ইউপি নির্বাচনে আ.লীগের জয়জয়কার

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৬:০৮, মার্চ ৩০, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৪৪, মার্চ ৩০, ২০১৮

ইউপি নির্বাচনদেশের বেশ কয়েকটি স্থানে উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে বৃহস্পতিবার।সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হয়। এরপর বিভিন্ন স্থানে বেসরকারিভাবে ফল ঘোষণা করা হয়। বেশির ভাগ স্থানেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হলেও কোথাও কোথাও সংঘর্ষ ও প্রভাব বিস্তারের চেষ্টার খবর পাওয়া গেছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

নকলা উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থী বিজয়ী

 শেরপুর প্রতিনিধি জানান, নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী অ্যাডভোকেট  এ.কে.এম মাহবুবুল আলম সোহাগ বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

রিটার্নিং অফিসার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মোতাহসিম জানান, মাহবুবুল আলম সোহাগ পেয়েছেন ৫১ হাজার ৫৫২ ভোট এবং তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ্ মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন পেয়েছেন ১৩ হাজার ৬৩৬ ভোট। মাহাবুবুল আলম মুনীর চৌধুরীর মৃত্যুজনিত কারণে এ উপনির্বাচন হয়।

পুঠিয়ায় দুই ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর জয়

সাজ্জাদ হোসেন মুকুল ও তাকবির হাসানরাজশাহী প্রতিনিধি জানান, রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার দুটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে বেসরকারিভাবে তাদের বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। পুঠিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জয়নুল আবেদিন জানান, দুই ইউনিয়নের মধ্যে বেসরকারি ফলে শিলমাড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী সাজ্জাদ হোসেন মুকুল ও ভাল্লুকগাছি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তাকবির হাসানকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

শিলমাড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী সাজ্জাদ হোসেন মুকুল ১৩ হাজার ৩৩০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী আবু হায়াত পেয়েছেন ৮ হাজার ৬৪৭ ভোট পেয়েছেন। অন্যদিকে পুঠিয়ার ভাল্লুকগাছি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী তাকবির হাসান ৯ হাজার ৬৫৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী তৌহিদুল ইসলাম পেয়েছেন ৮ হাজার ৫৮ ভোট।

কুমিল্লার চার ইউপি আ.লীগের

কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, কুমিল্লার চার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে সবগুলোতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। জেলার বরুড়ার তিনটি ইউনিয়ন ও বুড়িচংয়ে এক ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হন। বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হওয়া বরুড়ার তিন ইউপি চেয়ারম্যান হলেন, খোশবাস দক্ষিণ ইউনিয়নে আবদুর রব, শিলমুড়ী দক্ষিণ ইউনিয়নের ফারুক হোসেন ভূঁইয়া এবং শিলমুড়ী উত্তর ইউনিয়নে আবু ইসহাক। বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের আব্দুল করিম বিজয়ী হয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গার পাঁচ ইউপির ৪টিতে আ.লীগ, একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী

আবদুল কাদের প্রধানচুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি জানান, জীবননগর উপজেলার বাকা, হাসাদহ ও রায়পুর এবং আলমডাঙ্গা উপজেলার আইলহাস ও নাগদাহ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার রাত ৮টা নাগাদ জীবননগর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার মোতাওয়াক্কিল রহমান জানান, বাকা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আ. কাদের প্রধান ৬ হাজার ২৪১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৪১ ভোট।

রবি বিশ্বাসহাসাদহ ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের রবি বিশ্বাস ৫ হাজার ১৯৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সোহরাফ হোসেন বিশ্বাস পেয়েছেন ২ হাজার ৮৭ ভোট।

আবদুর রশিদরায়পুর ইউনিয়ন পরিষদে স্বতন্ত্র প্রার্থী আ. রশিদ শাহ দুই হাজার ৯৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান তাহাজ্জত হোসেন মির্জা পেয়েছেন ২ হাজার ৮৬৪ ভোট।

এছাড়া, আলমডাঙ্গা উপজেলার আইলহাস ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল মালেক ৩ হাজার ৮৫১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মিনাজ উদ্দীন বিশ্বাস পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৮ ভোট। নাগদাহ ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের আবুল কালাম আজাদ ৩ হাজার ৯৪৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী মোখলেচুর রহমান কমল পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৮ ভোট।

বরগুনায় ইউপিতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী

বাশার তালুকদারবরগুনা প্রতিনিধি জানান, বরগুনার তালতলী উপজেলার সারিকখালী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবুল বাশার তালুকদারকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকে তিনি ভোট পেয়েছেন ২ হাজার ৬৬৬টি। তার নিকটতম আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোশারফ হোসেন বিশ্বাস পেয়েছেন ১ হাজার ৯৭৪ ভোট।

