সারাদেশে ফুলেল শ্রদ্ধা ও নানা কর্মসূচিতে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৩৮, আগস্ট ১৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:২৩, আগস্ট ১৬, ২০২০



আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট। জাতীয় শোক দিবস। ১৯৭৫ সালের এই দিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল। নানান কর্মসূচির মাধ্যমে শ্রদ্ধায় স্মরণে সারাদেশে শোক দিবস পালিত হচ্ছে। এ বিষয়ে দেশের বিভিন্ন জেলার আরও সংবাদ:  

দিনাজপুরে শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপিদিনাজপুর
জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি। এরপর তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন। এছাড়া হুইপ দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড চত্বর, ২নং সুন্দরবন ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের উদ্বোধন করেন। দিনাজপুর বন্ধন কমিউনিটি সেন্টারে শহর আওয়ামী লীগের আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার দুঃস্থ্যদের মাঝে বিতরণ করেন হুইপ। এছাড়া দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের মাঝে করোনা সুরক্ষাকারী মাস্ক বিতরণ করেন। 
পৃথক পৃথক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম, পুলিশ সুপার আনোয়ার হেসেন বিপিএম, পিপিএম (বার), দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক, প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, শহর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রায়হান কবীর সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজু, ২নং সুন্দরবন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অসোক কুমার রায়, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মানবেন্দ্র নাথ রায়, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।


বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করছেন সিটি মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীনারায়ণগঞ্জ

৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শনিবার (১৫ আগস্ট) সকালে নগরীর দুই নম্বর গেট এলাকায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন তিনি। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সকাল সাড়ে ১০টায় জিমখানা মাঠে একশত গাছের চারা রোপন করেন সিটি মেয়র। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এদিকে জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন ও পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম নগরীর চাষাঢ়া বিজয়স্তম্ভে আলাদাভাবে ফুল দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানান। পরে জেলা প্রশাসক নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালে বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী ও শাহাদাত বার্ষিকী স্মরণে বৃক্ষরোপণ করেন। এছাড়া জেলার বিভিন্ন উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণসহ মিলাদ মাহফিল, দোয়া, আলোচনা সভা ও কাঙালি ভোজের আয়োজন করে। অপরদিকে সোনারগাঁয়ে সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ স্যারের নেতৃত্বে প্রায় শতাধিক স্পটে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। আড়াইহাজারে স্থানীয় সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর নেতৃত্বে কাঙালি ভোজ, মিলাদ মাহফিল ও দোয়ার আয়োজন করা হয়।




জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শুক্রবার (১৪ আগস্ট) বিকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নে উদ্দ্যোগে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো: জসিম উদ্দিন। নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের (এনইউজে) সভাপতি আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আমির হুসাইন স্মিথের সঞ্চালয়নায় এতে আলোচনায় অংশ নেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রুমন রেজা, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি নাফিজ আশরাফ, সাবেক সভাপতি খন্দকার শাহ আলম। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজে’র কেন্দ্রীয় কমিটির কার্য নির্বাহী সদস্য আনিসুর রহমান জুয়েল, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি ইমামুল হাসান স্বপন, যুগ্ম সম্পাদক শওকত এ সৈকত, অর্থ সম্পাদক প্রবণ কৃষ্ণ রায়, নিবার্হী কমিটির সদস্য মো. খলিলুর রহমান, আহসান সাদিক শাওন’সহ বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকরা। 

অসহায়, দুস্থ ও পথচারীদের মধ্যে খাদ্য বিতরণ করা হয়গাজীপুর
দিনটি উপলক্ষ্যে জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে অসহায়, দুস্থ ও পথচারীদের মধ্যে খাদ্য বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল আলম রবিন পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে পথচারীদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেন। পরে দুপুরে শ্রীপুর পৌরসভার ব্যস্ততম মাওনা চৌরাস্তা উড়াল সেতুর নিচে পথচারী ও ভ্রাম্যমাণ দুস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন শ্রীপুর পৌর যুবলীগের সভাপতি হাসানুল ইসলাম আকন্দ শাওন, শ্রীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান, শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জুনায়েদ সিদ্দিকীসহ উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীবৃন্দ।

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করা হচ্ছে বরিশাল
শনিবার সকাল ৯টায় বরিশাল নগরীর সদর রোডের দলীয় কার্যালয় চত্ত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস। পরে মহানগর আওয়ামী লীগ এবং বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শ্রদ্ধা জানানো হয়। সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান বিভাগীয় কমিশনার অমিতাভ সরকার, ডিআইজি শফিকুল ইসলাম, পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান, জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান, পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলামসহ সরকারি বিভিন্ন দফতরের লোকজন। সকাল সাড়ে ১০টায় বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ছাদেকুল আরেফিন।

