চরের বালু নিয়ে সংঘর্ষ: নিহত ১, গুলিবিদ্ধ ও জখম ১০

Send
নড়াইল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:২৩, আগস্ট ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৩৫, আগস্ট ০৫, ২০২০

নড়াইলনড়াইলের কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়া ইউনিয়নের দেওয়াডাঙ্গা গ্রামে দুই পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে মাসুদ রানা (৩৫) নামে এক ব্যক্তি গুলিতে নিহত হয়েছেন। বুধবার (৫ আগস্ট) সকালে এই সংঘর্ষের সময় আহত হয়েছেন নারী ও শিশুসহ অন্তত ১০ জন। নবগঙ্গা নদীর চরের বালু কাটাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

নিহত মাসুদ রানা দেওয়াডাঙ্গা গ্রামের আলী আকবর শেখের ছেলে। কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও নবগঙ্গা নদীর চরের বালু কাটাকে কেন্দ্র করে দেওয়াডাঙ্গা গ্রামের কাজল মোল্যা সমর্থিত লোকজনের সঙ্গে আমিনুর শেখ সমর্থিত লোকজনের দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলে আসছিল। বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কাজল মোল্যা সমর্থিত লোকজন চরের বালু কাটতে গেলে আমিনুর শেখ সমর্থিত লোকজন তাতে বাধা দেয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে আমিনুর শেখ সমর্থিত মাসুদ রানাসহ সাতজন গুলিবিদ্ধ হন। দেশীয় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তিন জন আহত হয়েছেন। স্থানীয় লোকজন গুলিবিদ্ধ মাসুদ রানাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে আনার পর তিনি মারা যান। আহতদের কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, নড়াইল সদর হাসপাতাল ও খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম আরও জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকি জড়িতদের গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

/এফএস/

লাইভ

টপ