X
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
১০ আষাঢ় ১৪৩১

গাজায় যুদ্ধবিরতি ইস্যুতে মধ্যস্থতা না করার হুমকি মিসরের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২৩ মে ২০২৪, ১৩:০৩আপডেট : ২৩ মে ২০২৪, ১৩:০৩

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় যুদ্ধবিরতি বিষয়ক আলোচনায় মধ্যস্থতাকারী দেশ হিসেবে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করার হুমকি দিয়েছে মিসর। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন-এর একটি প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় বুধবার (২২ মে) এই হুমকি দিয়েছে দেশটি। মিসরীয় গোয়েন্দারা সাম্প্রতিক যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবের শর্তাবলি পরিবর্তন এবং একটি চুক্তি বাতিল করেছে এমন অভিযোগ এনেছিল সিএনএন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে মিসরের স্টেট ইনফরমেশন সার্ভিসের প্রধান দিয়া রাশওয়ান বলেছেন, ‘মিসরের মধ্যস্থতা প্রচেষ্টায় সন্দেহ প্রকাশ এবং তা বিধ্বস্ত করার প্রচেষ্টা গাজা ও এই অঞ্চলের সামগ্রিক পরিস্থিতিকে শুধু আরও জটিলতার দিকেই নিয়ে যাবে। এমনকি তা মিসরকে চলমান সংঘাতে মধ্যস্থতা করা থেকে সম্পূর্ণরূপে বিরত থাকতেও প্রভাবিত করতে পারে।’

আলোচনার সঙ্গে পরিচিত তিনটি সূত্রের বরাতে একটি প্রতিবেদনে মঙ্গলবার সিএনএন বলেছিল, গাজায় একটি যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবের শর্তাবলি পরিবর্তন করেছে মিসরীয় গোয়েন্দারা। মে মাসের শুরুতে ওই প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়েছিল ইসরায়েল।

সিএনএন এর তথ্যানুসারে, ৬ মে হামাস যে চুক্তিটি গ্রহণ করার ঘোষণা দিয়েছিল সেটি পর্যালোচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র এবং কাতারের মধ্যস্থতাকারীদের পাঠানো প্রস্তাবটি ছিল না। সেটি হামাসের কাছে পাঠানোর আগে মিসরীয় গোয়েন্দারা পরিবর্তন করেছিল। আর এ বিষয়টিই মার্কিন, ইসরায়েলি এবং কাতারি কর্মকর্তাদের মধ্যে ক্ষোভ ও বিদ্বেষের সৃষ্টি করে, যা পরবর্তীতে যুদ্ধবিরতির আলোচনায় অচলাবস্থা সৃষ্টি করেছিল।

মার্কিন মধ্যস্থতা প্রচেষ্টার নেতৃত্ব দিচ্ছে সিআইএ। এ বিষয়ে সংস্থাটির কাছে জানতে চাওয়া হলে কোনও প্রকার মন্তব্য করতে অস্বীকার করে কর্তৃপক্ষ।

ওই বিবৃতিতে রাশওয়ান বলেছেন, ইসরায়েল এবং যুক্তরাষ্ট্রের ‘বারবার অনুরোধ এবং জেদ’ এর কারণে গাজায় যুদ্ধবিরতি আলোচনায় মধ্যস্থতাকারী দেশ হিসেবে অংশগ্রহণ করে কায়রো।

তিনি অভিযোগ করে বলেছেন, কিছু ‘পক্ষ’ সম্প্রতি মিসরীয় এবং কাতারি মধ্যস্থতাকারীদের দোষারোপ করেছে এবং তাদের পক্ষপাতদুষ্ট বলে অভিযুক্তও করেছে।

মিসর থেকে সীমান্তের ঠিক ওপারে গাজা উপত্যকার দক্ষিণে রাফাহ শহর। সেখানে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর অভিযানকে কেন্দ্র করে মিসর ও ইসরায়েলের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে।

৭ অক্টোবর থেকে ইসরায়েল এবং হামাসের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকেই উদ্বেগে রয়েছে মিসর। কেননা, দেশটি আশঙ্কা করছে, ইসরায়েলি অভিযানের কারণে ফিলিস্তিনিরা সীমান্ত পেরিয়ে মিসরে চলে আসতে পারে। তাই সেখানে নিরাপত্তা জোরদার করেছে দেশটি।

/এএকে/
সম্পর্কিত
ক্রিমিয়ায় ইউক্রেনীয় হামলা: মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব রাশিয়ার
দক্ষিণ কোরিয়ায় ব্যাটারি কারখানায় বিস্ফোরণে ১৬ জন নিহত
বোয়িংয়ের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগের সুপারিশ
সর্বশেষ খবর
ভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন মঙ্গলবার
ভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন মঙ্গলবার
পল্লবীতে শাহিন হত্যা: ৩ বছরেও শুরু হয়নি মামলার বিচার
পল্লবীতে শাহিন হত্যা: ৩ বছরেও শুরু হয়নি মামলার বিচার
ইউজিসিকে ছয় দফা সুপারিশ মহিলা পরিষদের
ইউজিসিকে ছয় দফা সুপারিশ মহিলা পরিষদের
নৈতিকতা শিক্ষাদান: ভিন্ন পদ্ধতির সন্ধানে
নৈতিকতা শিক্ষাদান: ভিন্ন পদ্ধতির সন্ধানে
সর্বাধিক পঠিত
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
৭৭ বছর পর ট্রেন যাবে কলকাতায়, রাজশাহীতে উচ্ছ্বাস
৭৭ বছর পর ট্রেন যাবে কলকাতায়, রাজশাহীতে উচ্ছ্বাস
কাঁঠালের বিচি খাওয়ার ১০ উপকারিতা
কাঁঠালের বিচি খাওয়ার ১০ উপকারিতা