X
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের জাল সার্টিফিকেটের ‘কারিগর’ গ্রেফতার

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০১ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:০৭আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ২০:১০

সনদ ও নম্বরপত্র জালিয়াতির দায়ে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সিস্টেম এনালিস্ট প্রকৌশলী এ কে এম শামসুজ্জামানকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গেয়েন্দা পুলিশ। এই ঘটনার পর সোমবার (১ এপ্রিল) কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করতে শুদ্ধি অভিযান পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

গ্রেফতারের পর সিস্টেম এনলিস্ট প্রকৌশলী এ কে এম শামসুজ্জামানকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড। বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর খানের সই করা অফিস আদেশে বলা হয়, রবিবার (৩১ মার্চ) মধ্যরাতে রাতে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সিস্টেম এনলিস্ট প্রকৌশলী এ কে এম শামসুজ্জামানকে সদন প্রিন্ট ও বিক্রির অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে। এমতাবস্থায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, বিপুল পরিমাণ অবৈধ সনদ, নম্বরপত্রসহ কাকে গ্রেফতার ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করে।

এই ঘটনায় আরও কর্মকর্তা-কর্মচারী জড়িত থাকতে পারেন জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত আরও অনেকেই আছে বলে আমাদের ধারণা। সেগুলো সব তদন্ত করে দেখা হচ্ছে এবং জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

পুলিশের ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চের (ডিবি) ডিসি (লালবাগ) মশিউর রহমান জানান, ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের একাধিক টিম এটিএম শামসুজ্জামান এবং তার সহযোগী ফয়সাল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারের সময় কাছাকাছি দুইটি ভিন্ন বাসায় তাদের হেফাজত থেকে একাধিক কম্পিউটার, ল্যাপটপ, প্রিন্টার, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে চুরি করে নেওয়া হাজার হাজার অরিজিনাল সার্টিফিকেট এবং মার্কশিটের ব্ল্যাংক কপি, তৈরি করা শতাধিক সার্টিফিকেট এবং ট্রান্সক্রিপ্ট, বায়োডাটা, গুরুত্বপূর্ণ দলিল ইত্যাদি উদ্ধার করা হয়েছে।

এসব কম্পিউটার প্রিন্টার ল্যাপটপ দিয়ে গত কয়েক বছরের পাঁচ হাজারের বেশি অরিজিনাল সার্টিফিকেট মার্কশিট বানিয়ে ভুয়া লোকদের কাছে হ্যান্ডওভার করা হয়েছে এবং একইসঙ্গে সরকারি ওয়েবসাইটে, সরকারি পাসওয়ার্ড, অথরাইজেশন ব্যবহার করে ভুয়া লোকদের মধ্যে বিক্রি করা সার্টিফিকেটগুলোকে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছে। ফলে বাংলাদেশসহ পৃথিবীর যেকোনও দেশে বসে এই ওয়েবসাইটে গিয়ে রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বরগুলো সার্চ করলে তা সঠিক বলে প্রমাণিত হবে।

তিনি আরও জানান, একেএম শামসুজ্জামানের বাড়ি দিনাজপুরে। বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সিস্টেম অ্যানালিস্ট হিসেবে যোগদান করেছেন ২০০৯ সালে। বর্তমানে তার পদ সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট। বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার বিভিন্ন থানার আনাচে কানাচে অবস্থিত কারিগরি বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়গুলোয় পড়ালেখা করা হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীর রেজিস্ট্রেশন, রোল নাম্বার, সার্টিফিকেট ও ট্রান্সক্রিপ্ট তৈরি, সেগুলোকে নির্দিষ্ট সার্ভারে আপলোড দেওয়া, ভেরিফিকেশন নিশ্চিত করা, কম্পিউটার সিস্টেম কোড সংরক্ষণ গোপনীয়তা বজায় রাখাসহ বোর্ডের সব রকম ডিজিটালাইজেশন এবং কম্পিউটারাইজেশন মূল দায়িত্ব তার। সহকর্মী কম্পিউটার অপারেটর বা এক্সপার্টদের সঙ্গে নিয়ে এই দায়িত্বটা তিনি পালন করতেন। কিন্তু তিনি ও তার সহযোগীরা বিশাল তথ্য ভান্ডার, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অথরিটি, সিস্টেম কোড ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে লাখ লাখ টাকার সার্টিফিকেট ও মার্কশিট বাণিজ্য করেছেন।

