ম্যাজিস্ট্রেট লাঞ্ছিত ও প্রকৌশলীকে র‍্যাবের মারধর, কাজ স্থগিত সওজের

Send
যশোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:৪১, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:০০, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০

উচ্ছেদ অভিযানযশোরে রাস্তার দু’পাশে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের কার্যক্রম স্থগিত করেছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ)। ম্যাজিস্ট্রেটকে লাঞ্ছিত, প্রকৌশলী ও চালককে র‍্যাবের মারধরের ঘটনায় এই অভিযান অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করেছে তারা।

সওজ কর্তৃপক্ষের দাবি, উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেওয়া কর্মীরা আতঙ্কে পালিয়ে যাওয়ায় ও ম্যাজিস্ট্রেটের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে অভিযান স্থগিত করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, যশোর শহরের পালবাড়ির মোড় থেকে মুড়লি মোড় পর্যন্ত মহাসড়কটি চার লেনে উন্নীতকরণের লক্ষ্যে বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি)  সকালে  উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়। সওজ  খুলনা জোনের স্টেট অফিসার সিনিয়র সহকারী সচিব অনিন্দিতা রায় এ কার্যক্রমের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। প্রথম পর্যায়ে প্রায় ৬ কিলোমিটারের সড়কের প্রায় তিন কিলোমিটার  উচ্ছেদের একপর্যায়ে দুপুর আড়াইটার দিকে উচ্ছেদকারী দলটি শহরের বকচর এলাকায় র‌্যাবের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে যায়। এ কার্যালয়ের প্রাচীরটি সওজ বিভাগের জায়গায় নির্মিত হওয়ায় তা বুলডোজার দিয়ে ভেঙে দেওয়া হয়। এরপর র‌্যাবের কতিপয় সদস্য বুলডোজার চালক প্রতাপ কুমার ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী তরুণ কুমার দত্তকে মারপিট এবং বুলডোজারের সামনের কাঁচ ভেঙে দেন। এছাড়া তাদের ধরে ক্যাম্পের ভেতর নিয়ে যান। একইসঙ্গে  অভিযানে নেতৃত্বদানকারী ম্যাজিস্ট্রেট অনিন্দিতা রায়কে গালিগালাজ করেন। পরে জেলা প্রশাসক, সওজ-এর  কর্মকর্তারা গিয়ে আটককৃতদের ছাড়িয়ে আনেন।

উচ্ছেদ অভিযানবৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দ্বিতীয় দিনের মতো উচ্ছেদ অভিযানের কথা থাকলেও সকালে গিয়ে দেখা যায় বুলডোজারগুলো সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সকাল থেকে কোনও প্রকার উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালিত হয়নি। যে কারণে তারা নিজেরাই নিজেদের প্রতিষ্ঠান ভেঙে সরিয়ে নিচ্ছেন।

এ বিষয়ে সওজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, র‌্যাব কর্তৃক উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেওয়া ম্যাজিস্ট্রেট ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পর বুলডোজার চালকরা আতঙ্কে পালিয়ে গেছে। তাছাড়া, ম্যাজিস্ট্রেটের নিরাপত্তার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে অভিযান স্থগিত করা হয়েছে। সরকারিভাবে নতুন সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত অভিযান বন্ধ থাকবে।

 

 

/এসটি/

লাইভ

টপ