মোংলা বন্দরে পৌর ট্রাক টার্মিনাল বন্ধ, সড়কে ট্রাকের সারি

Send
মোংলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:৫৬, জুলাই ০৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:০৫, জুলাই ০৮, ২০২০

মোংলা বন্দরের শিল্প এলাকার বিভিন্ন কলকারখানার মালামাল পরিবহনের গাড়ি পার্কিংয়ে বন্দরের নিজস্ব জমিতে বানানো হয় পৌর ট্রাক টার্মিনাল। তবে হঠাৎ করে টার্মিনালটি বন্ধ করে দেওয়ায় বেড়েছে ভোগান্তি। বিভিন্ন কারখানার গাড়ি এখন রাখতে হচ্ছে রাস্তার দুই ধারে। এতে রাস্তা সংকুচিত হয়ে পড়ায় অন্যান্য যানবাহন চলাচলে হচ্ছে সমস্যা। যেকোনও সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনারও আশঙ্কা রয়েছে। ভুল বোঝাবুঝির কারণে স্থানীয় পুলিশের পক্ষ থেকে গত মাসের ৭ তারিখ পৌর ট্রাক টার্মিনালটি বন্ধ করে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে টার্মিনাল বন্ধ থাকায় আর্থিক ক্ষতিতে পড়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ। টার্মিনালের আয় পৌর কর্মচারীদের বেতনসহ পৌরবাসীর সেবায় ব্যয় করা হতো। অচিরেই টার্মিনালটি চালু না হলে পৌর কর্মচারীদের বেতন দেওয়া বন্ধ হওয়াসহ নাগরিক সেবা বিঘ্নিত হবে বলে জানিয়ছেন সংশ্লিষ্টরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে জমি অধিগ্রহণ করে দিগরাজ এলাকায় প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণ করে মোংলা পোর্ট পৌরসভা। ২০১৮ সালে ১ মে টার্মিনালটির উদ্বোধনের পর বন্দর ও শিল্প এলাকার সব ট্রাক গত তিন বছর ধরে সেখানেই পার্কিং করে আসছিলো।

এ বিষয়ে মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও পরিবহন মালিক সমিতির দাবির প্রেক্ষিতে মহাসড়কের কোথাও যাতে কোনও টোল আদায় না হয় সেজন্য টার্মিনালটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এটা যদি হাইওয়ের বাইরে এবং বন্দরের নিজস্ব জায়গায় হয়ে থাকে, তাহলে তারা কাগজপত্র দেখালে একটা সুরাহা হতে পারে।

মোংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়র মো. জুলফিকার আলী বলেন, বিশ্ব ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে প্রজেক্টের মাধ্যমে টার্মিনালটি করা হয়েছে। এটি বন্ধ করে দেওয়ায় কিস্তি দেওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। এছাড়া এটি হাইওয়ের আওতাভুক্ত নয়। বন্দরের নিজস্ব জায়গায় এবং রাস্তাটি বন্দরের নিজস্ব। ভুল বোঝাবুঝির কারণেই পৌর টার্মিনালটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এতে পৌরসভা আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম শাহজাহান বলেন, টার্মিনাল ও বন্দরের শিল্প এলাকার এ রাস্তা বন্দরের নিজস্ব জায়গার ওপর। এটি হাইওয়ের আওতাভুক্ত নয়। ভুল বোঝাবুঝিতে পৌর ট্রাক টার্মিনালটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট দফতরে পৌর কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে চিঠি দিয়েছে, আমরাও চেষ্টা করছি। আশা করা যায় স্বল্প সময়ের মধ্যে এটির সুরাহা হয়ে যাবে।

/টিটি/

লাইভ

টপ