নওগাঁ পৌরবাসী আধুনিক সব সুবিধা পাবে: মেয়র সনি

Send
খন্দকার রউফ পাভেল, নওগাঁ
প্রকাশিত : ১৯:৫৮, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:১২, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৬

নজমুল হক সনি১৯৬৩ সালে নওগাঁ পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৮৯ সালে এটি প্রথম শ্রেণির পৌরসভার মর্যাদা পায়। ১৯৮৭ সালে মূল শহরের সঙ্গে আরও  শতাধিক মহল্লাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
সর্বশেষ পৌর নির্বাচনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীকে মেয়র নির্বাচনে প্রতিযোগিতা করেছেন মেয়র নজমুল হক সনি। নির্বাচনে ৩৪ হাজার ৮৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়ে মেয়র পদে বহাল থাকেন। সম্প্রতি বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় এলাকার উন্নয়নে বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানালেন। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন খন্দকার রউফ পাভেল

বাংলা ট্রিবিউন: বিগত মেয়াদের কোন পরিকল্পনা অসম্পন্ন আছে বলে মনে করেন?

নজমুল হক সনি: বিগত মেয়াদে পৌর মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে শহরের মূল অংশের উন্নয়ন করতে পারলেও বর্ধিত এলাকার তেমন কোনও উন্নয়ন সম্ভব হয়নি। এবার নির্বাচিত হওয়ায় তা সম্পন্ন করা হবে। বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতায় শহরবাসীকে আর দুর্ভোগ পোহাতে হবে না। সড়ক মেরামতসহ কাজের মান বজায় রাখার ব্যবস্থা করা হবে।

বাংলা ট্রিবিউন: কোন কোন উন্নয়নপ্রকল্প চলমান?

নজমুল হক সনি: দীর্ঘদিন ধরে শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত শূরমারী খাল ভরাট হয়ে থাকায় শহরবাসীর জন্য এটা বড় সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত ছিল। ইউজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় গত বছর খালটি পুনঃখনন, সংস্কার ও রাস্তাঘাট নির্মাণসহ ১৪টি প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে।
এরই মধ্যে ছোট যমুনার তীর দিয়ে সোডিয়াম ল্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। বাকি রয়েছে পার-নওগাঁর হোটেল অবকাশ এলাকা থেকে শুঁটকি কালিতলা পর্যন্ত কাজ। অল্প দিনের মধ্যে তাও শুরু হবে।

এছাড়া শিগগিরই বালুডাঙ্গা এলাকার আধুনিক বাসস্ট্যান্ড, মুক্তির মোড়ে পানি শোধানাগার, বর্জ ব্যবস্থাপনা, আধুনিক পৌর ভবনসহ বেশ কয়েকটি স্থাপনা নতুন আকারে নির্মাণ করা হবে।

নওগাঁ পৌরসভায় ইউজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় একশ’ কোটি টাকা ব্যয়ে বিবিধ কাজ শুরু হয়েছে। এই প্রকল্পের কাজ শতভাগ স্বচ্ছতার সঙ্গে সম্পন্ন হবে বলে আশা করছি। এটি সম্পন্ন হলে নওগাঁ পৌরবাসী আধুনিক সব সুবিধা পাবে।

বাংলা ট্রিবিউন: প্রকল্প তত্ত্বাবধায়নে কারা থাকছে?

নজমুল হক সনি: প্রকল্পগুলো যেন শতভাগ সুচারুভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব হয় সে জন্য পরামর্শদাতা নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া পৌরসভা থেকেও নিয়মিত তদারক করা হচ্ছে।   

বাংলা ট্রিবিউন: যোগাযোগ ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে কী উদ্যোগ নেবেন?

নজমুল হক সনি: দীর্ঘদিনেও এই এলাকার মানুষের নাগরিক অধিকার নিশ্চিত হয়নি। সড়ক উন্নয়ন নিয়ে পরিকল্পনা বিষয়ে বলতে চাই আগামী ৫ বছরের মধ্যে নওগাঁ শহরের একটি সড়কও কাঁচা থাকবে না। দুই-এক বছর পরপর পৌর এলাকার সড়ক চলাচলের অযোগ্য হয়ে যায় বটে। তবে নিয়মিত সংস্কার করতে পারলে রাস্তা ঘাট আর অকেজো হবে না।

বাংলা ট্রিবিউন:  এ পথে প্রধান অন্তরায় কী বলে মনে করেন।

নজমুল হক সনি: পৌরসভার উন্নয়নে সরকারি বরাদ্দ যা আসে তা অপ্রতুল। রাস্তাঘাটের কাজ করতে গিয়ে সরকারি দলের প্রভাবশালী ঠিকাদারদের চাপও মোকাবিলা করতে হয়। এটা রাস্তাঘাটের কাজ শতভাগ সম্পন্নের পথে অন্তরায়। 

বাংলা ট্রিবিউন: কোনও শঙ্কা বোধ করছেন?

নজমুল হক সনি: বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হওয়ায় সরকারদলীয় নেতাকর্মী ও প্রশাসনের কাছ থেকে বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় জড়ানোর ভয় আছে। তবে শান্তিপ্রিয় জনগণ আমার প্রধান শক্তি। আশঙ্কা থাকলেও স্বস্তির জায়গা এটি।

/জেবি/পিএইচ/এইচকে/

লাইভ

টপ
X