X
রবিবার, ১৪ আগস্ট ২০২২
৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

১৪ দিনের জেল হেফাজতে পার্থ ও অর্পিতা

রক্তিম দাশ, কলকাতা
০৫ আগস্ট ২০২২, ২৩:০৩আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২২, ২৩:০৩

ফের ইডির দাবি মেনে নিলো ভারতের আদালত। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা দফতরের নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বরখাস্ত মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠিয়েছেন বিচারক। এদিন পার্থর জামিনের আবেদন খারিজ করে ব্যাংকশাল কোর্টে ইডির বিশেষ আদালত এই নির্দেশ দেয়। পার্থকে রাখা হবে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে।

এদিন সকালে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে জোকার ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ব্যাপক নিরাপত্তা মধ্য দিয়ে। হাসপাতালে ঢোকা ও বের হওয়ার সময় সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নে মুখ খোলেননি পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

ইডির বিশেষ আদালতে বিচারক জীবন কুমার সাধুর কাছে পার্থর জামিনের আর্জি জানান তার আইনজীবী কৃষ্ণ চন্দ্র দাস। তিনি বলেন, ‘আমরা জামিন চাইছি। কারণ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের প্রায় ৭৫ বছর বয়স। শরীর খারাপ। তদন্তকারী সংস্থা জেল হেফাজত চাইছে। কিন্তু এটা রাজনৈতিক ইস্যু, মিডিয়া ইস্যু। এটা মূলত সিবিআইয়ের মামলা। হাইকোর্টের নির্দেশের পর সিবিআই দায়িত্ব নেয়। কিন্তু ইডি এখানে উপযাজক হয়ে গ্রেফতার করেছে। মূল মামলা সিবিআইয়ের হতে। তাছাড়া কোনও অভিযোগপত্রে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম সরাসরি নেই। তিনি পাবলিক সার্ভেন্ট। এভাবে তাকে গ্রেফতার করে রাখা যায় না। আইন তাই বলছে। এই উদ্ধার হওয়া টাকা যে তার, এর কোনও প্রমাণ নেই। কেউ কোনও দিন বলেনি যে, উনি টাকা নিয়েছেন। যা ছড়াচ্ছে তা রাজনৈতিক ও মিডিয়ার অপপ্রচার। হাইকোর্ট বলেছিল সিবিআই মামলার দায়িত্ব নেবে। আর্থিক দুর্নীতি হলে ইডির সাহায্য নেবে। ইডির গ্রেফতারি যৌক্তিক নয়। কোনও প্রমাণ ছাড়াই তারা গ্রেফতার করেছে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় কোনও দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত নয়। তার বাড়ি থেকে রুপি সংক্রান্ত কোনও প্রমাণ পায়নি ইডি।’

পার্থর আইনজীবী এদিন আদালতে প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘এতোদিন ইডির হেফাজতে কী লাভ হলো? বলছে, পার্থ সাহায্য করছে না। কিন্তু একটা মানুষ যদি কিছু না জানে তবে কি বলবে? পিএমএল আইন অনুযায়ী, কোনও ক্রিমিনাল ব্যাকগ্রাউন্ড না থাকলে বিধায়কদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মানতে হয়। এরা কিছুই মানলো না। তার কোনও ক্রিমিনাল কেস নেই। উনি কোথাও পালাচ্ছেন না। উনাকে জামিন দেওয়া হোক।’

ইডির আইনজীবী ফিরোজ ইডুলজি বলেন, ‘অর্পিতার দুই বাড়ি থেকে ৪৯.৮ কোটি রুপি পাওয়া গেছে। যৌথ দলিল পাওয়া গেছে অর্পিতা মুখোপাধ্যায় ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নামে। ‘এমএস অনন্ত টেক্সফ্যাব প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে একটি সংস্থার খোঁজ মিলেছে। ওই সংস্থার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে পার্থ ও অর্পিতার আত্মীয়দের মধ্যে। এই সংস্থাটিতে অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটের ঠিকানা রয়েছে। যে ফ্ল্যাট থেকে রুপির পাহাড় উদ্ধার হয়েছে। এছাড়াও ৫০টি সন্দেহজনক ব্যাংক অ্যাকাউন্টের লেনদেন খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জীবন বীমার ক্ষেত্রে ৩১টা কাগজ আমরা পেয়েছি। যার মধ্যে সবগুলোরই নমিনি পার্থ।’

