পঞ্চগড়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, সেতু ভেঙে করতোয়ার দুই পাড়ের মানুষ বিচ্ছিন্ন

Send
পঞ্চগড় প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:২৫, জুলাই ১৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২৫, জুলাই ১৩, ২০২০

BT-Newপঞ্চগড়ে টানা ভারি বর্ষণে করতোয়াসহ অন্যান্য নদীর পানি বেড়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। সোমবার (১৩ জুলাই) জেলার সদর উপজেলার করতোয়া নদীর মিরগড় ঘাটের চারশ’ মিটার কাঠের সেতু ভেঙে পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে ধাক্কামাড়া ও সাতমেরা ইউনিয়নের মানুষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

এছাড়া পঞ্চগড় পৌর এলাকার নিম্নাঞ্চলগুলোও প্লাবিত হয়েছে। পৌরসভার নিমনগড়, পৌরখালপাড়া, রামের ডাংগার শতাধিক বাড়ি করতোয়ার পানিতে ডুবে গেছে। ডুবে যাওয়া পরিবারগুলো আশেপাশের উঁচু স্থানে ও মাদ্রাসায় আশ্রয় নিয়েছে। আপাতত দুই শতাধিক পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার দেওয়া হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, করতোয়া নদীর পানি বিপদসীমার খুব কাছ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। টানা ভারি বর্ষণ ও উজানের পানি আসতে শুরু করলে বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে।

BT-Newসদর উপজেলার মিরগড় এলাকার হাসান আলী বলেন, ‘কাঠের সেতুটিই আমাদের যোগাযোগের একমাত্র সম্বল। আমরা সহজে এই অস্থায়ী সেতু দিয়ে ধাক্কামারা ও সাতমেরা ইউনিয়নের মানুষ যাতায়াত করি। সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় আমাদের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।’

পঞ্চগড় পৌরসভার মেয়র তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘অতিবর্ষণ হলেই আমার এলাকার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। প্রায় দুই শতাধিক পরিবার এখন উঁচু স্থানে অবস্থান করছে। তাদের শুকনো খাবার দেওয়া হয়েছে।’

/এমএএ/

লাইভ

টপ