আ. লীগের সম্মেলন হওয়া সংগঠনগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি দিতে ১৫ দিনের আল্টিমেটাম

Send
মাহবুব হাসান
প্রকাশিত : ০০:১৪, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৫২, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২০

আওয়ামী লীগ

আওয়ামী লীগ ঢাকা মহানগর কমিটির দুই অংশসহ যেসব সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সেগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করার জন্য নির্বাচিত সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে। ক্ষমতাসীন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এসব সংগঠনের শীর্ষ নেতাদের ফোন করে এ আল্টিমেটাম দেন। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই দ্রুত কমিটি দিতে এ তাগাদা বলে জানা যায়।

আওয়ামী লীগের একটি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফী বাংলা ট্রিবিউনের কাছে স্বীকার করেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাকে ফোন করেছিলেন। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কমিটি দিতে বলেছেন।

বিষয়টি স্বীকার করেছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবুও। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আগামী ৮ থেকে ১০ দিনের মধ্যে তারা পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করবেন।

প্রসঙ্গত, গত নভেম্বর মাস জুড়ে আওয়ামী লীগের চারটি সহযোগী এবং একটি ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। পাশাপাশি অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সম্মেলনও।

গত ৬ নভেম্বর কৃষক লীগের সম্মেলনের মাধ্যমে শুরু হয় এ সম্মেলনযজ্ঞ। ৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয় ভাতৃপ্রতীম সংগঠন শ্রমিক লীগের সম্মেলন। ১৬ নভেম্বর স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ২৩ নভেম্বর যুবলীগ এবং ২৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয় মৎসজীবী লীগের সম্মেলন। সর্বশেষ ৩০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দুই অংশের সম্মেলন। এসব সংগঠনকে এক সপ্তাহ থেকে এক মাস সময় বেঁধে দেওয়া হয় পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়ার জন্য। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনোটিরই পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়া হয়নি। অথচ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ২০ ও ২১ ডিসেম্বর। ২১ ডিসেম্বর সম্মেলন অধিবেশন থেকে ৮১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির ৪২ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে ২৮ ডিসেম্বর বাকি প্রায় সবগুলো নাম ঘোষণা করা হয়।

আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি সফরে ইতালি যাওয়ার আগে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের মৌখিকভাবে সংগঠনগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার নির্দেশনা দিয়ে গেছেন। সে আলোকে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণ এবং সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে এ নির্দেশনা পৌঁছে দেন দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতারা।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তরের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান বলেন, দলের সাধারণ সম্পাদক আমাদের (মহানগর উত্তর শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক) ফোন করেছিলেন। তিনি দ্রুত পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সংগঠন ঢেলে সাজানোর অংশ হিসেবে মহানগর আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনগুলোর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মাঝখানে ঢাকা সিটি নির্বাচনে নেতাকর্মীরা ব্যস্ত থাকায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি দিতে পারেননি। তাই নির্বাচনের পরে দ্রুততম সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

 

/টিএন/

লাইভ

টপ