এর আগে শুক্রবার রাত ২টায় সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ দলীয় কার্যালয় চত্ত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন। সদর আসনের সংসদ সদস্য ও পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক এমপি’র পক্ষ থেকে সকাল সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুলের শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে প্রত্যুষে মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত এবং কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। এছাড়া দিনব্যাপী কোরআন তেলাওয়াত এবং দোয়া-মোনাজাত ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। তবে করোনার কারণে সব আয়োজনই ছিল সীমিত পরিসরে।


বাগেরহাটে জেলা প্রশাসন ও জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়বাগেরহাট                                                                                               
নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হয়েছে। শনিবার সকালে দিবসটি উপলক্ষে বাগেরহাটে জেলা প্রশাসন ও বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকিৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এছাড়া বাগেরহাট জেলা পুলিশ, বাগেরহাট প্রেসক্লাব, বাগেরহাট সদর হাসপাতাল, সদর উপজেলা পরিষদ, বাগেরহাট জেলা ছাত্রলীগ, জেলা তাঁতি লীগসহ জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। এ সময় বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ, পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ কামরুজ্জামান টুকু, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিনসহ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে জাতির জনকের স্মরণে বাগেরহাট স্বাধীনতা উদ্যানে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল। এরপর বন বিভাগের পক্ষ থেকে গাছের চারা রোপন করা হয়। এছাড়া জেলার বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত এবং দুস্থ্যদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।


নওগাঁয় বের করা হয় শোক র‌্যালী নওগাঁ  

জাতির জনক প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শোক র‌্যালী, আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে নওগাঁয় দিনটি পালিত হয়েছে। শনিবার সকালে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ প্রাঙ্গণ থেকে একটি মৌন মিছিল বের হয়ে তা শহরের প্রধান প্রধান স্থান প্রদক্ষিণ করে মুক্তির মোড়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়। জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার হারুন-অল-রশিদ মিছিলটির নেতৃত্ব দেন। এছাড়াও মিছিলে অংশগ্রহণ করেন সাবেক সহকারি কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ, সদর উপজেলা কমান্ডার গোলাম ছামদানীসহ প্রত্যক ইউনিয়ন থেকে আগত মুক্তিযোদ্ধারা। এর আগে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কার্যালয়ে জাতীয়, দলীয় ও কালো পতাকা অর্ধনমিত উত্তোলন, আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

জামালপুরে দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণ চলছে জামালপুর
বঙ্গবন্ধুর শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জামালপুরে দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়েছে। দুপুরে দরিদ্র ও অসহায় পরিবারের মাঝে খাবার বিতরণ কর্মসূচির আয়োজন করেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সুশান্ত চক্রবর্তী মিঠু। আওয়ামী পরিবারের ব্যানারে শহরের আটটি পয়েন্টে ৪ শতাধিক দরিদ্র ও অসহায় পরিবারের মাঝে এই খাবার বিতরণ করা হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সুরুজ্জামান, জেলা পরিষদের সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নাঈম রহমান, জেলা যুবলীগের সদস্য পলাশ কুমার দে রিংকু, উপজেলা স্বেচ্ছসেবক লীগ নেতা খুরশিদ আলম মিন্টু, জেলা ছাত্রলীগের সদস্য তুহিন শিকদার প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন, ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে কিন্তু তাঁর আদর্শকে হত্যা করতে পারেনি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণের লক্ষে তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন দুর্বার গতিতে। বক্তারা বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া করেন।


বগুড়ায় দিনটি পালনের দৃশ্য বগুড়া
বগুড়ায় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পৃথক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করেছে। জেলা আওয়ামী লীগ সকালে শহরে টেম্পল রোডের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত, কালো পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ এবং কালো ব্যাজ ধারণ করে। পরে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। 
কর্মসূচিতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মকবুল হোসেন, আসাদুর রহমান দুলু, সুলতান মাহমুদ খান রনি, মাশরাফী হিরো, আলরাজী জুয়েল, অধ্যক্ষ খাদিজা খাতুন শেফালী, সাজেদুর রহমান শাহীন, আমিনুল ইসলাম ডাবলু, জুলফিকার রহমান শান্ত, ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, অসীম কুমার রায়, রাশেদুজ্জামান রাজন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহীদের আত্মার শান্তি কামনায় বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়। 


