X
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪
৩০ চৈত্র ১৪৩০

চলতি অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পাস

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৬ জুন ২০২৩, ২০:৩৯আপডেট : ০৬ জুন ২০২৩, ২০:৪০

চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য ১৭ হাজার ২৯৯ কোটি ৪৮ লাখ ৩৫ হাজার টাকার সম্পূরক বাজেট জাতীয় সংসদে পাস হয়েছে। সরকারের যেসব মন্ত্রণালয় বা বিভাগ তাদের মূল বরাদ্দ থেকে বেশি ব্যয় করেছে, তার অনুমোদন দিতেই এই বাজেট পাস হয়।

মঙ্গলবার (৬ জুন) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সংসদে ‘নির্দিষ্টকরণ (সম্পূরক) বিল-২০২৩’ উত্থাপন করেন। পরে বিলটি কণ্ঠভোটে পাস হয়।

আগামী ৩০ জুন শেষ হতে যাওয়া অর্থবছরের কার্যক্রম নির্বাহের জন্য সংযুক্ত তহবিল থেকে মঞ্জুর করা অর্থের বেশি বরাদ্দ ও নির্দিষ্টকরণের কর্তৃত্ব প্রদানের জন্য এ সম্পূরক বিল আনা হয়।

বিদায়ী অর্থবছরের মূল বাজেটে ৬২টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের অনুকূলে ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল।

সংশোধিত বাজেটে ২২টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বরাদ্দ এক লাখ এক হাজার ২৫৪ কোটি ৩১ লাখ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ৪০টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বরাদ্দ ৪২ হাজার ৩২৪ কোটি ৪৯ লাখ টাকা হ্রাস পেয়েছে।

সার্বিকভাবে ১৭ হাজার ৫৫৭ কোটি টাকা কমে সংশোধিত বরাদ্দ নিট দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৬০ হাজার ৫০৭ কোটি টাকা।

সম্পূরক বাজেটে কৃষি মন্ত্রণালয় সর্বোচ্চ ৯ হাজার ৫৮৫ কোটি ৪১ লাখ ৫৭ হাজার টাকা বরাদ্দ পেয়েছে। আর সবচেয়ে কম ২৪ কোটি ৭৬ লাখ ৫২ হাজার টাকা বরাদ্দ পেয়েছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

সম্পূরক বাজেটে ২০টি দাবির বিপরীতে ১৬৩টি ছাঁটাই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ১০ জন সংসদ সদস্য ছাঁটাই প্রস্তাব দিয়েছেন।

তারা হলেন জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমাম, শামীম হায়দার পাটোয়ারী, মুজিবুল হক, বেগম রওশন আরা মান্নান, পীর ফজলুর রহমান, কাজী ফিরোজ রশীদ, হাফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, মো. রুস্তম আলী ফরাজী, গণফোরামের মোকাব্বির খান ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু।

২০টি দাবির মধ্যে ৩টির বিষয়ে আলোচনা হয়। সেগুলো হলো জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ, কৃষি ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

এর আগে সম্পূরক বাজেটের ওপর সরকারি ও বিরোধী দলের সদস্যরা আলোচনা করেন।

গত ১ জুন আসন্ন ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট পেশের সময় চলতি (২০২২-২৩) অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটও পেশ করা হয়।

/ইএইচএস/এনএআর/
সম্পর্কিত
সংরক্ষিত আসনের ১৬ শতাংশ এমপির পেশা রাজনীতি
বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় সংসদীয় কূটনীতিকে কাজে লাগাতে হবে: স্পিকার
কোথাও কোথাও নির্বাচনের ফলাফল পূর্বনির্ধারিত ছিল: সংসদে জিএম কাদের
সর্বশেষ খবর
ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন ভ্রমণে কানাডার সতর্কতা
ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন ভ্রমণে কানাডার সতর্কতা
যশোরে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা
যশোরে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা
ইউরোপে বৈধ পথে শ্রমিক পাঠানো সহজ হবে
ইউরোপে বৈধ পথে শ্রমিক পাঠানো সহজ হবে
লুটনকে উড়িয়ে দিলো ম্যানসিটি
লুটনকে উড়িয়ে দিলো ম্যানসিটি
সর্বাধিক পঠিত
ঈদের তৃতীয় দিন: দেখতে পারেন যেসব নাটক
ঈদের তৃতীয় দিন: দেখতে পারেন যেসব নাটক
বাংলাদেশে বিমান মেরামতের কারখানা করতে চায় কানাডিয়ান কোম্পানি
বাংলাদেশে বিমান মেরামতের কারখানা করতে চায় কানাডিয়ান কোম্পানি
ভরা মৌসুমে অস্থির কেন পেঁয়াজের বাজার?
ভরা মৌসুমে অস্থির কেন পেঁয়াজের বাজার?
ইসরায়েল থেকে ফ্লাইট আসার ব্যাখ্যা দিলো বেবিচক
ইসরায়েল থেকে ফ্লাইট আসার ব্যাখ্যা দিলো বেবিচক
হুন্ডি প্রতিরোধে কী করছে সরকার?
হুন্ডি প্রতিরোধে কী করছে সরকার?