শামসুজ্জামান অফিসের কিছু লোক এবং বাইরের বিভিন্ন বিভাগের কিছু দালালকে দিয়ে মার্কশিট ও সার্টিফিকেট তৈরির এই বাণিজ্য করে আসছেন। দালালরা কখনও কখনও ফেসবুক ও অন্যান্য সোশ্যাল মাধ্যমে বিজ্ঞাপন ও দিতো যে তারা যে অরজিনাল সার্টিফিকেট, মার্কশিট দেবে তা অনলাইনে ভেরিফাইড হবে।

২০১৭ সালে ও মার্কশিট সার্টিফিকেট বিক্রির অভিযোগে তাকে সাময়িকভাবে চাকরিচ্যুত করা হয়। কিন্তু হাইকোর্টের মাধ্যমে আবার চাকরিতে পুনর্বাহল হন। এখন পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে পাঁচ হাজারের বেশি সার্টিফিকেট মার্কশিট বিক্রি করেছেন বলে গোয়েন্দাদের কাছে স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রজ্জু হওয়া প্রক্রিয়াধীন।

ডিসি মশিউর রহমান বলেন, আমরা মনে করি একজন ব্যক্তির পক্ষে দীর্ঘ সময় ধরে এতো বড় জোচ্চুরি করাটা দুষ্কর। তার সঙ্গে অন্যরা হয় অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হয়েছে না হয় দায়িত্বে অবহেলা করে তাকে এই কুকর্মটি সম্পাদন করার জন্য সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে। তদন্ত করে জড়িত সবাইকেই আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

/এসএমএ/এফএস/
সম্পর্কিত
কৃতীজন সংবর্ধনা দিলো চট্টগ্রাম সমিতি
সব বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে চান নওফেল
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী
সর্বশেষ খবর
রানি হামিদ-শিরিনকে ছাড়িয়ে জাতীয় দাবায় আবার নোশিনের শ্রেষ্ঠত্ব
রানি হামিদ-শিরিনকে ছাড়িয়ে জাতীয় দাবায় আবার নোশিনের শ্রেষ্ঠত্ব
নতুন কারিকুলামের ষান্মাসিক মূল্যায়নের রুটিন
নতুন কারিকুলামের ষান্মাসিক মূল্যায়নের রুটিন
আ.লীগ নেতাকে হারিয়ে জাতীয় পার্টির প্রার্থীর জয়
আ.লীগ নেতাকে হারিয়ে জাতীয় পার্টির প্রার্থীর জয়
বায়ার্ন মিউনিখের নতুন কোচ কোম্পানি
বায়ার্ন মিউনিখের নতুন কোচ কোম্পানি
সর্বাধিক পঠিত
ধান বিক্রি করে ৯৬ হাজার টাকা পেলেন প্রধানমন্ত্রী
ধান বিক্রি করে ৯৬ হাজার টাকা পেলেন প্রধানমন্ত্রী
ট্রান্সকম গ্রুপের সিইও সিমিন রহমানসহ ৪ জনের রিমান্ড নামঞ্জুর
ট্রান্সকম গ্রুপের সিইও সিমিন রহমানসহ ৪ জনের রিমান্ড নামঞ্জুর
শান্তি সম্মেলনে বাইডেনের অনুপস্থিতিতে হাততালি দেবেন পুতিন: জেলেনস্কি
শান্তি সম্মেলনে বাইডেনের অনুপস্থিতিতে হাততালি দেবেন পুতিন: জেলেনস্কি
আ.লীগের ১১ এমপি খুন, বিদেশে প্রথম আনার
আ.লীগের ১১ এমপি খুন, বিদেশে প্রথম আনার
ব্যাংক বাড়ায় সুদ, টাকা যায় মানুষের পকেটে!
ব্যাংক বাড়ায় সুদ, টাকা যায় মানুষের পকেটে!