স্তন ক্যানসার সচেতনতায় ফ্রেশ টিস্যুর উদ্যোগ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:৫৬, অক্টোবর ১৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৬, অক্টোবর ১৮, ২০২০

BT-Newবিশ্বের অনেক দেশে ‘ইন্টারন্যাশনাল ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস মান্থ’ উপলক্ষে বিভিন্ন গুরুত্বপূ্র্ণ স্থাপনা গোলাপি আলোয় আলোকিত করে রাখে স্তন ক্যানসার বিষয়ে সচেতনতা তৈরির জন্য। বাংলাদেশে এবারই প্রথমবারের মতো এই আয়োজন করলো ফ্রেশ টিস্যু। এ উপলক্ষে রাজধানীর বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা গোলাপি রঙে আলোকিত করা হয়েছে ব্রেস্ট ক্যানসার বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য।

এর পাশাপাশি ‘ফ্রেশ টিস্যু: একটি চেক-আপ, আর দেরি নয়, মুছতে গ্লানি, এখনই সময়’– স্লোগান সামনে নিয়ে নির্মাণ করেছে কিছু সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপনচিত্রও। যার মূল উদ্দেশ্য ছিল দেশের নারীদের নিয়মিত স্তন ক্যানসারের মেডিক্যাল চেক-আপে উৎসাহী করা এবং এর ভয়াবহতা সম্পর্কে সবাইকে জানানো।

দেশে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১৯ জন নারী মারা যান স্তন ক্যানসারে, যা বছরে প্রায় সাত হাজারের কাছাকাছি। অথচ প্রাথমিক পর্যায়েই চিহ্নিত করতে পারলে এই রোগে নিরাময়ের হার শতকরা ৯০ ভাগ পর্যন্ত। এই রোগের ভয়াবহতার একটি মূল কারণ হচ্ছে, এ সম্পর্কে সাধারণ মানুষের অসচেতনতা। অথচ বছরে অন্তত একবার স্তন ক্যানসারের মেডিক্যাল চেক-আপ করালেই নিরাপদ থাকার সম্ভাবনা বেড়ে যায় অনেকাংশেই। সাধারণ মানুষদের এই আচরণে উৎসাহিত করার জন্য ফ্রেশ টিস্যু একই সঙ্গে দেশের আটটি বিভাগীয় সদরে আয়োজন করেছে এক মাসব্যাপী একটি মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন। যেখান থেকে এই ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারী এক হাজার নারী পাবেন স্তন ক্যানসারের ফ্রি প্রাইমারি চেক-আপ অ্যান্ড কনসালটেন্সি সার্ভিস। ফ্রেশ টিস্যুর ফেসবুকে পেজে গেলেই যে কেউ পেয়ে যাবেন এই ক্যাম্পেইনে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করার লিঙ্ক। এছাড়াও ফ্রেশ টিস্যু www.muchhejaakglani.com নামে একটি ওয়েবসাইট লঞ্চ করেছে, যেখানে স্তন ক্যানসার সম্পর্কিত সব প্রাথমিক তথ্য একসঙ্গে আছে। এই ওয়েবসাইটে কেউ ভিজিট করলেই স্তন ক্যানসারের লক্ষণ, কারণ, সতর্কতা, সেলফ-এক্সামের নিয়মাবলিসহ দেশের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের তালিকাসহ এই সম্পর্কিত সব প্রাথমিক তথ্যই পেয়ে যাবেন।

/এমএএ/
টপ