তুর্কি পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিতে যাচ্ছে সৌদি আরব‌

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:৪৬, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১২, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

সৌদি আরব আনুষ্ঠানিকভাবে তুরস্কের পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিতে যাচ্ছে। গত কয়েক মাস ধরে ‘অঘোষিতভাবে’ সৌদি ব্যবসায়ীদের ওপর তুর্কি পণ্য বর্জনের ব্যাপারে চাপ সৃষ্টির পর এখন আনুষ্ঠানিকভাবে এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে রিয়াদ। তুরস্কের সংবাদমাধ্যম জমহুরিয়াত এ ঘটনাকে ‘গোপন অবরোধ’ বলে মন্তব্য করেছে। ইরানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম প্রেস টিভি এ খবর জানিয়েছে।

তুরস্কের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের এই নিষেধাজ্ঞা সংকটাপন্ন তুর্কি অর্থনীতির জন্য সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াবে। তুরস্কের একজন ব্যবসায়ীর উদ্ধৃতি দিয়ে জমহুরিয়াত পত্রিকার প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, সৌদি ব্যবসায়ীরা বলছেন আমরা তুর্কি পণ্যে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছিলাম। আমাদের ক্রেতারা তুর্কি পণ্যে সন্তুষ্ট। অথচ এখন কোনোমতেই তারা আর তুরস্কের পণ্য কিনতে পারবেন না। সে ক্ষেত্রে আপনারা তৃতীয় কোনও দেশে এসব পণ্য পাঠিয়ে দিন।

জুলাই মাসে মিডলইস্ট আই এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছিল, তুরস্ক থেকে তাজা ফলমূল এবং শাকসবজি বহন করা ট্রাকগুলোকে সীমান্ত পার হতে বাধা দিয়েছে সৌদি আরব।

তুরস্কের দুনিয়া পত্রিকা জানিয়েছে, সৌদি সরকারি কর্মকর্তারা স্থানীয় ব্যবসায়ীদের তুরস্কের সঙ্গে বাণিজ্যিক লেনদেন বন্ধ করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

জমহুরিয়াত পত্রিকা জানায়, সৌদি আরব সরকারিভাবে এই পণ্য বর্জনের ঘোষণা দিতে পারে না বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নিষেধাজ্ঞার কারণে। যদিও এই সপ্তাহে বর্জনের ঘোষণা দিতে রিয়াদের পক্ষ থেকে চাপ রয়েছে। তবে সৌদি আরব সরকারিভাবে এই ঘোষণা দিলে তুরস্ক বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার কাছে ক্ষতিপূরণের জন্য অভিযোগ দাখিল করবে।

এর আগে তুরস্কের নাগরিকদের জন্য উচ্চ পদমর্যাদার কর্মসংস্থান চুক্তিও বাতিল করেছে বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে।

/এএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ
X