মুগদা হাসপাতালে রোগীর স্বজন ও সাংবাদিক লাঞ্ছনার ঘটনায় তদন্ত কমিটি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০২:১৫, জুলাই ০৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:২৯, জুলাই ০৪, ২০২০

রোগীর স্বজনকে মারধর করছে আনসার সদস্য (ছবি: জয়ীতা রায়)মুগদা জেনারেল হাসপাতালে রোগীর স্বজন ও  দুই ফটো সাংবাদিককে মারধরের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী দুই কার্যদিবসের মধ্যে এ ঘটনার প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান।

বাংলা ট্রিবিউনকে ডা. ইকবাল আর্সলান বলেন, ‘আমরা এ ঘটনায় অত্যন্ত দুঃখিত ও মর্মাহত। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তারা আগামী দুই কার্যদিবসের মধ্যে এর প্রতিবেদন দেবে।’

তিনি হাসপাতালগুলোর নিরাপত্তাকর্মীদের প্রসঙ্গে বলেন, ‘স্থানীয় প্রশাসনের উচিত হাসপাতালগুলোতে নিরাপত্তা রক্ষার কাজের নামে যারা আনসার বাহিনীতে কর্মরত আছেন তাদের নিয়ে মাঝে মাঝে সেশন করা। তাদের কার্যপরিধি, কর্মপরিধি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল করা। তাদের এখতিয়ারের ভেতরে কোনটা আর কোনটা নয়, সে সম্পর্কে তাদের বোঝাতে হবে।’

প্রসঙ্গত, এক রোগীর সন্তানকে মারধর করার ছবি তোলার সময় নারী সাংবাদিকসহ দুই সাংবাদিকের ওপর হামলা চালিয়েছে কোভিড-১৯ ডেডিকেটেড মুগদা জেনারেল হাসপাতালের আনসার সদস্যরা। এ সময় দুই সাংবাদিককে বেঁধে রাখারও হুমকি দেওয়া হয়। পুলিশ সেখানে উপস্থিত থাকলেও ঘটনাটিকে দুঃখজনক বলে চলে যায়।

শুক্রবার (৩ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে মুগদা জেনারেল হাসপাতালের প্রধান ফটকের ভেতরে দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের ফটো সাংবাদিক জয়ীতা রায় ও দৈনিক দেশ রূপান্তরের ফটো সাংবাদিক হারুন অর রশীদ ওরফে রশীদ রুবেলের ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটে। মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলতাফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

/জেএ/এমএএ/

লাইভ

টপ