X
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
৬ বৈশাখ ১৪৩১

শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে কার্যক্রম শুরু করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়: উপাচার্য

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
১৮ জানুয়ারি ২০২৪, ১৮:৩২আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২৪, ১৮:৩২

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় দেশব্যাপী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে কার্যক্রম শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান।

বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শিক্ষার উৎকর্ষতার পাশাপাশি মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষাও অপরিহার্য। সে কারণে এ কার্যক্রম শুরু করেছে। বছরব্যাপী এই কার্যক্রম চলবে।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান বলেন, আমরা চাই, আমাদের শিক্ষার্থীরা সুন্দর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে বেড়ে উঠুক। সমৃদ্ধ ও সুন্দর বাংলাদেশ গড়ে তুলুক।

তিনি বলেন, উচ্চশিক্ষার ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে অধ্যয়ন করছে। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রতিনিয়ত তারা নিজেদের সমৃদ্ধ করার চেষ্টা করছে। এসবের পাশাপাশি নানা প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করছে। তবে প্রতিবন্ধকতা যতই থাকুক না কেন প্রতিটি শিক্ষার্থীর মনে গভীর উৎসাহ থাকে, উদ্দীপনা থাকে, স্বপ্ন জয়ের আকাঙ্ক্ষা থাকে। কিন্তু কখনও সেই পথে সে বিমর্ষ হয়, বিষণ্ণ হয়। কখনও সে মনে করে তার স্বপ্নের জায়গাটায় পৌঁছাতে না পারায় অনেকগুলো বাধা আছে। শিক্ষক হিসেবে, অভিভাবক হিসেবে আমি মনে করি- এটি আমাদের পবিত্র দায়িত্ব শিক্ষার্থীদের মধ্যে যেন এমন সময় না আসে সে জন্য তাকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করা। এক্ষেত্রে কোন কোন জায়গায় আমাদের করণীয় আছে সেটি নির্ধারণ করা।

উপাচার্য ড. মশিউর রহমান বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি, আমাদের শিক্ষার্থীরা ভীষণ আত্মবিশ্বাসী এবং উদ্যমী। এই আত্মবিশ্বাসের অনেক কারণ আছে। আমরা এই অঞ্চলের মানুষ আত্মনির্ভরশীল সেটি যেমন আছে, আমরা যেই স্বাধীন জাতিরাষ্ট্রে বসবাস করি যেখানে আমাদের পূর্বপুরুষের আত্মত্যাগ রয়েছে। আমাদের ভালো থাকার জন্য তারা জীবন দিয়েছেন। সে জন্য আমাদের আত্মবিশ্বাসের এবং গৌরবের যথেষ্ট কারণ রয়েছে। সে কারণেই আমাদের শিক্ষকদের মনোবল সারা জীবনের জন্য দৃঢ় থাকা উচিত। এটি ভেবেই আমরা স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদ্বয়ের ইতিহাস অবশ্যপাঠ্য করেছি। পাশাপাশি বিশ্বনাগরিক হিসেবে তৈরির জন্য তাদের সামনে হাজির করেছি আইসিটি, সফটস্কিল এবং অন্ট্রাপ্রেনারশিপের মতো বিষয়গুলো। এগুলো শিখলে শিক্ষার্থীরা বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারবে। কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

/এসএমএ/আরআইজে/
সম্পর্কিত
ঈদ এলে যাওয়া-আসার মধ্যে থাকেন তারা
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষ পরীক্ষার ফল প্রকাশ আজ
অনার্স পরীক্ষার ফল প্রকাশের আগেই ২৭০০ শিক্ষার্থীর উত্তরপত্র চুরি
সর্বশেষ খবর
দাবদাহে ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের তরল খাদ্য দিচ্ছে ডিএমপি
দাবদাহে ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের তরল খাদ্য দিচ্ছে ডিএমপি
জাপানি ছবির দৃশ্য নিয়ে কানের অফিসিয়াল পোস্টার
কান উৎসব ২০২৪জাপানি ছবির দৃশ্য নিয়ে কানের অফিসিয়াল পোস্টার
ড্যান্ডি সেবন থেকে পথশিশুদের বাঁচাবে কারা?
ড্যান্ডি সেবন থেকে পথশিশুদের বাঁচাবে কারা?
লখনউর কাছে হারলো চেন্নাই
লখনউর কাছে হারলো চেন্নাই
সর্বাধিক পঠিত
বাড়ছে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানি, নতুন যোগ হচ্ছে স্বাধীনতা দিবসের ভাতা
বাড়ছে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানি, নতুন যোগ হচ্ছে স্বাধীনতা দিবসের ভাতা
ইরান ও ইসরায়েলের বক্তব্য অযৌক্তিক: এরদোয়ান
ইস্পাহানে হামলাইরান ও ইসরায়েলের বক্তব্য অযৌক্তিক: এরদোয়ান
উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে অপহরণের ঘটনায় ক্ষমা চাইলেন প্রতিমন্ত্রী
উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে অপহরণের ঘটনায় ক্ষমা চাইলেন প্রতিমন্ত্রী
ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল!
ইরানে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল!
সংঘাত বাড়াতে চায় না ইরান, ইসরায়েলকে জানিয়েছে রাশিয়া
সংঘাত বাড়াতে চায় না ইরান, ইসরায়েলকে জানিয়েছে রাশিয়া