এছাড়াও জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক, পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. মকবুল হোসেনের নেতৃত্বে শহরের সাতমাথায় স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। বগুড়া পুলিশ লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, নীরবতা পালন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কুমিল্লায় চলছে ‘ভার্চুয়াল শোকসভা’কুমিল্লা

১৫ আগস্ট বিচার বিভাগ, জেলা আইনজীবী সমিতি ও সরকারি আইন কর্মকর্তাবৃন্দ দিবসটি উপলক্ষে ভার্চুয়াল শোকসভার আয়োজন করে। কুমিল্লার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. আতাবুল্লাহর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল নং-০২ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) জাহিদুল কবির, জন নিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোছা. মরিয়ম-মুন-মুঞ্জুরী, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম নুসরাত জাহান উর্মি, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) বেগম ফারহানা লোকমান, জেলা পিপি অ্যাডভোকেট মো. জহিরুল ইসলাম সেলিম, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল মমিন ফেরদৌস, সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সৈয়দ আবদুল্লাহ পিন্টু, সাবেক সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. গোলাম ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. সামছুর রহমান ফারুক, লাকসাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. ইউনুস ভূঁইয়া, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ নুরুর রহমান প্রমুখ। শোক সভার সঞ্চালনা করেন যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ রোকন উদ্দিন কবির। এছাড়া ১৫ আগস্ট নিহত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবসহ পরিবারের নিহত সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। এতিমখানায় শিশুদেরকে খাবার দেয়া হয়।

 

লালপুর উপজেলা ও ভূমি অফিসে বৃক্ষ রোপন করেন ইউএনও উম্মুল বাণীন দ্যুতিনাটোর

জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, নীরবতা পালন, বৃক্ষ রোপন, আলোচনা ও দোয়ার মধ্য দিয়ে নাটোরে দিনটি পালিত হয়েছে। জেলা ও উপজেলা প্রশাসন, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন দিনব্যাপী এসব কর্মসূচি পালন করে। শনিবার সকালে জেলা আওয়ামী লীগ শহরের কান্দিভিটুয়া এলাকায় জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, নীরবতা পালন, বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের নিহত শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া করে। এরপর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় অন্যদের মধ্যে জেলা প্রশাসক শাহ রিয়াজ, সদর আসনের এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুল, নাটোর-নওগাঁর মহিলা এমপি রত্না আহমেদ, নাটোর পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া সদর উপজেলার দিঘাপতিয়া বালিকা শিশু সদনে এতিমদের সঙ্গে আলোচনা অংশ নেয় জেলা প্রশাসন। লালপুর উপজেলা ও ভূমি অফিসে বৃক্ষ রোপন করেন ইউএনও উম্মুল বাণীন দ্যুতি। পাঁচ জন দুঃস্থ মহিলাকে ৩০ হাজার টাকা করে যুব ঋণ দেন এমপি শহিদুল ইসলাম বকুল। নলডাঙ্গা ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন ও উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদও শোক দিবসের আলোচনায় অংশ নেন।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রদ্ধা নিবেদনইবিতে শোক দিবস পালন

যথাযোগ্য মর্যাদায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রয়াণ দিবস ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটিকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেন। সকাল ১০টায় মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন উপাচার্য অধ্যাপক রাশিদ আসকারী। এ সময় উপাচার্যের সঙ্গে ছিলেন উপ-উপাচার্য  অধ্যাপক মো. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সেলিম তোহা এবং রেজিস্ট্রার (ভারঃ) এস এম আব্দুল লতিফ’সহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এর আগে প্রশাসন ভবন চত্বরে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে অর্ধনমিত করেন উপাচার্য ড. আসকারী এবং এবং কালো পতাকা উত্তোলন করেন উপ উপাচার্য ড. শাহিনুর রহমান। বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে একে একে বিভিন্ন অনুষদ, বিভাগ, হল, শিক্ষক সমিতি, শাপলা ফোরাম, বঙ্গবন্ধু পরিষদের দুটি গ্রুপ, কর্মকর্তাদের দুটি গ্রুপ, ইবি প্রেস ক্লাব, ছাত্রলীগের বিদ্রোহী গ্রুপ পৃথক পৃথক ভাবে শ্রদ্ধা জানায়। শেষে ১ মিনিট নিরবতা পালন এবং দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এরপর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের একাংশ ও খালেদা জিয়া হলের পক্ষ থেকে বৃক্ষরোপন এবং বাদ জোহর কেন্দ্রীয় মসজিদে মিলাদ-মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া ছাত্রলীগের বিদ্রোহী গ্রুপের পক্ষ থেকে কাঙালি ভোজের আয়োজন করা হয়। 

/আরআইজে/

লাইভ

টপ