মোদির সঙ্গে ট্রাম্পের কোনও কথা হয়নি: ভারত

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৬:৫১, মে ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫৫, মে ২৯, ২০২০

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দাবি, দিল্লি-বেইজিং উত্তেজনা নিয়ে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তার ফোনালাপ হয়েছে। তবে ভারতের দাবি, দুই নেতার মধ্যে এ নিয়ে কোনও কথা হয়নি। ভারতের সরকারি সূত্রের বরাতে জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, তাদের মধ্যে শেষ কথা হয়েছে গত এপ্রিলে।

ভারত ও চীন সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত রয়েছে। বুধবার চলমান উত্তেজনা নিরসনে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়ে টুইট করেছিলেন ট্রাম্প। এর প্রতিক্রিয়ায় ভারত ও চীনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তারা নিজেরাই উত্তেজনা নিরসনে আলোচনার পদক্ষেপ নিয়েছে। বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে ভারতীয় সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প দাবি করেন, ‘আমি আপনাদের একটা কথা বলতে পারি। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে আমি কথা বলেছিলাম। চীনের সঙ্গে যা হচ্ছে, তাতে তার মন-মেজাজ ভালো নেই।’

তবে ট্রাম্পের দাবি নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। ভারতের সরকারি সূত্রের বরাতে ডয়চে ভেলে জানিয়েছে, নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ট্রাম্প শেষবার কথা বলেন গত ৪ এপ্রিল। সেদিন তিনি মোদিকে ফোন করে করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্য ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন চেয়েছিলেন। এরপরে তাদের মধ্যে আর কোনও কথা হয়নি।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে জানিয়ে দিয়েছে উত্তেজনা নিরসনে কূটনৈতিক পর্যায়ে আলোচনা শুরু করেছে দিল্লি। সেনাবাহিনী পর্যায়েও আলোচনা চলছে। এখানে যুক্তরাষ্ট্র বা তৃতীয় পক্ষের কোনও ভূমিকা থাকতে পারে না।   

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এনিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য না করলেও দেশটির সরকারি সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস-এ প্রকাশিত একটি নিবন্ধে বলা হয়েছে, ‘ভারত ও চীন নিজেদের সর্বশেষ বিরোধ দ্বিপাক্ষিক স্তরে মিটিয়ে নিতে পারবে। দুই দেশকেই যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। কারণ, যুক্তরাষ্ট্র সবসময় আঞ্চলিক শান্তিপ্রয়াসকে বিঘ্নিত করে এবং পরিস্থিতির সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করে।’

/জেজে/বিএ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