X
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
টিআইবির গবেষণা

দায়িত্ব পালনে নারী ইউএনওদের চাপে রাখেন স্থানীয় চেয়ারম্যান-সাংবাদিকও

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৪ নভেম্বর ২০২১, ১৭:৪৭আপডেট : ০৪ নভেম্বর ২০২১, ১৭:৪৭

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের পাশাপাশি উপজেলাকে দুর্নীতিমুক্ত রাখতে দায়িত্ব পালনে সাংবাদিকদের কাছ থেকেও চাপে থাকার কথা জানিয়েছেন দেশের নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা (ইউএনও)।

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) আয়োজিত এক গবেষণাপত্রে এ তথ্য ওঠে এসেছে। টিআইবি ‘স্থানীয় পর্যায়ে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় উপজেলা নারী নির্বাহী কর্মকর্তার চ্যালেঞ্জ এবং করণীয়’ শীর্ষক গবেষণাটি করে।

টিআইবির পরিচালক শেখ মঞ্জুর ই আলমের সভাপতিত্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন নাহিদ শারমীন।

গত বছরের জুন থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত ১৪৯ জন নারী ইউএনও’র ওপর জরিপ পরিচালনার উদ্যোগ নেয় টিআইবি। শেষ পর্যন্ত এই জরিপে ৪৫ জন নারী ইউএনও অংশ নেন।

তাদের মতামতের ভিত্তিতে টিআইবির গবেষণাপত্রে দেখা যায়, উপজেলার বিভিন্ন দায়িত্ব পালনে চ্যালেঞ্জের সামনে পড়া ব্যক্তিদের তালিকায় সবচেয়ে ওপরে রয়েছে উপজেলা চেয়ারম্যান এবং স্থানীয় সাংবাদিকদের নাম। উভয়ই ৫৯ দশমিক ৫০ ভাগ কাজে হস্তক্ষেপ করেন। এই তালিকায় এরপরেই রয়েছে স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) এবং স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নাম। তারাও ৫০ ভাগ ক্ষেত্রে নারী ইউএনওদের চাপে ফেলছেন। এরপর স্থানীয় রাজনীতিবিদ ৪৭ দশমিক ৬০ শতাংশ, সরকারি অন্যান্য কর্মকর্তা ৪০ দশমিক ৫০ শতাংশ, জেলা প্রশাসক ৩৮ দশমিক ১০ শতাংশ, সাধারণ জনগণ ২৮ দশমিক ৬০ শতাংশ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ৪ দশমিক ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জে ফেলছে।

নারী ইউএনওরা বলছেন, ত্রাণ সামগ্রী বিতরণে অনিয়ম করার জন্য ৩৪ ভাগ চাপ আসে। ব্যয়ের যথার্থতা যাচাই না করার জন্য ৩১ দশমিক ৪০ ভাগ, ভুয়া ব্যয়ের বিল দিতে বাধ্য করা ২৮ দশমিক ৬০, ক্রয় সংক্রান্ত কাজে অনিয়ম করার জন্য ২৫ দশমিক ৭০, সহকর্মীদের থেকে অসহযোগিতা ২৩ দশমিক ৫৪, অতিরিক্ত ত্রাণের জন্য সুপারিশ করতে বাধ্য করতে ২০ ভাগ চাপ আসে।

গবেষণার সময় একজন নারী ইউএনও নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘তাদের (জনপ্রতিনিধি) পছন্দ মতো প্রকল্প না দিলে কাজ হবে না। তাদের পছন্দমতো ঠিকাদার না দিলে কাজ করা যাবে না।’

এসব ইউএনওরা বলেন, পাঁচ দশমিক ৭০ ভাগ ক্ষেত্রে তারা উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছ থেকে যৌন হয়রানিরও শিকার হচ্ছেন। এক্ষেত্রে কোনও প্রতিকারও পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকি কর্তব্য পালন করতে গেলে পেছন থেকে অনেকে অনেক ধরনের বাজে মন্তব্য করেন। যা রীতিমতো বিব্রতকর।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, আগের চেয়ে আমাদের প্রশাসনে নারীর অংশগ্রহণ অনেক বেড়েছে। এটি নারীর ক্ষমতায়নের একটি বড় উদাহরণ। আমরা এটি প্রশংসা করি৷ তবে তাদের নিরাপত্তা এবং সুষ্ঠুভাবে কাজের পরিবেশ তৈরি করাও একটি বড় কাজ৷ তারা যাদের সঙ্গে কাজ করছেন তাদের আরও সহনশীলতা দেখানো জরুরি বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, অনেক সময় নারী ইউএনওদের বিরুদ্ধে নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশ করা হয়, তাদেরকে হেয় করা হয়, চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি করা হয়। এইক্ষেত্রে উপজেলা চেয়ারম্যান এবং স্থানীয় সাংবাদিকরা অনেক সময় বাধার সৃষ্টির করেন। আমাদের বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার দিকে যেতে হবে।

