X
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২
১৬ আশ্বিন ১৪২৯

‘সরকারি চাকরি (সংশোধন) আইন, ২০১৮’ পুরোপুরি অনুমোদন হয়নি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৬ জুলাই ২০২১, ১৭:৩৪আপডেট : ২৬ জুলাই ২০২১, ১৭:৩৪

অবসরে গিয়ে সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীরা বড় কোনও অপরাধ করলে তার পেনশন আটকে দেওয়া হবে— এমন বিধান রয়েছে বর্তমান সরকারি চাকরি আইন ২০১৮ তে। এর সংশোধন চেয়ে নতুন করে মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করা হয়েছিল ‘সরকারি চাকরি (সংশোধন) আইন, ২০১৮’। কিন্তু মন্ত্রিসভা বৈঠকে সেটি অনুমোদন করা হয়নি। এর মধ্য দিয়ে আগের মতোই যে কোনও সরকারি কর্মচারী অবসরে গিয়ে বড় কোনও অপরাধ করলে তার পেনশন আটকে যাবেই— এমন বিধানই বহাল থাকল।

কাজেই বিদ্যমান সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮ অনুযায়ী অবসরে গিয়ে সরকারি কোনও কর্মচারী গুরুতর অপরাধ করলে সরকার তার অবসর সুবিধা (পেনশন) সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে বাতিল, স্থগিত বা প্রত্যাহার করতে পারবে।

সোমবার (২৬ জুলাই) মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠকে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী ও সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা যোগ দেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, ‘সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮’ সংশোধন করে এ বিধান বাতিলের প্রস্তাব আনা হয়েছিল। কিন্তু মন্ত্রিসভা তা অনুমোদন দেয়নি।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮-এর কয়েকটি ধারা সংশোধনের প্রস্তাব আনা হয়েছিল। আইনের ৫১ (৪) ধারায় বলা হয়েছে- ‘অবসর সুবিধাভোগী কোনও ব্যক্তি গুরুতর অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত বা কোনও গুরুতর অসদাচরণে দোষে দোষী সাব্যস্ত হইলে, কারণ দর্শাইবার যুক্তিসঙ্গত সুযোগ প্রদান করিয়া, সরকার বা নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ, তাহার অবসর সুবিধা সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে বাতিল, স্থগিত বা প্রত্যাহার করিতে পারিবে।’ এই ধারাটি বাতিলের প্রস্তাব করা হয়েছিল। ক্যাবিনেট সেটা অ্যাগ্রি করেনি। ক্যাবিনেট আগেরটিই বহাল রেখেছে।

তিনি বলেন, ‘প্রস্তাব ছিল যে রিটায়ার্ড করবে তার যাতে পেনশন থেকে কোনও টাকা কাটা না হয়। মন্ত্রিসভা এটা অনুমোদন দেয়নি। আগে যেটা ছিল সেটাই রেখে দিয়েছে।’

‘আরেকটি সংশোধন আনা হয়েছিল, আইনে আছে- পিআরএলে যাওয়া ব্যক্তিদের অন্য কোথাও চাকরি করা কিংবা বিদেশে যাওয়ার জন্য সরকারের অনুমোদনের প্রয়োজন নেই। প্রস্তাব আনা হয়েছিল এক্ষেত্রে সরকারের অনুমোদন লাগবে। এটাও ক্যাবিনেট অ্যাগ্রি করেনি। আগে যেটা ছিল সেটাই থাকবে’ —বলেন তিনি।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, আগের আইনে কিছু করণিক ভুল ছিল সংশোধিত আইনে সেগুলো ঠিক করে দেওয়া হয়েছে।

/এসআই/এমআর/
সম্পর্কিত
অফিস সময় আপাতত পরিবর্তন হচ্ছে না
অফিস সময় আপাতত পরিবর্তন হচ্ছে না
সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ঢাকায় আরও তিনটি ১৪ তলা ভবন
সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ঢাকায় আরও তিনটি ১৪ তলা ভবন
সরকারি কর্মচারী গ্রেফতারে অনুমতি প্রশ্নে রুলের রায় বৃহস্পতিবার
সরকারি কর্মচারী গ্রেফতারে অনুমতি প্রশ্নে রুলের রায় বৃহস্পতিবার
দাফতরিক কাজে সরকারি ই-মেইল ব্যবহার বাধ্যতামূলক
দাফতরিক কাজে সরকারি ই-মেইল ব্যবহার বাধ্যতামূলক
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
যতদিন তোরা আছিস, ততদিন আমি আছি: জেমস
শুভ জন্মদিনযতদিন তোরা আছিস, ততদিন আমি আছি: জেমস
পদ্মা সেতুর আদলে সেজেছে পূজামণ্ডপ 
পদ্মা সেতুর আদলে সেজেছে পূজামণ্ডপ 
শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে চোরচক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার
শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে চোরচক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার
‘মানবাধিকারকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্র’
‘মানবাধিকারকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্র’
এ বিভাগের সর্বশেষ
অফিস সময় আপাতত পরিবর্তন হচ্ছে না
অফিস সময় আপাতত পরিবর্তন হচ্ছে না
সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ঢাকায় আরও তিনটি ১৪ তলা ভবন
সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ঢাকায় আরও তিনটি ১৪ তলা ভবন
সরকারি কর্মচারী গ্রেফতারে অনুমতি প্রশ্নে রুলের রায় বৃহস্পতিবার
সরকারি কর্মচারী গ্রেফতারে অনুমতি প্রশ্নে রুলের রায় বৃহস্পতিবার
দাফতরিক কাজে সরকারি ই-মেইল ব্যবহার বাধ্যতামূলক
দাফতরিক কাজে সরকারি ই-মেইল ব্যবহার বাধ্যতামূলক
সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশযাত্রা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট
সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশযাত্রা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট