রানআউট আর ক্যাচ মিসের আক্ষেপ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:৪৯, জানুয়ারি ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৪, জানুয়ারি ২৪, ২০২০

সহজ ক্যাচটা কিভাবে ছাড়লেন, ড্রেসিংরুমে ফিরে হয়তো সেটাই বহুবার ভেবেছেন মোহাম্মদ মিঠুন। মোহাম্মদ রিজওয়ানের ক্যাচ ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হারটাও যে নিশ্চিত হয়ে গেছে বাংলাদেশের!

নাজমুল হোসেন শান্ত চেষ্টা করেও পারেননি শোয়েব মালিকের ক্যাচ তালুবন্দি করতে। তবে শেষ ওভারে সরাসরি স্টাম্পে লাগাতে পারলে হয়তো ফেরানো যেত ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা মালিককে। এর আগে ইফতিখার আহমেদকে রানআউট তো করতে পারেইননি, উল্টো ‘উপহার’ দেওয়া হয় বাউন্ডারি। মোদ্দা কথা, ক্যাচ ও রানআউটের সুযোগ নষ্টের মূল্য দিতে হয়েছে বাংলাদেশকে। ঢাল হিসেবে ওই মুহূর্তগুলোই হয়তো সামনে আনার চেষ্টা করেছেন মাহমুদউল্লাহ।

বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর শুরু হয়েছে হার দিয়ে। গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে ১৪১ রান করেও লড়াই চালিয়ে গেছে সফরকারীরা শেষ ওভার পর্যন্ত। মাত্র ৩ বল আগে ৫ উইকেটের জয় পাওয়া পাকিস্তানকে আরও বেগ পেতে হতো যদি রিজওয়ানের ক্যাচটি না ছাড়তেন মিঠুন। তাছাড়া অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ হারের কারণ হিসেবে সেই চিরাচরিত ‘কিছু রান কম’ হওয়ার কথাই শুনিয়েছেন, ‘ভালো প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল। তবে ১৫ রান কম হয়ে গেছে আমাদের। আমরা অনেক বাউন্ডারিও ছেড়েছি।’

অল্প পুঁজি থাকলে ফিল্ডিংয়ে পুষিয়ে দেওয়ার যে ব্যাপারটি থাকে, বাংলাদেশ সেটা তো করতে পারেইনি, উল্টো পাকিস্তানকে সাহায্যই করেছে বাজে ফিল্ডিংয়ে। মাহমুদউল্লাহর রানআউট ও ক্যাচ মিসের আক্ষেপে পোড়া তাই স্বাভাবিক, ‘আমরা বেশ কয়েকটি ক্যাচ ও রানআউটের সুযোগ নষ্ট করেছি।’

ব্যাটসম্যানরাও তো সুবিধা করতে পারেননি। ১৪১ রান টি-টোয়েন্টি যুগে মোটেও ভালো স্কোর নয়। মাহমুদউল্লাহ এই জায়গায় উইকেটের ‘অদ্ভুত’ আচরণের কথা বলেছেন, ‘উইকেট ছিল বিস্ময়কর। বল যত পুরোনো হচ্ছিল, শট খেলা তত কঠিন হয়ে উঠছিল। তাছাড়া বোলাররাও ভালো করেছে।’

টানা পাঁচ টি-টোয়েন্টি হারের পর জয়ের পথে ফিরেছে পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কার কাছে ৩-০ তে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা ও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হারের ধাক্কা দারুণ জয়ে কাটিয়ে উঠেছে তারা। বাংলাদেশেরও লক্ষ্য ছিল জয় দিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ শুরু করার। কিন্তু সেটা হয়নি। এখন পরের ম্যাচের দিকে তাকিয়ে মাহমুদউল্লাহ, ‘লক্ষ্য এখন আমাদের সামনের ম্যাচ।’

সেজন্য অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে না তাদের। আগামীকালই (শনিবার) দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে পাকিস্তানের। লাহোরের এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই, নইলে এক ম্যাচ আগেই সিরিজ হারবে বাংলাদেশ!

/কেআর/পিকে/

লাইভ

টপ