গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে নোটিশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১১:০৮, জুন ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৮, জুন ০১, ২০২০

আইন নোটিশকরোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যে গণপরিবহনের ভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় (সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ) সচিব ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যানকে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে। সোমবার (১ জুন) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী  মনিরুজ্জামান লিংকন জনস্বার্থে এ নোটিশটি পাঠিয়েছেন।

নোটিশে বলা হয়েছে, করোনার কারণে মানুষের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। নিম্ন ও মধ্যম আয়ের অধিকাংশ মানুষ কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। আর সরকার সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে অসহায় এবং দুস্থ মানুষের করোনাকালীন বিপর্যয় রোধের জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং এই লক্ষ্যে বিভিন্নভাবে খাদ্য সহায়তা এবং নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। কর্মহীন এবং বেকার নিম্ন-মধ্যম আয়ের মানুষ এবং অর্থনৈতিকভাবে অসচ্ছল মানুষের জীবন ও জীবিকার বিষয়টি বিবেচনা করে এবং অর্থনীতিকে সচল রাখতে সরকার সীমিত পরিসরে সরকারি, বেসরকারি অফিস সাময়িকভাবে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। অথচ সেই করোনা পরিস্থিতিতে এসে সরকারের জাতীয় সড়ক এবং মহাসড়ক বিভাগ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি বাস-মিনিবাসের ক্ষেত্রে ৬০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধি করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। যা লোকজনকে আরও বেশি বিপর্যস্থ ও হতাশাগ্রস্থ করেছে।

এতে আরও বলা হয়, যেহেতু বর্তমানে বিশ্ব বাজারে তেলের দাম সর্বনিম্ন সেহেতু অতিরিক্ত ভাড়া না বাড়িয়ে বিশ্ববাজারে থেকে কম মূল্যে তেল সংগ্রহ করে বিষয়টি সমন্বয় করতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা যেতে পারে।

নোটিশ পাওয়ার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির প্রজ্ঞাপন স্থগিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। অন্যথায় জনস্বার্থে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, রবিবার (৩১ মে) করোনাকালীন সময়ে গণপরিবহনের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ৮০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করলেও তা কমিয়ে ৬০ শতাংশ করে মন্ত্রণালয়।

 

 

/বিআই/এসটি/

লাইভ

টপ