুড়িগ্রামে জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমীন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাফর আলী, কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ মীর্জা নাসির উদ্দিনসহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা কুড়িগ্রাম কলেজ প্রাঙ্গনে এসে কবরের জায়গা নির্বাচন করেন।

এ সময় কুড়িগ্রামে জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমীন জানান, সরকারের নির্দেশে ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কবিকে দাফনের সব প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ মীর্জা নাসির উদ্দিন জানান, কবিকে সর্বস্তরের মানুষ যাতে শ্রদ্ধা জানাতে পারেন সেজন্য দাফনের আগে কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ প্রাঙ্গনে তাঁর শেষ জানাজা অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগে মঙ্গলবার রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল ৫টা ২৬ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সব্যসাচী এ লেখক।

/টিএন/    

আরও খবর: সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের জীবনাবসান

লাইভ

টপ