X
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪
৯ শ্রাবণ ১৪৩১

অধ্যক্ষ নিয়োগে প্রশ্নফাঁস-দুর্নীতির তদন্ত চেয়ে আইনি নোটিশ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৯ জুন ২০২৪, ১৭:৫০আপডেট : ০৯ জুন ২০২৪, ১৭:৫০

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মদীনাতুল উলুম মডেল ইনস্টিটিউট বালক কামিল মাদ্রাসায় অধ্যক্ষ নিয়োগে প্রশ্নফাঁস ও দুর্নীতির অভিযোগে তদন্ত চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিব, মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক, ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর, মদীনাতুল উলুম মডেল ইনস্টিটিউট বালক কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সভাপতি ও অধ্যক্ষ নির্বাচনি বোর্ডের সভাপতিসহ মোট পাঁচ জনকে এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

রবিবার (৯ জুন) রেজিস্ট্রি ডাকে অধ্যক্ষ নিয়োগ পরীক্ষার প্রার্থী মোহাম্মদ সাইফুল্লাহর পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. বাহাউদ্দিন আল ইমরান এ নোটিশ পাঠান।

নোটিশে বলা হয়েছে, মদীনাতুল উলুম মডেল ইনস্টিটিউট বালক কামিল মাদ্রাসার ‘অধ্যক্ষ’ পদে নিয়োগের জন্য গত ১০ মে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষায় ফেনী আলিয়া কামিল মাদ্রাসার সাবেক মুহাদ্দিস মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ অংশ নেন। পরীক্ষায় ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ও মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের প্রতিনিধিরা প্রশ্নপত্র প্রণয়নে দায়িত্ব পালন করেন। প্রতিষ্ঠানটির উপাধ্যক্ষ মোস্তফা কামাল ‘অধ্যক্ষ’ হিসেবে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেন।

অভিযোগ উঠেছে, মোস্তফা কামালকে প্রশ্নপত্র প্রণয়নে জড়িতদের কেউ আগেই প্রশ্ন সরবরাহ করেছে। সেই প্রশ্নের আলোকে মোস্তফা কামাল হুবহু উত্তরগুলো নকল আকারে সঙ্গে নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করেন। নকলের সঙ্গে তার হাতের লেখার হুবহু মিল রয়েছে। তাই বিষয়টি অন্যান্য পরীক্ষার্থীর নজরে আসলে এ সংক্রান্ত কিছু প্রমাণ তারা সংরক্ষণ করে রাখেন।

নোটিশে অভিযোগ করা হয়েছে,  পরীক্ষায় প্রথম করার জন্য মোস্তফা কামালকে সব প্রশ্ন আগেই সরবরাহ করা হয়েছে এবং এর সঙ্গে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদফতরের প্রতিনিধি ফেরদৌসি আলম জড়িত আছেন।

তাই নোটিশ পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে মোস্তফা কামালের নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধ রেখে পরীক্ষায় দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারী মোহাম্মদ সাইফুল্লাহকে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। পাশাপাশি মোস্তফা কামালসহ প্রশ্নফাঁস-দুর্নীতির মতো ‘ঘৃণিত’ অপরাধে জড়িতদের খুঁজে বের করার জন্য একটি স্বাধীন-নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন ও তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুসারে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে নোটিশের জবাব দাখিলের অনুরোধ জানানো হয়। না হলে এ বিষয়ে দেশের প্রচলিত আইন অনুসারে দেওয়ানি-ফৌজদারি আইনে কিংবা হাইকোর্টে প্রতিকার চেয়ে রিট দায়ের করা হবে বলেও নোটিশে জানানো হয়েছে।

/বিআই/এফএস/
সম্পর্কিত
মতিউর পরিবারের ১৯ কোম্পানির শেয়ার অবরুদ্ধ, জমি ক্রোকের নির্দেশ
প্রশ্নপত্র ফাঁসপিএসসির উপ-পরিচালকসহ ৬ জনের রিমান্ড শুনানির নতুন তারিখ
নায়িকার ড্রাইভার যেভাবে প্রধানমন্ত্রীর পিয়ন, গড়েছেন সম্পদের পাহাড়
সর্বশেষ খবর
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
সংঘাতে ডিএনসিসির ২০৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
সংঘাতে ডিএনসিসির ২০৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
‌‌‘আন্দোলনকে ঢাল হিসেবে নিয়ে নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে বিএনপি-জামায়াত’
‌‌‘আন্দোলনকে ঢাল হিসেবে নিয়ে নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে বিএনপি-জামায়াত’
সর্বাধিক পঠিত
ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী
ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী
কোটা নিয়ে রায় ঘোষণার আগে যা বলেছিলেন প্রধান বিচারপতি
কোটা নিয়ে রায় ঘোষণার আগে যা বলেছিলেন প্রধান বিচারপতি
চাকরিতে কোটা: প্রজ্ঞাপনে যা আছে
চাকরিতে কোটা: প্রজ্ঞাপনে যা আছে
কোটা আন্দোলন: প্রধানমন্ত্রীর বর্ণনায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র 
কোটা আন্দোলন: প্রধানমন্ত্রীর বর্ণনায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র 
কারফিউ বা সান্ধ্য আইন কী 
কারফিউ বা সান্ধ্য আইন কী