X
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২
২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বাঁধ ভেঙে হাওরে ঢুকেছে পানি, ২ কোটি টাকার ফসল নষ্টের শঙ্কা

হিমাদ্রি শেখর ভদ্র, সুনামগঞ্জ
০২ এপ্রিল ২০২২, ১৯:৪১আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০২২, ১৯:৪১

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে পাটলাই নদীর পানি উপচে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার নজরখালি বাঁধ ভেঙে তলিয়ে গেছে ১৬০ হেক্টর জমির ফসল। সেই সঙ্গে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ও দক্ষিণ ইউনিয়নের গোলাবাড়ি, ছিলাইন তাহিরপুর, মান্দিয়াতা, রংচি, ইন্দ্রপুর, বাগলি, জয়পুর, লামাগাঁও ও রামসিমপুরসহ ১০ গ্রামের দুই হাজার কৃষকের ফসলি জমির ধান তলিয়ে গেছে। এতে দুই কোটি টাকার ফসল নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

শনিবার (২ এপ্রিল) সকালে পাটলাই নদীর পানির চাপে বাঁধটি ভেঙে যায়। গত কয়েকদিন হাওর পাড়ের কৃষকরা বাঁধটি রক্ষার চেষ্টা চালিয়ে আসছিলেন। 

গোলাবাড়ি গ্রামের হাবিবুর রহমান বলেন, ‘সকালে তাহিরপুর সীমান্তের বিভিন্ন পাহাড়ি ছড়া দিয়ে পানি এসে পাটলাই নদীর পানি বেড়ে যায়। বাঁধের ওপর দিয়ে পানি বেয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পর বাঁধ ভেঙে ফসল তলিয়ে যায়।’ 

সোলেমানপুর গ্রামের তানভীর আহমদ বলেন, ‘সাত দিন পর হাওরের ফসল কাটা যেতো। কিন্তু পাহাড়ি ঢলে বাঁধ ভেঙে হাওরে পানি ঢোকায় আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হলাম।’

ছিলাইন তাহিরপুর গ্রামের সেলিম মিয়া বলেন, ‘এই হাওরে পানি উন্নয়ন বোর্ড কোনও বাঁধ দেয়নি। স্থানীয়রা টাকা দিয়ে বাঁধ দিয়েছেন। ওই বাঁধ ভেঙে ফসল তলিয়ে গেছে আমাদের।’

আরও পড়ুন: ভেঙেছে টাঙ্গুয়া হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধ, ডুবছে ১২০ হেক্টর জমির ধান

তাহিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান উদ দৌলা বলেন, ‘টাঙ্গুয়ার হাওরে কৃষি জমির পরিমাণ খুবই কম। এটি মাছের অভয়াশ্রম। বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় কৃষকের দুই কোটি টাকার ফসল নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।’ 

তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন, ‘টাঙ্গুয়ার হাওর একটি রামসার সাইট। এখানে বাঁধ দেওয়া নিষেধ। তারপরও উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে পানির প্রাথমিক চাপ কমাতে ছোট একটি বাঁধ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বাঁধ টেকেনি। এটি সংস্কার করা হবে না।’

তাহিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখ বলেন, ‘বাঁধ ভেঙে হাওরের অনেক কৃষকের ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাওরে পানি ঢোকায় তাহিরপুর ও মধ্যনগর উপজেলার শনি হাওর, মাটিয়ান হাওর ও মহালিয়ার হাওরসহ কিছু বাঁধে পানির চাপ কমবে। এসব হাওর রক্ষা পাবে। এরই মধ্যে যাদুকাটা নদীর পানি কমতে শুরু করেছে।’

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রায়হান কবির বলেন, ‘টাঙ্গুয়ার হাওরে বাঁধ দেওয়ার নিয়ম নেই। এটি মূলত মাছের হাওর। প্রতিবছর স্থানীয়রা নিজেদের অর্থায়নে বাঁধ দেয়। হাওরে কৃষি জমির পরিমাণ কম। মেঘালয় পাহাড়ের ছড়া দিয়ে পাটলাই নদীর পানি বেড়ে বাঁধটি ভেঙে গেছে। এটি মেরামত কিংবা সংস্কারের সুযোগ নেই। পরে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সহযোগিতা করা হবে।’ 

সিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার গোস্বামী বলেন, ‘টাঙ্গুয়ার হাওরে বাঁধ দেওয়ার নিয়ম নেই। কখনও পানি উন্নয়ন বোর্ড এখানে বাঁধ দেয় না। স্থানীয়রা প্রতিবছর নিজেদের উদ্যোগে বাঁধ দেন। এবারও বাঁধ দিয়েছেন। কিন্তু বাঁধ টেকেনি। গেলো কয়েক বছর ধরে হাওরের এসব জমিতে ধান ফলানো হয়।’

 

/এএম/
‘৭ ডিসেম্বর কক্সবাজার জনসমুদ্রে পরিণত হবে’
কক্সবাজারে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা‘৭ ডিসেম্বর কক্সবাজার জনসমুদ্রে পরিণত হবে’
বিএনপির গণসমাবেশ: ব্যস্ততা বেড়েছে পল্টন থানায়
বিএনপির গণসমাবেশ: ব্যস্ততা বেড়েছে পল্টন থানায়
ব্রাজিলের বিপক্ষে ‘অঘটন’ চান সনও
ব্রাজিলের বিপক্ষে ‘অঘটন’ চান সনও
ধর্মীয় সম্প্রীতি রক্ষায় সবাইকে দায়িত্বশীল হতে হবে: ডেপুটি স্পিকার
ধর্মীয় সম্প্রীতি রক্ষায় সবাইকে দায়িত্বশীল হতে হবে: ডেপুটি স্পিকার
সর্বাধিক পঠিত
আজ অব্দি শাকিব খানের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা নিইনি: বুবলী
আজ অব্দি শাকিব খানের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা নিইনি: বুবলী
কাতার থেকে অভিযোগ, শাহজালালে ধরা
কাতার থেকে অভিযোগ, শাহজালালে ধরা
ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় যারা
ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় যারা
সিঁড়ি থেকে পড়ে গেছেন পুতিন, অসুস্থতা নিয়ে বাড়ছে জল্পনা
সিঁড়ি থেকে পড়ে গেছেন পুতিন, অসুস্থতা নিয়ে বাড়ছে জল্পনা
নেতানিয়াহুকে সতর্ক করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
নেতানিয়াহুকে সতর্ক করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী