তৃণমূলে এমপির পছন্দে কমিটি নয়: কাজী জাফরুল্লাহ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩১, অক্টোবর ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৭, অক্টোবর ২৪, ২০২০

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বলেছেন, তৃণমূলের কমিটি (জেলা-উপজেলা) গঠনে সংসদ সদস্যদের পছন্দের কমিটি কেন্দ্র অনুমোদন করবে না। ত্যাগী, পরিশ্রমী ও পরিক্ষিত নেতাকর্মীদের দিয়ে তৃণমূলের কমিটি করতে হবে। এতে এমপি বা অন্য কারও পকেটম্যানদের দিয়ে কমিটি মেনে নেওয়া হবে না। শনিবার (২৪ অক্টোবর) খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানীর বনানীতে তার ব্যবসায়ীক কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
বৈঠক শেষে কাজী জাফরউল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের জেলা পর্যায়ের পূর্ণাঙ্গ কমিটিগুলো করতে হবে। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে যে অভিযোগ আছে সেগুলো পরীক্ষা করবো। নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে যারা দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের জন্য কষ্ট করে এসেছেন, শ্রম দিয়েছেন তাদের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে আমরা কমিটি করবো। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, এমপি সাহেবদের পছন্দ হয় না, সে কারণে অনেকের নাম বাদ যাচ্ছে। আবার এমপিরা নিজেদের পছন্দের লোক দিয়ে কমিটি করতে চান। এবার যাতে এগুলো না হয় সেদিকে আমরা কঠোরভাবে লক্ষ্য রাখবো।
খুলনা বিভাগে জেলা পর্যায়ের কমিটি গুলো শেষ হতে কত সময় লাগবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে একটা বৈঠক করাই কঠিন। আমাদের যদি সঠিক দায়িত্ব পালন করতে হয়, তবে প্রত্যেক জেলায় গিয়ে যাচাই-বাছাই করতে হবে। তিনি বলেন, গত ডিসেম্বরে আমাদের কাউন্সিল হয়েছে কিন্তু গত ১০ মাসে মহামারির কারণে আমরা কিছু করতে পারি নাই। আমি আশা করি, আগামী দুই মাসের ভিতরে খুলনা বিভাগের জেলা কমিটিগুলো সম্পন্ন করতে পারব। করোনায় সারাদেশে আওয়ামী লীগের ছয় শতাধিক নেতাকর্মী মারা গেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, মহামারির কারণে আমাদের হুঁশিয়ারি সঙ্গে কাজ করতে হচ্ছে।
এ সময় আওয়ামী লীগের খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হকসহ খুলনা বিভাগের স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ ব্রিফিংয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও কৃষক লীগের কমিটিতে বিতর্কিতদের বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত হবে এমন প্রশ্নে বিএম মোজাম্মেল হক বলেন, যদি অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে বিতর্কিতদের কমিটি থাকার কোনও সুযোগ নেই।

/এমএইচবি/এমআর/

লাইভ

টপ