চাপ কিসের, আকবর-ইমনদের পাল্টা প্রশ্ন

Send
রবিউল ইসলাম
প্রকাশিত : ২২:৪১, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪৮, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী ছয় ক্রিকেটারমূল লড়াইয়ের আগে বিকেএসপিতে দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে জিম্বাবুয়ে, প্রতিপক্ষ বিসিবি একাদশ। একঝাঁক নবীন প্রতিভাবান ক্রিকেটার নিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচের দল গঠন করেছে বিসিবি। যেখানে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটারের সঙ্গে আছেন ঘরোয়া ক্রিকেট খেলা নবীন কয়েকজন।

প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে যুব বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটারদের কয়েকজন আজ রাতে ঢাকায় ফিরেছেন। যেমন বিজয়ী অধিনায়ক আকবর আলী বিমান থেকে নামতে নামতেই কথা বললেন বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে।

প্রস্তুতি ম্যাচের দলে যুব বিশ্বকাপজয়ী দল থেকে অধিনায়ক আকবর আলী ছাড়া আছেন পারভেজ হোসেন ইমন, মাহমুদুল হাসান জয়, শরীফুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন ও তানজিদ হাসান তামিম।

এই দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ব্যাটসম্যান আল আমিন হোসেন জুনিয়র। মঙ্গলবার তার নেতৃত্বেই মাঠে নামবে বিসিবি একাদশ।

অধিনায়ক আকবর প্রস্তুতি ম্যাচটিকে চাপ নয় বরং সুযোগ হিসেবেই দেখছেন, ‘চ্যালেঞ্জ অবশ্যই আছে। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পার্থক্য অনেক। কালকের ম্যাচটি আন্তর্জাতিক না হলেও প্রতিপক্ষ দলটি তো আন্তর্জাতিক মানের। তারা অনেক অভিজ্ঞ। তবে আমার কাছে এ ম্যাচকে চাপ মনে হয় না। বরং মনে হয় এটা আমাদের জন্য ভালো সুযোগ।’

যুব বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটারদের মধ্যে শরীফুল ইসলামেরই শুধু বড়দের ক্রিকেটে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। শরীফুল এর আগে বিসিবি ‘এ’ দলের হয়ে খেলেছেন। সেই ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ম্যাচের মধ্যে নেই যুব বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটাররা। প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটই মাথায় নেই। তবুও কোনও সমস্যা দেখছেন না শরীফুল, ‘জিম্বাবুয়ে যদি আগে ব্যাটিং করে তাদের কম রানে অলআউট করার চেষ্টা করবো। বিশ্বকাপে যেমন বোলিং করেছি, সেটাই লক্ষ্য থাকবে। কোনও চাপ নিচ্ছি না, অতিরিক্ত কিছু ভাববো না। শুধু একটি ম্যাচ হিসেবেই দেখছি। হয়তো কিছুদিন খেলার বাইরে ছিলাম, তারপরও মানসিকতা ভালো আছে।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে মাহমুদুল হাসানের ব্যাট থেকে এসেছিল ১০০ রানের ইনিংস। ওই ইনিংসের ওপর ভর করে কিউইদের সহজে হারাতে পেরেছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচেও আছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। সেঞ্চুরিয়ান মাহমুদুলকে নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই প্রত্যাশা বেশি থাকবে। তবে এতকিছু ভাবছেন না চাঁদপুরের তরুণ, ‘এগুলো আমি মাথায় নিচ্ছি না। অতীত অতীতই, কালকে আমাকে নতুন করে শুরু করতে হবে। বাড়তি কোনও টেনশন নেই, স্বাভাবিক ক্রিকেটটাই খেলার চেষ্টা করবো।’

যুবদলের ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম ভালো করেই জানেন তাদের নিয়ে ক্রিকেটভক্তদের প্রত্যাশা। তবে সতর্ক আছেন এই ওপেনার, ‘অবশ্যই এটা আমাদের জন্য বড় সুযোগ। সুযোগটা কাজে লাগাতে পারলে আমাদের জন্য ভালো হবে। আমরা জানি সবার নজর আমাদের দিকে থাকবে। সেই চাপটা আমরা নিতে চাই না। কিছুই হয়নি মনে করেই আমরা ম্যাচটি খেলবো।’

যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে পায়ে ক্র্যাম্প নিয়েও দ্বিতীয়বার ব্যাটিং করে দলকে বিপদমুক্ত করেছিলেন ওপেনার পারভেজ ইমন। খেলেছিলেন ৪৭ রানের ইনিংস। বীরবেশে দেশে ফিরে এসেও ব্যাটিং করা থামাননি এই ওপেনার। চট্টগ্রামে টি-টেন লিগে খেলেছেন দারুণ দারুণ সব ইনিংস। সুতরাং  পারভেজের জন্য দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচটি অন্যদের মতো কঠিন মনে হচ্ছে না, ‘আমি চট্টগ্রামে গিয়েও টি-টেন টুর্নামেন্ট খেলেছি। আমি বলবো না যে আমার প্রস্তুতি নেই।  ব্যাটিং নিয়ে আমি আত্মবিশ্বাসী। একটু চাপ তো থাকবেই, তবে সেটা সামলে ওঠাই বড় ক্রিকেটারদের গুন।’

প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই মিডল অর্ডারকে টেনে তুলেছেন শাহাদাত হোসেন। ফাইনাল বাদে পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সবগুলো ম্যাচেই অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন। তিনিও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচটিকে স্রেফ একটি ম্যাচ হিসেবেই দেখছেন, ‘এত বেশি ভাবছি না। নিজের মতো করে খেলতে পারলেই হয়ে যাবে। বাড়তি কিছু ভাবতে চাই না। অনেকের চোখ হয়তো আমাদের দিকে থাকবে, কিন্তু সেই চাপে আমরা পড়তে চাই না।’

বিসিবি একাদশের অধিনায়ক আল-আমিন জুনিয়র তরুণ দল নিয়ে ভালো কিছু করতে চান, ‘দলটি নবীন হলেও সবাই খুব ট্যালেন্টেড। আশা করছি ভালো একটি ম্যাচ হবে।’

বিসিবিএকাদশ: নাঈম শেখ, পারভেজ হোসেন ইমন, মাহমুদুল হাসান জয়, আকবর আলী, আল আমিন জুনিয়র, ফারদিন অনি, শরীফুল ইসলাম, সুমন খান, মাকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, রিশাদ আহমেদ, শাহাদাত হোসেন, তানজিদ হাসান তামিম।

/আরআই/পিকে/

লাইভ

টপ