গৃহকর্মীকে ধর্ষণের মামলায় স্কুলশিক্ষক কারাগারে

Send
গাইবান্ধা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:২১, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০৩, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০

 

 

গাইবান্ধা জেলাগাইবান্ধা শহরের থানাপাড়ায় গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে সরকারি বালক উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ইউনুস আলীর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকালে গাইবান্ধা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

ইউনুস আলী গাইবান্ধা সরকারি বালক উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। তিনি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তারাপুর ইউনিয়নের নওহাটি গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট শফিকুল রহমান শফিক জানান, ১৫ বছরের এক কিশোরী স্কুলশিক্ষক ইউনুস আলীর বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতো। ওই শিক্ষক কিশোরীকে তিন মাস ধরে ধর্ষণ করে আসছে। বিষয়টি কাউকে না জানাতে ধর্মগ্রন্থ ছুঁয়ে কিশোরীকে শপথও করান অভিযুক্ত শিক্ষক। কিন্তু ইউনুস আলীর স্ত্রী ঘটনা জানতে পেরে গৃহকর্মী ওই কিশোরীকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। পরে বাড়িতে গিয়ে কিশোরী তার পরিবারকে ঘটনাটি জানায়।

এ ঘটনায় গত ৯ জুন কিশোরীর দাদি মালেকা বেগম বাদী হয়ে ইউনুস আলীর বিরুদ্ধে সদর থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ইউনুস আলী উচ্চ আদালত থেকে চার সপ্তাহের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন নেন। মঙ্গলবার আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন ইউনুস আলী। পরে শুনানি শেষে বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। সন্ধ্যার দিকে তাকে আদালত থেকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

/টিটি/এমওএফ/

লাইভ

টপ
X