জাপানে ঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৭

জাপানে ঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৭

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:২৬, অক্টোবর ১৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৩২, অক্টোবর ১৫, ২০১৯

জাপানে শনিবারের শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হাগিবিসের আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৭ জনে দাঁড়িয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন আরও ১৫ জন। আহতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে। ঝড়ের তিন দিন পর এখনও বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে হাজার হাজার ঘরবাড়ি। জাপানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যমের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।
নিখোঁজ ব্যক্তিদের খোঁজে কাদামাটি ও ধ্বংসযজ্ঞের মধ্যে উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে উদ্ধারকর্মীরা। পুরো উদ্ধার অভিযানে অংশ নেওয়া মানুষের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় শক্তিশালী টাইফুনটি হনশু দ্বীপের উপকূল দিয়ে জাপানের স্থলভাগের দিকে উঠে আসে। ঘণ্টায় ২২৫ কিলোমিটার গতি নিয়ে পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলের দিকে এগিয়ে যায় ঘূর্ণিঝড়টি। ক্যাটাগরি-৩ মাত্রার শক্তিশালী টাইফুন হাগিবিসের তাণ্ডবের পর রবিবার বন্যায় আটকেপড়া মানুষদের উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে সেনাবাহিনী।

বিগত ১০ বছরে জাপানে এত শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানেনি। দেশটিতে চলমান রাগবি বিশ্বকাপের তিনটি ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। তবে জাপান ও স্কটল্যান্ডের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি বাতিল করা হয়নি। ম্যাচটিতে ২৮-২১ গোলে জয় পায় জাপান। একইসঙ্গে প্রথমবারের মতো উঠে যায় বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে। দারুণ এই জয়টি ঘূর্ণিঝড়ে হতাহতদের প্রতি উৎসর্গ করেছে জাপান দল। জাতীয় দলের কোচ জেমি জোসেফ বলেন, যারা ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে বিধ্বস্ত, এই জয় আপনাদের জন্য। এটি আমাদের কাছে খেলার চেয়ে বেশি কিছু।

ঘূর্ণিঝড়ের সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসে আক্রান্তদের সহায়তায় হাজার হাজার পুলিশ, দমকলকর্মী, কোস্টগার্ড ও সেনাসদস্য কাজ করছে। দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, উদ্ধারকর্মীরা বন্যায় গৃহহীনদের বেশি গুরুত্ব দিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

গত মাসে জাপানে আঘাত হানে আরেকটি শক্তিশালী টাইফুন ফাক্সাই। ওই ঝড়ের কারণে রাজধানী ও আশেপাশের এলাকায় বিঘ্নিত হয় পরিবহন চলাচল। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ব্যাপক এলাকা। ওই ঝড়ের ক্ষত কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই নতুন ঝড়ের কবলে পড়লো জাপান।

/এমপি/

লাইভ

টপ