এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও বিচার দাবি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০২:৩০, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩৯, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০




এমসি কলেজ ছাত্রাবাসসিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে (১৯) ধর্ষণের ঘটনায় বিভিন্ন সংগঠন তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। একই সঙ্গে অভিযুক্তদের কঠিন শাস্তির দাবি জানিয়েছে সংগঠনগুলো। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে সংগঠনগুলো এই নিন্দা ও বিচারের দাবি জানায়।

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ: বিবৃতিতে বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, ‘গত রাতে সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে ছাত্রলীগের ৬ জন দুর্বৃত্ত এক নারীকে গণধর্ষণ করেছে তার স্বামীকে বেঁধে রেখে। সরকারি দলের ছাত্রছায়ায় দুর্বৃত্তরা নারী ধর্ষণ, নির্যাতন, লুণ্ঠণসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসলেও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী তাদের নিবৃত্ত করতে পারছে না বরং প্রশ্রয় দিয়ে আসছে। তাই অবিলম্বে এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত ছাত্রলীগের দুর্বৃত্তদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রদানের জোর দাবি জানাই।’

সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম: সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি রওশন আরা রুশো এবং সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু বিবৃতিতে বলেন, ‘দেশে একের পর এক নারী নির্যাতন-ধর্ষণ-হত্যার মতো বর্বর ঘটনা ঘটেই চলেছে। বিচারহীনতার রেওয়াজ ধর্ষক ও খুনিদের আরও বেপরোয়া করে তুলেছে। ঘরে, বাইরে, পথে, গণপরিবহনে, কর্মক্ষেত্রে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে, পাহাড়ে, সমতলে দেশের এমন কোনও জায়গা নেই যেখানে নারীরা নিরাপদ বোধ করতে পারেন। তাই অবিলম্বে সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে নারীকে গণধর্ষণের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র: বিবৃতিতে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সীমা দত্ত ও সাধারণ সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী বলেন, ‘বিবেকবান মানুষকে ধর্ষণের মতো জঘন্য অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। নারীর নিরাপত্তা বিধানে সরকার ও প্রশাসনের ব্যর্থতায় অপরাধীদের দৌরাত্ম্য দিন দিন সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণর্ধষণের ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতাসহ অপরাধীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।’

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ: জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার বিবৃতিতে বলেন, ‘ধর্ষকদের মুখ না দেখে, দল না দেখে, জঘন্য অপরাধী হিসেবে দেখা এবং বিচারে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির পাশাপাশি সামাজিকভাবেও বর্জন করা উচিত। সিলেট এমসি কলেজ হোস্টেলে এক নারীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে যুক্ত নরপিশাচদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।’

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন: সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমেদ বলেন, সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনার দোষীদের কঠোর সাজার পাশাপাশি, কলেজ কর্তৃপক্ষের অব্যবস্থাপনার বিষয়ে একটি শক্তিশালী তদন্ত কমিটি গঠন করা উচিত। তারপর অবহেলার দায়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।



/এইচএন/টিটি/

লাইভ

টপ