বিদেশফেরত কর্মী-করোনায় মৃত প্রবাসীর পরিবার ৪ শতাংশ সুদে ঋণ পাবে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:১১, জুলাই ১২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:১৫, জুলাই ১২, ২০২০

বৈধভাবে বিদেশ গেছেন কিংবা বৈধভাবে রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন— এমন কর্মী এবং করোনায় মৃত প্রবাসী কর্মীদের পরিবারকে ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক। এই লক্ষ্যে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড বিনাসুদে ২০০ কোটি টাকা দেবে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংককে।

করোনা পরিস্থিতিতে প্রবাস ফেরত ক্ষতিগ্রস্ত কর্মীদের ঋণ দেওয়ার বিষয়ে রবিবার (১২ জুলাই) দুপুরে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের সঙ্গে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় জানায়, স্বাক্ষরিত এই সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংককে ২০০ কোটি টাকা বিনাসুদে ঋণ হিসেবে প্রদান করবে। ব্যাংক এই তহবিল থেকে ৪ শতাংশ সরল সুদে গ্রাহকদের বিনিয়োগ ঋণ প্রদান করবে। বৈধভাবে বিদেশে গমনকারী কর্মী বা বিদেশ থেকে বৈধভাবে রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন, এমন কর্মী এবং করোনায় মৃত কর্মীদের পরিবার এই ঋণ পাওয়ার জন্য উপযুক্ত বলে বিবেচিত হবেন। এই ঋণ প্রদান ও ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম এ বিষয়ে প্রণীত নীতিমালা অনুযায়ী সম্পাদিত হবে। দ্রুত, দক্ষ ও স্বচ্ছ ঋণ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম নিশ্চিত করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় বিভিন্ন অংশীজনকে সংযুক্ত করা হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী কর্মীদের টেকসই  পুনর্বাসনের লক্ষ্যে স্বল্প ও সরল সুদে এই ঋণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পরবর্তীতে  প্রধানমন্ত্রীর  প্রদত্ত ৫০০ কোটি টাকা দিয়ে আরও ব্যাপক পুনর্বাসন কর্মসূচি হাতে নেওয়া হবে।’ মন্ত্রী আরও বলেন, ‘ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী কর্মীরা যাতে কয়েকজন মিলে গ্রুপ করে ‍ঋণ নিয়ে যৌথ উদ্যোগে  লাভবান হতে পারেন, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।’ স্বল্প সময়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হওয়ায় এই কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত সবাইকে তিনি ধন্যবাদ জানান।

ইমরান আহমদ বলেন, ‘বিদেশ প্রত্যাগত কর্মীদের কল্যাণে সরকার আরও কিছু পুনর্বাসন প্রকল্প হাতে নেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।’ 

অনুষ্ঠানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব বলেন, ‘করোনা মহামারির এই সময়ে এই ঋণ দান কর্মসূচি ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসীদের আশার আলো দেখাবে।’ সুদের পরিমাণ অত্যন্ত সহনশীল উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এই ঋণের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের পাশাপাশি মন্ত্রণালয়ও এই ঋণ দান কার্যক্রম নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করবে।’

প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহতাব জাবিন ও ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের পক্ষে স্বাক্ষর করেন মহাপরিচালক মো হামিদুর রহমান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন— প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের চেয়ারম্যান শামছুন নাহার, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. শামসুল আলম, বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বাদল, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শহিদুল আলম। 

 

 

/এসও/এপিএইচ/

লাইভ

টপ