এরদোয়ানের পক্ষে দাঁড়ালো রাশিয়া

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৯:৩০, জুলাই ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:০৪, জুলাই ১৪, ২০২০

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেফ তাইয়্যেব এরদোয়ান সেখানকার বিখ্যাত হায়া সোফিয়া জাদুঘরকে মসজিদে রূপান্তর করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তার পক্ষেই অবস্থান নিয়েছে রাশিয়া। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা এই সিদ্ধান্তের নিন্দা জানালেও ক্রেমলিন একে দেখছে তুরস্কের অভ্যন্তরীণ বিষয় হিসেবে।

তুরস্কের সুপ্রিম কোর্টের এক রায়ের সূত্র ধরে এরদোয়ান গত ১০ জুলাই (শুক্রবার) হায়া সোফিয়া জাদুঘরকে মসজিদ হিসেবে ঘোষণা করেন। তুর্কি জনগণের একটা বড় অংশ এরদোয়ানের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানালেও পশ্চিমা দেশগুলো এর তীব্র বিরোধিতা করছে। তবে রাশিয়ার অবস্থান ভিন্ন।

সোমবার স্পুটনিক রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রুশ উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ভেরশিনিন বলেছেন, এটি সম্পূর্ণ তুরস্কের অভ্যন্তরীণ বিষয় এবং এতে বাইরের কোনও দেশের হস্তক্ষেপ কাম্য নয়। ভেরশিনিন আরও বলেন, বিষয়টি নিয়ে বিশ্বব্যাপী যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়েছে সে বিষয়ে সামগ্রিকভাবে জানার পর বলতে চাই, একটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা উচিত নয়।

প্রায় দেড় হাজার বছরের পুরনো হায়া সোফিয়া মুসলিম, খ্রিস্টান এবং বিদেশিদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে বলে জানিয়েছেন এরদোয়ান। এটি একসময় খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের উপাসনালয় হিসেবে ব্যবহৃত হতো। তিনি বলেছেন, হায়া সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরে তুরস্ক সার্বভৌম অধিকারের চর্চা করেছে।

/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