সাহেদের টাকায় চলতো নাটক নির্মাণ প্রতিষ্ঠান টেলিহোম!

Send
রাফসান জানি
প্রকাশিত : ১৯:২৯, জুলাই ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:২২, জুলাই ১০, ২০২০

টেলিহোমের কর্ণধার মোহাম্মদ আলী বশিররিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ ও নাটক নির্মাণ প্রতিষ্ঠান টেলিহোমের প্রধান মোহাম্মদ আলী বশীর সম্পর্কে ভায়রা ভাই। পলাতক মো. সাহেদের টাকায় দেশের অন্যতম ও পুরনো প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টেলিহোম পরিচালিত হতো। সামনে থেকে মোহাম্মদ আলী বশীর কাজ করলেও নেপথ্যে ছিল রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেড ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ।

রিজেন্ট হাসপাতালে মো. সাহেদের সঙ্গে পার্টনারশিপ রয়েছে এমন অভিযোগে টেলিহোমের প্রধান মোহাম্মদ আলী বশিরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে র‍্যাব। রিজেন্ট হাসপাতালে বিনিয়োগের কোনও প্রমাণ না পেলেও মো. সাহেদের টাকায় টেলিহোম পরিচালিত হতো বলে র‌্যাব কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন মোহাম্মদ আলী বশীর।

বুধবার (৮ জুলাই) রাতে বনানী অফিস থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয় মোহাম্মদ আলী বশীরকে। এরপর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৯ জুলাই দুপুরে পরিবারের জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন র‌্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ।

তিনি বলেন, আমরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রিজেন্ট হাসপাতালে মোহাম্মদ আলী বশিরের কোনও ইনভেস্টমেন্টের তথ্য পাইনি। তবে মো. সাহেদ ও আলী বশীর ব্যবসায়ীক পার্টনার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নাটক প্রযোজক মোহাম্মদ আলী বশীর টানা তিন দশক ধরে প্রযোজনার সঙ্গে যুক্ত। তার স্ত্রীও শুরু থেকে এই প্রযোজনা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। পাশাপাশি তিনি অভিনয়ও করে থাকেন। আলী বশীরই প্রথম কোনও প্রযোজক যিনি বিদেশে নাটকের শুটিং করার পথ দেখান প্রায় ২৫ বছর আগে।

সাহেদের টাকায় টেলিহোম পরিচালিত হওয়ার বিষয়ে কথা বলা জন্য মোহাম্মদ আলী বশীরের ব্যবহৃত ফোন নাম্বারে একাধিকবার কলা করা হলেও কেউ রিসিভ করেনি।

টিভি নাটকের সঙ্গে সম্পৃক্তরা জানান, টিভি সেক্টরের প্রায় সব নির্মাতা ও শিল্পী টেলিহোমের ব্যানারে কাজ করেছেন। মিডিয়ায় আলী বশীরের পরিচিতি স্বল্পভাষী সাদামাটা মানুষ হিসেবে। টিভি পর্দার অন্তরালের ডন হিসেবেও বিবেচনা করেন অনেকে। প্রচলিত আছে, টিভি সেক্টরের বেশিরভাগ সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হয় তার ইচ্ছা অনিচ্ছার ওপর ভিত্তি করে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন সিনিয়র শিল্পী জানান, এসব গুঞ্জন চাপা পড়ে যায় তার নিয়মিত নাটক প্রযোজনা ও শীর্ষ তারকাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার মধ্য দিয়ে। সাংস্কৃতিক অঙ্গনে প্রতি বছর পহেলা বৈশাখের সবচেয়ে বড় আয়োজনটি করে থাকে টেলিহোম, যা অনুষ্ঠিত হয় রাজধানীর ট্রাস্ট মিলনায়তনে। যেখানে শুধু নাটকই নয়, চলচ্চিত্র ও সংগীত তারকাদের দিনভর উপস্থিতি ও আড্ডা জানান দেয় মিডিয়ায় আলী বশীরের প্রভাব কতটা গভীরে।

 

/আরজে/এফএএন/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