X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

বিএনপির দিবস বিভ্রাট!

আপডেট : ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:০২

১৯৭৫ সালের ২৫ জানুয়ারি তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার কর্তৃক ‘বাকশাল’ গঠনের দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করে এলেও চলতি মাসে বিএনপির স্থায়ী কমিটি সিদ্ধান্ত নেয়, দিনটিকে ‘বাকশাল  দিবস’ হিসেবে পালন করবে তারা। গত ১৮ জানুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান এক সংবাদ সম্মেলনে তা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন। যদিও দিবসটি পালনের একদিন আগে সোমবার (২৪ জানুয়ারি) গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে উল্লেখ করেছে বিএনপি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নাম উল্লেখ করে বিবৃতিও পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় দফতর বিভাগ।

দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদের স্বাক্ষরে গণমাধ্যমে ২৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে দুটি বিবৃতি পাঠানো হয়েছে। একটি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও অন্যটি মহাসচিবের নামে। উভয় বিবৃতিতে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উল্লেখ করা হয়েছে।

বাণীতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘ক্ষমতাকে চিরকাল কুক্ষিগত করার অসৎ উদ্দেশ্যে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার ১৯৭৫ সালের ২৫ জানুয়ারি একদলীয় শাসনব্যবস্থা-বাকশাল গঠন করে গণতন্ত্রকে হত্যা করে। একটিমাত্র দল বাকশাল ছাড়া অন্য সব দল এবং সরকার অনুগত ৪টি সংবাদপত্র ছাড়া সব সংবাদপত্র বন্ধ করে দেওয়া হয়। এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে বহুদলীয় গণতন্ত্র ও মানুষের বাক-ব্যক্তি স্বাধীনতাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়।’

ফখরুল বাণীতে উল্লেখ করেন, ‘শুধু তাই নয়, সভা-সমাবেশ এবং মানুষের মৌলিক অধিকারের ওপর হস্তক্ষেপ করে তারা বাকস্বাধীনতা ও মানুষের মৌলিক অধিকার খর্ব করে মূলতঃ মানবাধিকারকেই পদদলিত করেছে। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি ভোটারবিহীন নির্বাচন এবং ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর ভুয়া ভোটের নির্বাচনে মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে এখন দেশে দ্বিতীয় বাকশালী রাজত্ব কায়েম করেছে। ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুপরিকল্পিতভাবে মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নেবে বলেই আগেভাগে আওয়ামী সরকার দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে।

মহাসচিব বলেন, ‘বিএনপি সবসময় জনগণের মৌলিক অধিকার, বাকস্বাধীনতা, সংবাদপত্র ও গণমাধ্যমের কথা বলার অধিকার প্রতিষ্ঠায় দৃঢ় অঙ্গীকারাবদ্ধ। তাই দেশ ও জাতির স্বার্থে খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত এবং বিদেশে তার সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। গণতন্ত্রের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।’

এর আগে, ১৮ জানুয়ারি দুপুরে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘গতকাল (সোমবার-১৭ জানুয়ারি) স্থায়ী কমিটির সভা হয়। সেখানে আগামী ২৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার দেশব্যাপী মহানগর ও জেলায় মহান মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণ ফসল গণতন্ত্রকে হত্যা করে একদলীয় স্বৈরশাসন জারির দিনটিকে ‘বাকশাল দিবস’ হিসাবে পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।’

দিবস পালনের এই বিভ্রাট কেন, জানতে চাইলে দফতরের কেউ মন্তব্য করতে রাজি হননি। একজনের ভাষ্য, দায়িত্বশীলদের নির্দেশনা পেলে সংশোধনী পাঠানো হতে পারে।

 

/এসটিএস/আইএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ডেসকোতে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
ডেসকোতে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
লিটনের বিদায়ে ভাঙলো ‘বিশ্বরেকর্ড’ জুটি
লিটনের বিদায়ে ভাঙলো ‘বিশ্বরেকর্ড’ জুটি
হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে হাজী সেলিমের আপিল
হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে হাজী সেলিমের আপিল
পদ্মার বিশ কেজির পাঙাস ২৬ হাজারে বিক্রি
পদ্মার বিশ কেজির পাঙাস ২৬ হাজারে বিক্রি
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
‘মানুষ পদ্মা সেতু দিয়ে যাবে, আর আ.লীগকে ভোট দেবে’
‘মানুষ পদ্মা সেতু দিয়ে যাবে, আর আ.লীগকে ভোট দেবে’
পদ্মা সেতু জনগণের টাকায় হয়েছে: মির্জা ফখরুল
পদ্মা সেতু জনগণের টাকায় হয়েছে: মির্জা ফখরুল
বাংলাদেশ কখনও শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান-পাকিস্তানের অবস্থায় যাবে না: হানিফ
বাংলাদেশ কখনও শ্রীলঙ্কা-আফগানিস্তান-পাকিস্তানের অবস্থায় যাবে না: হানিফ
বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান বাংলাদেশ ন্যাপের
বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান বাংলাদেশ ন্যাপের