X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

ইয়েমেনে বিমান হামলা সৌদি জোটের, নিহত অন্তত ১৪

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:৫৭

ইয়েমেনে ভয়াবহ বিমান হামলা চালিয়েছে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। ১৮ জানুয়ারি মঙ্গলবার ভোরে রাজধানী সানায় চালানো এ বিমান হামলায় অন্তত ১৪ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নিহতদের সবাই একই ভবনের বাসিন্দা।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে সানায় হুথি বিদ্রোহীদের ঘাঁটিসহ বিভিন্ন অবস্থানে সৌদি সামরিক জোটের বিমান হামলার খবর নিশ্চিত করা হয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, রাজধানী সানায় অন্যান্য লক্ষ্যবস্তুর পাশাপাশি সাবেক একজন সামরিক কর্মকর্তার বাড়িকেও হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা হয়। এতে ওই সামরিক কর্মকর্তা, তার স্ত্রী, তাদের ২৫ বছর বয়সী সন্তানসহ পরিবারের আরও একাধিক সদস্য নিহত হয়। এছাড়া সেখানে অজ্ঞাত আরও বেশ কয়েকজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোতে তাৎক্ষণিকভাবে ১৪ জন নিহতের কথা বলা হলেও এ হামলায় ২০ জন নিহতদের কথা জানিয়েছে হুথি বিদ্রোহীরা। টুইটারে দেওয়া পোস্টে হুথি বিদ্রোহীদের পরিচালিত প্রশাসনের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানিয়েছেন।

হুথি পরিচালিত আল মাসিরাহ টিভি জানিয়েছে, হামলায় অনেক ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্তত ডজনখানকে মানুষ নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ডজনখানেক মানুষ।

১৭ জানুয়ারি সোমবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবু ধাবি বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলা চালায় ইয়েমেনের ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীরা। এতে নিহত হন তিন জন। তাদের মধ্যে দুই জন ভারতীয় এবং একজন পাকিস্তানি নাগরিক। দৃশ্যত ওই হামলার জবাবেই মঙ্গলবার সানায় হুথি স্থাপনাকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে বিমান হামলা চালিয়েছে সৌদি জোট।

সোমবারের ওই হামলার পরপরই প্রতিশোধ নেওয়ার অঙ্গীকার করে আমিরাতি কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে হুথি বিদ্রোহীদের পাল্টা জবাব দেওয়ার অধিকার আমিরাতের রয়েছে বলে জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

রয়টার্স প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃস্থানীয় একটি উপসাগরীয় আরব মিত্রের ওপর হামলা হুথি বিদ্রোহী এবং সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের মধ্যকার যুদ্ধকে একটি নতুন ধাপে নিয়ে গেছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমিরাতের মাটিতে এবং বেসামরিক স্থাপনায় হুথি মিলিশিয়াদের সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ধরনের ঘটনা কোনও শাস্তি ব্যতিরেকে ছেড়ে দেওয়া যেতে পারে না। এই সন্ত্রাসী হামলার প্রতিক্রিয়া জানানোর অধিকার আমিরাতের রয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে এরইমধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেক সুলিভান বলেছেন, হুথি বিদ্রোহীদের জবাবদিহির আওতায় আনতে ওয়াশিংটন কাজ করবে।

রিয়াদের নেতৃত্বাধীন যে সামরিক জোট বছরের পর বছর ধরে ইয়েমেনে হামলা চালিয়ে আসছে সংযুক্ত আরব আমিরাতও সেই জোটের সদস্য। এই জোট ইয়েমেনে যে কোনও মূল্যে হুথি বিদ্রোহীদের পরাস্ত করতে চায়। অন্যদিকে সৌদি জোটের আক্রমণের পাল্টা জবাব হিসেবে প্রায় নিয়মিতভাবেই সৌদি আরবে ড্রোন হামলা চালিয়ে থাকে হুথি। ২০১৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরামকোর দুইটি বৃহৎ তেল স্থাপনায় ড্রোন হামলা চালানো হয়। ওই হামলার পর দেশটির তেল উৎপাদন প্রায় অর্ধেকে নেমে আসে। সর্বশেষ ১৭ জানুয়ারি আমিরাতে হুথি বিদ্রোহীদের হামলার ঘটনায় ফের পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠে।

/এমপি/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে ধান কাটতে দিনাজপুরে, রোহিঙ্গা আটক
কক্সবাজারের ক্যাম্প থেকে ধান কাটতে দিনাজপুরে, রোহিঙ্গা আটক
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় ট্রাস্টির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় ট্রাস্টির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা
বিদেশ থেকে পণ্য কিনে দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ২
বিদেশ থেকে পণ্য কিনে দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ২
কাপুরুষ ছাড়া মেয়েদের ওপর আঘাত করতে পারে না: রিজভী
কাপুরুষ ছাড়া মেয়েদের ওপর আঘাত করতে পারে না: রিজভী
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
ভারতের কাছে ৫০ কোটি ডলার ঋণ চায় শ্রীলঙ্কা
ভারতের কাছে ৫০ কোটি ডলার ঋণ চায় শ্রীলঙ্কা
সম্পর্ক উষ্ণ করতে ইসরায়েল যাচ্ছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী
সম্পর্ক উষ্ণ করতে ইসরায়েল যাচ্ছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী
জ্বালানির দাম বাড়ালো শ্রীলঙ্কা
জ্বালানির দাম বাড়ালো শ্রীলঙ্কা
ইমরান খানের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নিষেধাজ্ঞা
ইমরান খানের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নিষেধাজ্ঞা
সিরিয়ায় নতুন সামরিক অভিযান শিগগির: এরদোয়ান
সিরিয়ায় নতুন সামরিক অভিযান শিগগির: এরদোয়ান