X
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১২ ফাল্গুন ১৪৩০

সাজা পাওয়া সেই বিচারকের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৬:৩৭আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৬:৪৩

আদালত অবমাননার দায়ে হাইকোর্টে এক মাসের সাজাপ্রাপ্ত কুমিল্লার সাবেক চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (বর্তমানে আইন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত) মো. সোহেল রানা আপিল বিভাগে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। ক্ষমার আবেদনে তিনি বলেছেন, আমাকে ক্ষমা করে সাজা থেকে অব্যাহতি দিয়ে একজন ভালো বিচারক হওয়ার সুযোগ দিন।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন ৫ বিচারপতির আপিল বেঞ্চে এই আবেদনের শুনানি হয়েছে। শুনানি শেষে মো. সোহেল রানার সাজার রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের পরবর্তী শুনানির জন্য বুধবার (৬ নভেম্বর) দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আদালতে বিচারকের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী প্রবীর নিয়োগী ও শাহ মঞ্জুরুল হক। তাদের সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট রাফিউল ইসলাম ও ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ।

এর আগে গত ১২ অক্টোবর সকালে মো. সোহেল রানাকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন হাইকোর্ট। রায়ে সোহেল রানাকে সাত দিনের মধ্যে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়।

তখন আদালতে সোহেল রানার পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক। আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী প্রণয় কান্তি রায়।

পরে আইনজীবী শাহ মঞ্জরুল হক বলেন, একটি ফৌজদারি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। ৫৬১ (এ) ধারার ওই মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছিলেন আদালত। পরবর্তী সময়ে এ আদেশের কপি কুমিল্লার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানার কাছে যায়। তিনি হাইকোর্টের ওই আদেশ অমান্য করে বিচার কাজ চালিয়ে যান। এ কারণে তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা হয়। মামলার রায়ে হাইকোর্টের আদেশ অমান্যের কারণে তাকে সাজা দেওয়া হয়।

তবে রায়ের কিছু সময় পর তার জামিন চেয়ে আবেদন করা হয়। তখন হাইকোর্টের একই বেঞ্চ আপিলের শর্তে বিচারকের জামিন মঞ্জুর করেন। কারাদণ্ডাদেশের রায় দেওয়ার ৩ ঘণ্টার মাথায় তাকে জামিন দেন আদালত।

এদিকে একইদিন বিকালে মামলাটির রায় স্থগিত চেয়ে চেম্বার জজ আদালতে আবেদন করেন সোহেল রানার আইনজীবী। পরে মো. সোহেল রানাকে দেওয়া কারাদণ্ডাদেশ ২০ নভেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেন চেম্বার জজ আদালত। একইদিন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে মামলাটির শুনানির দিন নির্ধারণ করা হয়। এক আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ১২ অক্টোবর বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন চেম্বার জজ আদালত এ আদেশ দেন। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) মামলাটি আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে ওঠে।

 

/বিআই/এপিএইচ/
সম্পর্কিত
এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান৫ লাখ শিক্ষক-কর্মচারীকে অবসর সুবিধা দিতে হাইকোর্টের রায়
পরীমণির মাদক মামলা চলবে
অস্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডিত জি কে শামীমের জামিন বহাল 
সর্বশেষ খবর
পোশাকশ্রমিককে চাপা দেওয়া ট্রাকচালক গ্রেফতার
পোশাকশ্রমিককে চাপা দেওয়া ট্রাকচালক গ্রেফতার
ফাগুন সন্ধ্যায় তিন ভুল ভাঙালেন অপূর্ব
ফাগুন সন্ধ্যায় তিন ভুল ভাঙালেন অপূর্ব
১৬টি রুশ ড্রোন বিধ্বস্তের দাবি ইউক্রেনের
১৬টি রুশ ড্রোন বিধ্বস্তের দাবি ইউক্রেনের
অভিযান চালিয়ে হাসপাতাল বন্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘না’
অভিযান চালিয়ে হাসপাতাল বন্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ‘না’
সর্বাধিক পঠিত
ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রামীণ ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানববন্ধন
ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রামীণ ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানববন্ধন
সরকারের সঙ্গে আলোচনার জন্য হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তারা ঢাকায়
সরকারের সঙ্গে আলোচনার জন্য হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তারা ঢাকায়
ইউক্রেন যুদ্ধ থেকে যা শিখেছে পেন্টাগন
ইউক্রেন যুদ্ধ থেকে যা শিখেছে পেন্টাগন
মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মির্জা ফখরুলের বৈঠক
মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মির্জা ফখরুলের বৈঠক
মার্কিন প্রতিনিধি দলের তৎপরতায় নজর রাখছে আ.লীগ
মার্কিন প্রতিনিধি দলের তৎপরতায় নজর রাখছে আ.লীগ