নতুন বিউটি ট্রেন্ড ‘স্কিন ফাস্টিং’

Send
মেহনাজ বিনতে ওয়াহিদ
প্রকাশিত : ১৯:৪০, জানুয়ারি ২৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪২, জানুয়ারি ২৯, ২০২০

প্রতিদিন বাইরে বের হওয়ার আগে ত্বকে মেকআপের প্রলেপ, নিদেনপক্ষে ফেস পাউডার অথবা লিপস্টিক-কাজল। দিনের পর দিন মেকআপের ভারে ক্লান্ত ত্বকেরও কিন্তু প্রয়োজন কিছুদিনের বিরতি। একে বলে স্কিন ফাস্টিং। ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে নতুন বিউটি ট্রেন্ড হিসেবে এরই মধ্যে বেশ আলোচনায় এসেছে এটি। জেনে নিন কীভাবে করবেন স্কিন ফাস্টিং।


বিয়ের মৌসুম চলছে। দিনের পর দিন অনুষ্ঠান, পার্টি এগুলো তো লেগেই আছে। ভারি মেকআপের পর ত্বকের প্রয়োজন কিছুদিনের বিশ্রাম। এই বিশ্রামের ফলে ত্বকের পুরনো জেল্লা আবার ফিরে আসে। তাই কয়েক দিনের জন্য মেকআপ আর বিউটি প্রোডাক্টকে ছুটি দিয়ে দিন। রূপ বিশেষজ্ঞদের মতে, সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন মেকআপ না করলে বা হালকা মেকআপ করলে ত্বক আরও তরুণ ও প্রাণবন্ত দেখায়। প্রতিদিন ভারি মেকআপ ব্যবহার করলে ত্বকের কোলাজেন ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে ত্বকের ইলাস্টিসিটি কমে যায়। ফলে ত্বক বুড়িয়ে যায় দ্রুত। আবার মেকআপে থাকা কেমিকাল ও প্রিজারভেটিভের ফলে ত্বকে অ্যালার্জিও দেখা দিতে পারে। ত্বকের লোমকূপ বন্ধ করে দেয় মেকআপ প্রোডাক্টে থাকা নানা রাসায়নিক। সপ্তাহে দুই দিন মেকআপ কম করলে ত্বকে নতুন কোষ জন্মায়। ডিটক্সিফিকেশনের মূল উপায় এটাই। এছাড়া বছরে দুইবার টানা তিন সপ্তাহ করে ফাস্টিং করুন। মানে এসময় ত্বকে কোনও ধরনের প্রসাধনী ছোঁয়াবেন না। এই কয়দিন শুধু এসেনশিয়াল কয়েকটি জিনিস ব্যবহার করতে পারেন। যেমন ক্লিনজার, ময়েসচারাইজার ও সানস্ক্রিন। এই কয়েক দিন ত্বকের ডিটক্সিফিকেশনের জন্য ফেসমাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া বারবার মুখ ধুলেও থাকতে পারবেন তরতাজা।

/এনএ/

লাইভ

টপ