র‌্যাগিংয়ের ঘটনায় বুয়েটের আরও ৮ শিক্ষার্থীকে আজীবন বহিষ্কার

Send
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:১৫, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০১, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯

বুয়েট

র‌্যাগিংয়ে জড়িত থাকার দায়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) আরও ৮ শিক্ষার্থীকে হল থেকে আজীবন বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। একইসঙ্গে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম থেকে বহিষ্কার করা হয়। এরা সবাই তিতুমীর হলের শিক্ষার্থী।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) ছাত্রকল্যাণ পরিদফতরের পরিচালক ও বোর্ড অব রেসিডেন্স অ্যান্ড ডিসিপ্লিনের সদস্য সচিব মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে সোহরাওয়ার্দী ও আনসানউল্লাহ হলের আরও ৯ শিক্ষার্থীকে একই শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, আরও ছয় শিক্ষার্থীকে হল থেকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে এবং একজনকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করা হয়েছে।

buetহল থেকে আজীবন বহিষ্কৃতরা হলেন তানভীর হাসনাইন, মির্জা মোহাম্মদ গালিব, মো. জাহিদুল ইসলাম, মুস্তাসিন মঈন, আসিফ মাহমুদ, মুনতাসির আহমেদ খান, মুহিবুল্লাহ হক মুগ্ধ, আনফালুর রহমান।

বিভিন্ন মেয়াদে হল থেকে বহিষ্কৃতরা হলেন, জাহিদুল ইসলাম, জিহাদুর রহমান, মো. এহসানুল সাদ, আবিদ উল কামাল, মো. সায়াদ, মাহমাদুল হাসান রবিন। এছাড়া ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করা হয়েছে মো. হাসিবুল ইসলামকে।

বুয়েটের শেরেবাংলা হলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নির্যাতনে গত ৬ অক্টোবর তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরারের মৃত্যু হলে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে অচল হয়ে পড়ে বুয়েট। তাদের দাবি মেনে বুয়েটে সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হয়। পাশাপাশি আরও কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করায় আগামী ২৮ ডিসেম্বর থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

/এআর/এমওএফ/

লাইভ

টপ