রাতারাতি পদ্মায় বিলীন শহর রক্ষা বাঁধের আধা কিলোমিটার এলাকা

Send
রাজবাড়ী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:১৮, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:১৮, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

রাজবাড়ী জেলার পদ্মা নদীর তীরে শুরু হয়েছে তীব্র ভাঙন। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পের পাইলিংয়ের অন্তত ৫শ মিটার এলাকা। ঝুঁকিতে পড়েছে শহর রক্ষা বাঁধ, বসতবাড়িসহ বহু গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।
এলাকাবাসী জানায়, গত সোমবার রাত ১১টায় হঠাৎ ভাঙন শুরু হয় রাজবাড়ীর গোদার বাজার এলাকায়। মুহূর্তেই নদীগর্ভে চলে যায় রাজবাড়ী শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পের স্থায়ী পাইলিং এর অন্তত ৫শ মিটার এলাকা। এছাড়াও গত কয়েক দিনের পানি বাড়ায় ভাঙন দেখা দিয়েছে গোয়ালন্দ উপজেলার দেবোগ্রাম ও দৌলতদিয়া ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি স্থানে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, সাময়িকভাবে বালুর বস্তা ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু এটি পর্যাপ্ত নয়।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদ বলেন, 'ভাঙনের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর জরুরি ভিত্তিতে জিও ব্যাগ ফেলা শুরু হয়েছে। ভাঙন রোধে সব ধরনের প্রস্তুতি আছে। শহর রক্ষা প্রকল্প দ্বিতীয় ধাপের কাজ চলছে। এর মধ্যে হঠাৎ করেই রাতে ভাঙন শুরু হয়েছে। খবর পাওয়ার পরেই আমরা ঘটনাস্থলে চলে আসি। সকালে জেলা প্রশাসক নিজে এসেছিলেন। তারপর একজন ম্যাজিস্ট্রেটকে পাঠিয়েছেন। ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে সকাল থেকে দুপুর সাড়ে ১২টার পর্যন্ত ১২শ থেকে ১৩শ জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে। এখন ভাঙন পরিস্থিতি অনেকটা স্থিতিশীল। আমাদের স্টোরে যে পরিমাণ ব্যাগ আছে, আশা করছি তা দিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা যাবে।

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