ট্রাম্পের লাগাম টানতে ফেসবুকের প্রতি আহ্বান শতাধিক বিজ্ঞানীর

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৩:৩৯, জুন ০৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৪৪, জুন ০৭, ২০২০

সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘বিভ্রান্তিকর তথ্য এবং উত্তেজনাপূর্ণ বক্তব্য ছড়ানোর’ ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছেন ১৪০ জনেরও বেশি বিজ্ঞানী। ট্রাম্পকে এমন বিষয়বস্তু ছড়ানোর সুযোগ করে না দিতে ফেসবুকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তারা। আর এমন আহ্বান জানানো এই বিজ্ঞানীরা ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গের তহবিলপুষ্ট।

এই বিজ্ঞানীদের মধ্যে ৬০ জনেরও বেশি যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষস্থানীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অধ্যাপনার সঙ্গে যুক্ত। তাদের মধ্যে একজন নোবেল বিজয়ী অধ্যাপকও রয়েছেন। শনিবার মার্ক জাকারবার্গকে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন তারা।

চিঠিতে বিশেষ করে জাতিগত বিদ্বেষকে ঘিরে বিদ্যমান টালমাটাল পরিস্থিতিতে ট্রাম্পের ‘বিভ্রান্তিকর তথ্য এবং উত্তেজনাপূর্ণ ভাষা’ যা জনসাধারণের জন্য ক্ষতিকর সেগুলো বিবেচনায় নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

চিঠিটিতে ‘ইচ্ছাকৃতভাবে ভুল তথ্য ও বিভাজনমূলক ভাষা’ ছড়িয়ে দেওয়ার বিষয়টিকে গবেষকদের রোগ প্রতিরোধ ও নির্মূলে প্রযুক্তির ব্যবহার এবং ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থার সংস্কারের লক্ষ্যগুলোর পরিপন্থী হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

এই চিঠি দেওয়ার উদ্যোগের সঙ্গে জড়িতদের একজন হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের দেবোরা মার্কস। তিনি বলেন, তাদের মিশন ফেসবুকের কয়েকটি অবস্থানের বিরুদ্ধে। তাই চিঠিতে তাদের সত্যের পক্ষে এবং ইতিহাসের সঠিক বাঁকে থাকতে উৎসাহিত করা হয়েছে।

চিঠিতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে সান ফ্রান্সিসকোর ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির মার্টিন ক্যাম্পম্যান এবং উটাহ ইউনিভার্সিটির জেসন শেফার্ড-ও রয়েছেন।

এই বিজ্ঞানীরা সবাই চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ প্রোগ্রামের অনুদানপ্রাপ্ত। এই প্রোগ্রামের আওতায় আলঝাইমার এবং পার্কিনসন রোগসহ নিউরো ডিজেনারেটিভ ব্যাধি প্রতিরোধ, নিরাময় এবং চিকিৎসার জন্য কাজ করা হয়।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, তাদের পাঠানো ওই চিঠিতে ১৬০টিরও বেশি স্বাক্ষর রয়েছে। উটাহ ইউনিভার্সিটির জেসন শেফার্ড জানান, এতে স্বাক্ষরকারীদের প্রায় ১০ শতাংশই জাকারবার্গ দম্পতি কর্তৃক পরিচালিত ফাউন্ডেশনের কর্মী। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।

/এমপি/

লাইভ

টপ