পার্থর আইনজীবী বলেন, ‘৩১টি জীবন বিমার তথ্য ‘হাফ বেকড’। বিমার নথি সঠিক নয়। কারণ, বিমায় সাধারণত মা, বাবা, স্বামী, স্ত্রী, ছেলে বা মেয়েকেই নমিনি করা হয়। সেই অর্থে কোনও সম্পত্তি পার্থর নামে নেই। অর্পিতার বাড়ি থেকে কিছু উদ্ধার হলে তার সঙ্গে পার্থর কী সম্পর্ক? যৌথ অংশীদারিত্বে কেনা সংস্থার নথি উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু ওই সম্পত্তি যে পার্থর, তা প্রমাণিত নয়। সম্পত্তি কার, তা শুধু দলিল দিয়ে প্রমাণিত হয় না। দলিলের সত্যতা প্রমাণ করাও জরুরি।’

ইডির আইনজীবী বলেন, ‘অর্পিতার বিমায় কেন পার্থর নাম রয়েছে, তা বিমা সংস্থা বলতে পারবে। উদ্ধার হওয়া নথিতে আমরা যা দেখতে পাচ্ছি, শুধু তা নিয়েই কথা বলছি। যে ব্যক্তি অ্যারেস্ট মেমোয় মুখ্যমন্ত্রীর নাম লেখেন, তিনি প্রভাবশালী নন, এ কথা মানা যায় না। যেসব নথি উদ্ধার হয়েছে, সে ব্যাপারে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। পার্থকে ১৪ দিনের বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখার আবেদন জানাচ্ছি।’

পার্থর আইনজীবী বলেন, ‘পার্থকে এই মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। উনি বিধায়ক পদ থেকেও ইস্তফা দেওয়ার কথা ভাবছেন। উনি অসুস্থ। বয়সও হয়েছে। হাসপাতালের রিপোর্টেও অসুস্থতার কথা উল্লেখ রয়েছে। ওনাকে জামিন দেওয়া হোক।’

এদিন সওয়াল-জবাব শেষে পার্থর আইনজীবীর জামিনের আবেদনে আমল না দিয়ে বিচারক জীবন কুমার সাধু বলেন, পার্থ ও অর্পিতাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজত দেওয়া হলো। আগামী ১৮ আগস্ট ফের আদালতে তোলা হবে তাদের। সংশোধনাগারে গিয়ে এই মামলার তদন্ত করবেন ইডি কর্মকর্তারা। ইডির তদন্তকারিদের সঙ্গে সংশোধনাগারে আরও দুই জন কর্মকর্তা যেতে পারবেন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। সংশোধনাগারে জেরার পুরোটাই রেকর্ড করবে ইডি।

/এমপি/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
টিকিট না পাওয়ায় ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’র শো’ই কিনে নিলেন প্রবাসী
টিকিট না পাওয়ায় ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’র শো’ই কিনে নিলেন প্রবাসী
ইউক্রেনের দক্ষিণে সেনাদের সংগঠিত করছে রাশিয়া: ব্রিটিশ গোয়েন্দা
ইউক্রেনের দক্ষিণে সেনাদের সংগঠিত করছে রাশিয়া: ব্রিটিশ গোয়েন্দা
নৈশপ্রহরীকে হত্যা করে দোকানে ডাকাতি
নৈশপ্রহরীকে হত্যা করে দোকানে ডাকাতি
পিএইচডি গবেষণা: নীতিমালার খসড়া তৈরি করতে ৭ সদস্যের কমিটি
পিএইচডি গবেষণা: নীতিমালার খসড়া তৈরি করতে ৭ সদস্যের কমিটি
এ বিভাগের সর্বশেষ
ইউক্রেনের দক্ষিণে সেনাদের সংগঠিত করছে রাশিয়া: ব্রিটিশ গোয়েন্দা
ইউক্রেনের দক্ষিণে সেনাদের সংগঠিত করছে রাশিয়া: ব্রিটিশ গোয়েন্দা
মহারাষ্ট্রে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৫ জন নিহত
মহারাষ্ট্রে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৫ জন নিহত
শ্রেণিকক্ষে ফিরছে সাংহাইয়ের শিক্ষার্থীরা
শ্রেণিকক্ষে ফিরছে সাংহাইয়ের শিক্ষার্থীরা
যোগী আদিত্যনাথকে বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি
যোগী আদিত্যনাথকে বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি
পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের রুশ সেনাদের সতর্ক করলেন জেলেনস্কি
পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের রুশ সেনাদের সতর্ক করলেন জেলেনস্কি