টাঙ্গাইলে ইউপি নির্বাচনে ৩টিতে বিএনপি, একটিতে আ.লীগ বিজয়ী

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানান, টাঙ্গাইলের তিন উপজেলার আট ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একটিতে আওয়ামী লীগ, তিনটিতে বিএনপি ও তিনটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়লাভ করেছেন। আর সাগরদিঘী ইউনিয়নে নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ায় ফল স্থগিত রাখা হয়েছে।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলার মাহমুদনগর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির প্রার্থী মাজেদুর রহমান তালুকদার ৪২৬২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের গোলাম সরোয়ার জাহান পেয়েছেন ৪২১৮ ভোট। কালিহাতী উপজেলার বাংড়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হাসমত আলী ৬৫৩৮ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের রিয়াজ উদ্দিন পেয়েছেন ৩৭১৭ ভোট।

এছাড়া ঘাটাইলের সংগ্রামপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুর রহিম মিয়া, রসুলপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এমদাদুল হক সরকার, লক্ষীন্দর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী একাব্বর আলী, ধলাপাড়া ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী এজহারুল ইসলাম ভুইয়া, সন্ধানপুর ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী শহিদুল ইসলাম শহিদ বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

তবে উপজেলার সাগরদিঘী ইউনিয়নে সোনামুড়ি গুপ্ত বৃন্দাবন কেন্দ্রে একজন নিহত হওয়ায় সেখানকার ভোট স্থগিত করা হয়েছে। এজন্য ইউনিয়নের নির্বাচনের ফলও স্থগিত রাখা হয়েছে।

নেত্রকোনার ইউপি নিবার্চনে নৌকার প্রার্থী জয়ী

নেত্রকোনা প্রতিনিধি জানান, মোহনগঞ্জে তেতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রাথী বিজয়ী হয়েছেন। তিনি চার হাজার ৮৭৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয় লাভ করেছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রয়াত চেয়ারম্যান মুরাদের স্ত্রী সামিনা সুলতানা পেয়েছেন চার হাজার ২৬৬ ভোট। রিটানিং র্কমর্কতা ও উপজেলা নিবাচন কর্মকর্তা একেএম সাইদুজ্জামান এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মেহেদী মাহমুদ আকন্দ  বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৩ জানুয়ারি মোহনগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তেতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মুরাদের মৃত্যুতে এ উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

মাগুরার ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী জয়ী
মাগুরা প্রতিনিধি জানান, মাগুরার মহম্মদপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের রাবেয়া বেগম। তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ২৮২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইকবাল আখতার কাফু পেয়েছেন ৪ হাজার ২৮৯ ভোট। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপির মহিদুল ইসলাম পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৬৩ ভোট।



শার্শার লক্ষণপুর ইউপির উপনির্বাচনে নৌকার জয়

আনোয়ার খাতুনবেনাপোল প্রতিনিধি জানান, যশোরের শার্শার লক্ষণপুর ইউনিয়নের উপনির্বাচনের ফলাফলে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আনোয়ার খাতুন। আনোয়ারা খাতুনের স্বামী সালাউদ্দিন শান্তি মারা যাওয়ায় এই উপনির্বাচন হয়। 

আনোয়ারা খাতুন নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট পেয়েছেন ১০ হাজার ১৭৮, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী কামাল হোসেন পেয়েছেন ১৯১ ভোট ও বিএনপির আহসান হাবিব খোকন আনারস প্রতীক নিয়ে ১০৪ ভোট পেয়েছেন। শার্শা উপজেলা নির্বাচন অফিসার কামরুজ্জামান ভোটের এই ফলের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শিবপুরের দুলালপুর ইউপিতে আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জয়ী

নরসিংদী প্রতিনিধি জানান, নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস প্রতীক) মো. মেরাজুল হক ১ হাজার ৫৬১ ভোট বেশি পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী মো. মাহফুজুল হককে পরাজিত করেছেন। আর ১ হাজার ৮৮৪ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মরিয়ম বেগম।

নারয়ণগঞ্জে আসাদুজ্জামান ও জাকির বিজয়ী                       

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, নারায়ণগঞ্জর সদর উপজেলার এলায়েত নগর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড ও রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডে উপনির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এনায়েত নগরে মীর জাকারিয়া জাকির ২ হাজার ৭৩২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ভাষানী প্রধান পেয়েছেন  ১ হাজার ৩২ ভোট। অন্যদিকে কাঞ্চন পৌরসভার  ৪নং ওয়ার্ডে ১ হাজার ৫৫৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে আসাদুজ্জামান। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমিনুল ইসলাম পেয়েছেন ১ হাজার ৫৪০ ভোট।

এনায়েতনগর ইউপির ৭নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য মীর আব্দুল আউয়াল ও কাঞ্চন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের দেওয়ান শফিকুর রহমানের মৃত্যুতে এ উপ-নির্বাচন হয়।

/এএম/

লাইভ

টপ
X