X
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪
২ শ্রাবণ ১৪৩১

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ: জব্দকৃত রুশ সম্পদ ব্যবহারে সিদ্ধান্ত নেবে জি৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৩ জুন ২০২৪, ১৪:২৭আপডেট : ১৩ জুন ২০২৪, ১৪:২৮

জি৭ এর একটি শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ইতালিতে জড়ো হচ্ছেন বিশ্বের সাতটি ধনী দেশের নেতারা। আশা করা হচ্ছে, এই সম্মেলনে ইউক্রেনকে কোটি ডলারের সহায়তা দিতে জব্দকৃত রুশ সম্পদ ব্যবহার করার পরিকল্পনায় সম্মত হবেন তারা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

জব্দকৃত রুশ সম্পদ ব্যবহারের প্রস্তাবটি রেখেছিল যুক্তরাষ্ট্র। এই প্রস্তাব অনুমোদিত হলে ইউক্রেনের জন্য এক বছরে ৫ হাজার কোটি ডলার পর্যন্ত সহযোগিতা উঠতে পারে। একইসঙ্গে রাশিয়ার ওপর নতুন করে অর্থনৈতিক চাপ প্রয়োগ করতে পারবে পশ্চিমারা।

ইউক্রেন ছাড়াও জি৭ সম্মেলনের আলোচ্যসূচিতে গাজা যুদ্ধ, অভিবাসন, অর্থনৈতিক নিরাপত্তা এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এই সম্মেলনটি এমন সময় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যখন সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেই নির্বাচনি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবেন ঋষি সুনাক, ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এবং জো বাইডেনসহ বেশ কয়েকজন নেতা।

সম্মেলনে ইউক্রেনের জন্য মার্কিন এই প্রস্তাব অনুমোদিত হলে একটি ঋণ হিসেবে দেশটিকে অর্থ দেওয়া হবে। রাশিয়ার ৩২ হাজার ৫০০ কোটি ডলারের সম্পদের সুদ থেকে এই ঋণ দেওয়া হবে। ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের পর সেগুলো জব্দ করেছিল জি৭ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে, দেশগুলো রাশিয়ার সম্পদ জব্দ করার পর তা ইউক্রেনকে দিতে পারে না।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এই সম্মেলনে যোগ দেবেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একটি নতুন নিরাপত্তাব্যবস্থা স্বাক্ষর করবেন।

অন্যদিকে, ইউক্রেনের জন্য ৩০ কোটি ৯০ লাখ ডলার পর্যন্ত সহায়তা ঘোষণা করতে প্রস্তুত ঋষি সুনাক।

/এএকে/
সম্পর্কিত
ইউক্রেনের জন্য সামরিক সহায়তা কমিয়ে অর্ধেক করবে জার্মানি
হরিয়ানায় অগ্নিবীরদের জন্য পুলিশ ও খনিরক্ষীর চাকরিতে ১০ শতাংশ কোটার ঘোষণা
তাইওয়ান ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক নিয়ে যা জানা গেলো
সর্বশেষ খবর
জবি ক্যাম্পাস আন্দোলনকারীদের দখলে, মূল ফটকে ‘ছাত্রলীগ প্রবেশ নিষেধ’ বিজ্ঞপ্তি
জবি ক্যাম্পাস আন্দোলনকারীদের দখলে, মূল ফটকে ‘ছাত্রলীগ প্রবেশ নিষেধ’ বিজ্ঞপ্তি
৬ শিক্ষার্থী হত্যায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি বিরোধীদলীয় নেতার
৬ শিক্ষার্থী হত্যায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি বিরোধীদলীয় নেতার
ছারছীনার পীরের মৃত্যুতে ধর্মমন্ত্রীর শোক
ছারছীনার পীরের মৃত্যুতে ধর্মমন্ত্রীর শোক
ছাত্রদলের সাবেক সভাপতিসহ ৭ জন রিমান্ডে
ছাত্রদলের সাবেক সভাপতিসহ ৭ জন রিমান্ডে
সর্বাধিক পঠিত
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা
কী আছে ড. জাফর ইকবালের মূল লেখায়
কী আছে ড. জাফর ইকবালের মূল লেখায়
ছাত্রলীগের ১৫ কর্মীকে ছয়তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ
ছাত্রলীগের ১৫ কর্মীকে ছয়তলা থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
রোকেয়া হল ছাত্রলীগের নেত্রীর কক্ষে হামলা, মারধর
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’
ছাত্রলীগ থেকে পদত্যাগ করলেন আরেক নেতা, লিখলেন ‘আর পারলাম না’