ধৈর্যের সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবিলার আহবান ওবায়দুল কাদেরের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩৬, মার্চ ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৬, মার্চ ২৩, ২০২০

obaidul kader

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ তথা বিশ্বমানবতার ক্রান্তিলগ্নে সবাইকে ধৈর্য, সতর্কতা, দায়িত্বশীলতা, মানবিকতা ও দেশপ্রেমের সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সোমবার (২৩ মার্চ)  ‘২৫ মার্চ, গণহত্যা দিবস’ উপলক্ষে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি এ আহ্বান জানান। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের ২৫শে মার্চ কালো রাত্রিতে নিহত সব শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ২৫শে মার্চ গণহত্যা দিবস। মানব সভ্যতার ইতিহাসে একটি কলঙ্কিত হত্যাযজ্ঞের দিন। ১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ দিবাগত রাতে পাক-হানাদার বাহিনী ‘অপারেশন সার্চ লাইট’-এর নামে নিরস্ত্র বাঙালির ওপর বিশ্ব ইতিহাসের নৃশংসতম গণহত্যা চালায়। ফলশ্রুতিতে বাঙালি জাতির জীবনে নেমে আসে বিভীষিকাময় ভয়াল কালরাত্রি। ২৫শে মার্চ পাক-হানাদার বাহিনী স্বাধীনতাকামী বাঙালির ওপর দানবের মতো ঝাঁপিয়ে পড়লে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ২৬শে মার্চের প্রথম প্রহরে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। জাতির পিতার আহ্বানে সাড়া দিয়ে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাংলার সর্বস্তরের জনগণ ঐক্যবদ্ধভাবে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। ২৫শে মার্চ কালো রাতে শুরু হওয়া পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর গণহত্যা চলতে থাকে মুক্তিযুদ্ধের পুরো সময়। ৩০ লাখ শহীদের আত্মত্যাগ ও দুই লাখ মা-বোনের নিপীড়নের বিনিময়ে অর্জিত হয় বহুল প্রতীক্ষিত মহান স্বাধীনতা। দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠা লাভ করে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে সারাবিশ্ব এক গভীর সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। সে কারণে সকল ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচি পরিহার করেছে  আওয়ামী লীগ। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে সৃষ্ট সংকটের কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ইতোমধ্যে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’-এর কর্মসূচি পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস ও ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের বিভিন্ন কর্মসূচি পরিহার করা হয়েছে। দেশবাসীর নিরাপত্তার স্বার্থে আওয়ামী লীগও সকল ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচি স্থগিত রেখেছে।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, ৩০ লাখ শহীদের পবিত্র স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার মাধ্যমে ভয়াবহ এই সংকট মোকাবিলায় দায়িত্বশীল  ভূমিকা পালন করাই হোক এবারের স্বাধীনতা দিবসের অঙ্গীকার। দেশবাসীর সম্মিলিত সচেতনতা, সতর্কতা ও স্বাস্থ্যবিধি পালনই পারে ভয়াবহ এই সংকট থেকে আমাদের রক্ষা করতে।

 

/এমএইচবি/এমআর/

লাইভ

টপ