ভিনিসিয়ুস আর কোর্তুয়ায় রিয়ালের উদ্ধার

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৪:১৮, অক্টোবর ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৪:২৬, অক্টোবর ০১, ২০২০

ভিনিসিয়ুসের গোলের পর-               -ছবি: টুইটারদ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামার আট মিনেটের মধ্যেই রিয়াল মাদ্রিদকে উদ্ধার করেছেন ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। ৬৫ মিনিটে তার দেওয়া একমাত্র গোলে বুধবার রাতে জিতেছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। তবে ডি স্টেফানো স্টেডিয়ামে গোলপোস্টের নিচে থিবো কোর্তুয়ার ‍দুখানি বিশ্বস্ত হাতের আশীর্বাদ  না থাকলে এই গোলেও তিন পয়েন্ট পাওয়া হতো কি না সংশয় থাকে।

জিনেদিন জিদানকে এদিনও তার আক্রমণভাগ খুশি করতে পারেনি। বরং উদ্বেগই বাড়িয়েছে। গোলমুখে আক্রমণের ধার নেই। সেরকম গোলের সুযোগও তৈরি করা যাচ্ছে না। শুরুর একাদশে আবারও সুযোগ পেয়েছেন লুকা ইয়োভিচ। তাছাড়া মাঝমাঠে ইসকো এবং দুই উইং ব্যাকে মার্সেলো ও আলভারো অদ্রিওজোলাকে নামান রিয়াল কোচ। প্রথমে সুযোগ এবং বলের দখল রিয়ালেরই বেশি ছিল। তা সত্ত্বেও গোল পায়নি রিয়াল। তবে প্রতিপক্ষ রিয়াল ভায়াদোলিদ যে নিজেদের অর্ধে আক্রমণ সামলাতে ব্যতিব্যস্ত থেকেছে তা নয়। তারাও আক্রমণে উঠে স্বাগতিকদের পরীক্ষা নিয়েছে এবং মনে করিয়ে দিয়েছে গত মৌসুমে রিয়ালের মাঠে তাদের ১-১ ড্র করে যাওয়া। শন ভিজমান ভালো ফিনিশ করতে পারলে তারাও আগে গোল পেয়ে যায়। তার শট অসাধারণ অনুমান ক্ষমতায় আঙেুলের ডগা ছুঁইয়ে বাঁচিয়েছেন কোর্তুয়া।

দ্বিতীয়ার্ধে ইসকো, ইয়োভিচ ও ওদ্রিওজোলাকে বদলে আসেনসিও, ভিনিসিয়ুস ও কারবাহালকে নামান জিদান। এতেই কাজ হয়, তবে ভাগ্যের ছোঁয়াও ছিল। ভায়াদোলিদ ডিফেন্ডার ব্রুনো গঞ্জালেজের ভুলে আরেকজনের গায়ে লেগে বল যায় ভিনিসিয়ুসের কাছে। গোলকিপার রবার্তোকে পরাস্ত করে গোল করেন তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

রাউল কার্নেরো সুযোগ পেয়েছিলেন সমতা ফেরানোর, কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়ান ওই কোর্তুয়া। অবশ্য পরে লুকা মদ্রিচের একটি শটও লেগেছে পোস্টে। ১-০ হলেও জয জয়ই। আর এতেই তৃতীয় মাচে দ্বিতীয় জয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এসেছে রিয়াল, যদিও গোল ব্যবধানে আছে গেটাফে ও ভ্যালেন্সিয়ার পেছনে। 

/পিকে/

লাইভ

টপ
X