অবশেষে বাণিজ্য চুক্তিতে সম্মত চীন-যুক্তরাষ্ট্র

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০২:২৬, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:০৭, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯

অবশেষে চীনের সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তিতে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) চীন জানিয়েছে, ওয়াশিংটন প্রথম দফা চুক্তিতে সম্মত হওয়ায় ধীরে ধীরে শুল্ক কমিয়ে আনা হবে। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এক টুইটার বার্তায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং বাণিজ্য প্রতিনিধিদের এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। বিশ্বের প্রধান দুই অর্থনৈতিক পরাশক্তির মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধের ফলস্বরূপ ব্যবসা-বাজারসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রভাব পড়েছিল। এখন এই চুক্তির ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে স্বস্তি ফিরবে বলে আশা বিশেষজ্ঞদের। 

চীনের সঙ্গে বিপুল বাণিজ্য ঘাটতি কমিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে গত বছর থেকে বেইজিংয়ের রফতানি পণ্যের ওপর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ শুরু করে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে বেইজিংও মার্কিন পণ্যের ওপর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ শুরু করে। এই বাণিজ্য যুদ্ধ নিরসনে চলতি বছরের মে মাসে ওয়াশিংটন-বেইজিং আলোচনায় বসলেও কোনও চুক্তি ছাড়াই তা শেষ হয়। পরে গত ১১ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আশা প্রকাশ করেন, অচিরেই দুই দেশের মধ্যে প্রথম পর্যায়ের চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে।

শুক্রবার চীনের উপ-বাণিজ্যমন্ত্রী ওয়াং শোউয়েন সাংবাদিকদেরকে জানিয়েছেন, ‘আমাদের দুই দেশের প্রথম দফার বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক চুক্তি নিয়ে ঐকমত্য হয়েছে। এর ফলে আর অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ করা হবে না। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এর পরিমাণ কমবে।’

শুক্রবার এক টুইট বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প লিখেছেন, ‘চীনের সঙ্গে আমরা একটি প্রথম পর্যায়ের বাণিজ্য চুক্তিতে সম্মত হয়েছি। চীনের কর্মকর্তারা কাঠামোগত অনেক বিষয়ে সম্মত হয়েছেন। একই সঙ্গে কৃষিপণ্য, জ্বালানি, শিল্পপণ্যসহ বিপুল পরিমাণে পণ্য ক্রয়ে সম্মত হয়েছেন তারা।’ ১৫ ডিসেম্বর থেকে এটি কার্যকর হবে বলেও তিনি তার টুইটে উল্লেখ করেন।

ট্রাম্প জানিয়েছেন, ‘চলতি সপ্তাহের শেষেই যে শুল্ক বসানোর কথা ছিলো, এর (চুক্তি) ফলে সেই নতুন আমদানি শুল্ক আর বসাচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্র।’ তবে আগে থেকে চীনা পণ্যের ওপরে যে শুল্ক বসানো আছে, তা কমানো হবে না। টুইট করে ট্রাম্প বলেন, চুক্তি হয়েছে বলে শুল্কের আগের হার পরিবর্তিত হবে না।

মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধিদের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চুক্তির আওতায় প্রযুক্তি স্থানান্তর, মেধাস্বত্ব, কৃষি, আর্থিক সেবা, মুদ্রা, আন্তর্জাতিক মুদ্রা বিনিময়সহ অনেক বিষয় এর অন্তর্ভুক্ত। প্রথম পর্যায়ের চুক্তি অনুযায়ী চীন থেকে ২৫ হাজার কোটি ডলার মূল্যের পণ্য আমদানিতে আগের মতোই ২৫ শতাংশ হারে শুল্ক নেবে যুক্তরাষ্ট্র। তবে ১২ হাজার কোটি ডলার পণ্য আমদানিতে শুল্কের পরিমাণ কমিয়ে সাড়ে ৭ শতাংশ করা হবে।

শুক্রবার ওয়াং বলেছেন, এই চুক্তি দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য সহযোগিতা সম্প্রসারণে এবং বাণিজ্য বিরোধ নিষ্পত্তিতে সহায়তা করতে পারে। 

/এইচকে/বিএ/

লাইভ

টপ