কামারখন্দ উপজেলা নির্বাচনে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রচারণা

Send
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:০৫, জুন ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৫, জুন ১৫, ২০১৯

নির্বাচনি প্রচারণায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবদুল মতিন চৌধুরী (বাঁয়ে) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম শহিদুল্লাহ সবুজ (ডানে) সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দে আগামী ১৮ জুন আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। পঞ্চম ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে দলীয় ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রচারণায় গত কদিন থেকেই মুখরিত উপজেলার বিভিন্ন অলিগলি ও মহল্লা। দু-একটি পোস্টার ছেঁড়া ও নির্বাচনি ক্যাম্প ভাঙচুরের ঘটনা ছাড়া গত কদিনে তেমন সহিংস ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার সকালে সরকারদলীয় প্রার্থী আবদুল মতিন চৌধুরী সমর্থকদের নিয়ে উপজেলার পশ্চিম জামতৈল বাজার এলাকা থেকে কর্ণসূতির দিকে মিছিল ও প্রচারণা করেন। প্রচারণা শেষে জামতৈল স্টেশন চত্বরে সমাবেশ করেন তিনি।

আচরণবিধি লঙ্ঘন হতে পারে তাই স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান এসএম শহিদুল্লাহ সবুজ শুক্রবার সকালে প্রচারণা করেননি। তবে দুপুরের পর জামতৈল বাজারে তার পক্ষে মাইকিং করতে দেখা যায়। অন্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরাও শেষ মুহূর্তে ঘরে বসে নেই। তারা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন, নানা প্রতিশ্রুতিও দিচ্ছেন।

এ উপজেলায় ১ লাখ ২ হাজার ৭শ’ ৪১ জন নারী ও পুরুষ ভোটার রয়েছেন।

এখানে সরকারদলীয় প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল মতিন চৌধুরীর বিপক্ষে কোনও বিদ্রোহী প্রার্থী নেই। তবে তার বিপক্ষে দলের তৃণমূলের ত্যাগী ও বঞ্চিত নেতাকর্মী ও সমর্থকদের পুঞ্জীভূত ক্ষোভ, মতানৈক্য ও দীর্ঘদিনের অন্তর্দ্বন্দ্ব রয়েছে। তারপরেও সিরাজগঞ্জ-১ (সদর ও কামারখন্দ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্নার প্রচেষ্টায় দলীয় প্রার্থী আবদুল মতিন চৌধুরীকে বিজয়ী করতে সবাই এখন একাট্টা।

এদিকে, আসন্ন নির্বাচনে যেন আচরণবিধি লঙ্ঘন না হয় সেজন্য নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম উপজেলার রিটার্নিং/প্রিসাইডিং অফিসারদের সতর্ক করেন। শুক্রবার দুপুরে কামারখন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসের অডিটরিয়ামে কর্মকর্তাদের সঙ্গে মত-বিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি সবাইকে সতর্ক করেন। এ সময় জেলা ও উপজেলা প্রশাসন ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের পদস্থ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

এ উপজেলায় আবদুল মতিন চৌধুরী (আওয়ামী লীগ) নৌকা প্রতীকে, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান এসএম শহিদুল্লাহ সবুজ ঘোড়া মার্কা প্রতীকে, মো. কালাম আজাদ দোয়াত-কলম প্রতীকে, মো. আবুল ওয়াদুদ মোটরসাইকেল প্রতীকে, মো. খেজের আলম শফি হেলিকপ্টার প্রতীকে,রেজাউল করিম কাপ-পিরিচ প্রতীকে ও শামসুল আলম আনারস প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

 

/এমএএ/

লাইভ

টপ