ক্যাম্পাসের গাছ কাটায় ক্ষুব্ধ ঢাবি শিক্ষার্থীরা

Send
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:৫১, মে ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:৫৩, মে ১৭, ২০২০

করোনাভাইরাসের কারণে অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো দীর্ঘ ছুটিতে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়৷ পুরো ক্যাম্পাস ফাঁকা৷ এসময় ক্যাম্পাসের কয়েকটি গাছ কেটে ফেলায় শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রতিবাদ জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে৷  এদিকে, ছাত্র ইউনিয়ন সোমবার সকাল ১১টায় ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ কর্মসূচি ডেকেছে৷
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় কারাস ভবন থেকে শুরু করে পুষ্টি ইনস্টিটিউট পর্যন্ত রাস্তার পাশের অনেকগুলো গাছ কেটে ফেলা হয়েছে৷ মূলত ওই স্থানে মেট্রোরেলের স্টেশন তৈরির করার জন্য গাছ কাটা হয়েছে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী৷

এদিকে, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার’ নামের একটি ফেসবুক গ্রুপে গাছ কাটার ছবি শেয়ার করে প্রতিবাদ জানিয়েছে শিক্ষারা৷ পরিবেশবান্ধব গাছ কাটার প্রতিবাদে সোমবার (১৮মে)  মানববন্ধন কর্মসূচি ডেকেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টও অনলাইন কর্মসূচি দেওয়ার কথা ভাবছে বলে জানা গেছে।

ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অনিক রায় বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, যখন একজন শিক্ষার্থীও ক্যাম্পাসে নেই, ঠিক সে সময়ের মধ্যেই চোরের মতো গাছ কাটা হয়েছে৷ যা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক ধরনের প্রতারণা বলে আমরা মনে করছি৷ এর প্রতিবাদে আমাদের কর্মসূচি রয়েছে৷'

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সালমান সিদ্দিকী বলেন, শুরু থেকেই পরিবেশের কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর দিয়ে মেট্রোরেল নির্মাণের বিরোধিতা করেছিল শিক্ষার্থীরা৷ কেন এর বিরোধিতা করা হয়েছিল, তা এখন গাছ কেটে পরিবেশের ক্ষতি করার মাধ্যমে দৃশ্যমান৷ আমরা এর প্রতিবাদে অনলাইন কর্মসূচি দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি৷'

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রক্টর অধ্যাপক ড. গোলাম রব্বানী বলেন, গাছ এবং প্রকৃতি আমাদের জীবনের অংশ৷ এখন এখানে একটি উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চলছে৷ টিএসসিতে সহজ যোগাযোগের জন্য মেট্রোরেলের স্টেশন হবে৷ যেটা তৈরির সিদ্ধান্ত দীর্ঘদিনের৷ সার্বিক দিক বিবেচনা করেই এবং শিক্ষার্থীদের সহজ যোগাযোগের জন্যই এটি তৈরি করা হচ্ছে৷'

 

/এসআইআর/এমআর/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