নাহিদ শারমিন বলেন, প্রায় ৬০ ভাগ নারী ইউএনও সাংবাদিকের থেকে চ্যালেঞ্জের শিকার হোন। কোনও টেন্ডার হলে,  তা সংবাদিকদের পক্ষে না গেলে নেগেটিভ নিউজ করে। এতে ওই মহিলা ইউএনও চাপে পড়েন।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন টিআইবির উপদেষ্টা সুমাইয়া খায়ের।

গবেষণাপত্রে টিআইবি আটটি সুপারিশ করে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে‑ নারী ইউএনওদের প্রতি নেতিবাচক মনোভাব দূর করার জন্য উপজেলা পরিষদের জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা পরিষদের অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে নারীর প্রতি সংবেদনশীল আচরণের ওপর প্রশিক্ষণের আয়োজন করতে হবে। এছাড়া সরকারি কর্মকর্তাদের এসিআর এ জেন্ডার সংবেদনশীলতাকে একটি সূচক হিসেবে রাখা যেতে পারে।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাচিবিক সহায়তা প্রদান সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে ইউএনও এবং চেয়ারম্যানদেরকে নিয়ে ওরিয়েন্টেশনের আয়োজন

করতে হবে, যার মূল লক্ষ্য হবে- একে অন্যের প্রতিপক্ষ নয় বরং সহযোগী এটা অনুধাবন করা।

মন্ত্রণালয়ের নীতিগত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের রাজনীতিবিদদের স্থানীয় উন্নয়নমূলক কাজে চাপ প্রয়োগ বন্ধ করার জন্য পরিপত্র জারি করতে হবে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় নারী ইউএনওর সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ওপর নারী ইউএনওদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

নারী ইউএনওকে নিরাপত্তা ও সহযোগিতা প্রদান করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে তৎপর হতে হবে।

/এসএনএস/এমএস/
সম্পর্কিত
ক্ষমতাবানদের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশের আহ্বান টিআইবির
উপজেলা নির্বাচনটিআইবির ‘হলফনামা বিশ্লেষণ’ নিয়ে প্রশ্ন আ.লীগ নেতাদের
টিআইবির বিশ্লেষণদ্বিতীয় ধাপে ৭১ শতাংশ প্রার্থী ব্যবসায়ী, আয় বেড়েছে ৫৩৩৬ শতাংশ
সর্বশেষ খবর
ক্ষতবিক্ষত সুন্দরবন, ঠিক হতে লাগবে ৪০ বছর
ক্ষতবিক্ষত সুন্দরবন, ঠিক হতে লাগবে ৪০ বছর
দেশের ৮৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ শুরু
দেশের ৮৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ শুরু
টিভিতে আজকের খেলা (২৯ মে, ২০২৪)
টিভিতে আজকের খেলা (২৯ মে, ২০২৪)
কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এলো মৃত হরিণ
কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এলো মৃত হরিণ
সর্বাধিক পঠিত
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
আরেক পুলিশ কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
এবারও ধরাছোঁয়ার বাইরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটি
এবারও ধরাছোঁয়ার বাইরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটি
সাড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকায় ১১ প্রকল্পে অনুমোদন
সাড়ে ১৪ হাজার কোটি টাকায় ১১ প্রকল্পে অনুমোদন
যুদ্ধাপরাধের তদন্ত: আইসিসির প্রসিকিউটরকে হুমকি দিয়েছিলেন মোসাদ প্রধান
যুদ্ধাপরাধের তদন্ত: আইসিসির প্রসিকিউটরকে হুমকি দিয়েছিলেন মোসাদ প্রধান
পুলিশের সার্জেন্ট দম্পতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা
পুলিশের সার্জেন্ট দম্পতির বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা