শঙ্কিত মালালা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১১:৩১, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:২১, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

মেয়ে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নিয়ে নিজের শঙ্কার কথা জানিয়েছেন পাকিস্তানের নোবেলজয়ী শিক্ষা অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই। করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও বিশ্বের অন্তত দুই কোটি মেয়ে শিক্ষার্থী আর কখনও স্কুলে ফিরে যাবে না বলে মনে করছেন তিনি।

ভারতীয় বার্তা সংস্থা ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিস (আইএএনএস)-এর এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শুক্রবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের এক পার্শ্ব বৈঠকে এই শঙ্কার কথা জানিয়েছেন মালালা।

করোনা সংকট পরিস্থিতিতে অধিকাংশ আক্রান্ত দেশে স্কুল-কলেজসহ অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনও বন্ধ। অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে বিশ্বের ১৬০ কোটি শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন।

করোনা নারী শিক্ষার মতো বিশ্বের সামষ্টিক লক্ষ্যগুলো অর্জনে মারাত্মক আঘাত হেনেছে উল্লেখ করে মালালা বলেন, ‘মহামারি সংকট শেষ হলেও কেবল শিক্ষাক্ষেত্রে আরও দুই ‌কোটি মেয়ে ঝরে পড়বে। যাদের আর কখনও ফেরা হবে না স্কুলে। ইতোমধ্যে‌ গোটা বিশ্বে শিক্ষাক্ষেত্রে বরাদ্দের ঘাটতি ২০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে।‌’

মালালা বিশ্বনেতাদের কাছে প্রশ্ন রাখেন, ‌‘‌১২ বছর বয়সী প্রত্যেক শিশুকে সমান শিক্ষা প্রদানে আর কবে প্রয়োজনীয় তহবিল বরাদ্দের প্রতিশ্রুতি দেবেন?’‌‌

গত মাসে প্রকাশিত জাতিসংঘের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী করোনা ১৯০ দেশের ১৬০ কোটি শিক্ষার্থীকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে; এমন এর আগে কখনও হয়নি। এই সংকটে যে ৯৪ শতাংশ শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত, তাদের ৯৯ শতাংশ নিম্ন এবং নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশের।

/বিএ/এমএমজে/

লাইভ

টপ
X