বাটলারের ব্যাটে শেষ ধোনিদের আশা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:২৩, অক্টোবর ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৩২, অক্টোবর ২০, ২০২০

ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলার পথে বাটলার                   -ছবি: আইপিএলদল দুটি মিলিতভাবে চারবারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন। দুর্ভাগ্যক্রমে সোমবার মুখোমুখি হওয়ার আগে তারা ছিল পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে। তিনবারের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংসকে ৭ উইকেটে হারিয়ে দিলো রাজস্থান র‌য়্যালস। খুব ক্ষীণ হলেও প্লে-অফের সম্ভাবনা ধরে রাখতে পারলো আইপিএলের প্রথম চ্যাম্পিয়নরা।

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামের এ ম্যাচ একটি আভিজাত্যকে শেষ করে দিলো। কখনও প্লে-অফের বাইরে না থাকা এমএস ধোনির চেন্নাইয়ের এবারই সম্ভবত যাওয়া হচ্ছে না সেখানে। কোনও অলৌকিক অঙ্কই তা সম্ভব করতে পারে। ১০ ম্যাচ খেলে মাত্র তিন জয়ে হাতে ৬ পয়েন্ট। বাকি চারটি ম্যাচ জিতলে লক্ষ্যপূরণ হতে পারে। কিন্তু দলের যে অবস্থা, তাতে সে আশা দূরাশা। বরং তাদের হারিয়ে পাঁচে ওঠা রাজস্থান চারে থাকা কলকাতাকে একটু চাপেই ফেললো প্লে-অফের লড়াইয়ে। আর এই জয় তাদের জোগাতে পারে দারুণ উজ্জীবনী শক্তি।

ব্যাটিংয়ের জন্য উইকেট ছিল খুব কঠিন। বল ব্যাটে আসছিল না। টসজয়ী চেন্নাই প্রথমে ব্যাট করে তোলে মাত্র ১২৫ রান, এবারের সর্বনিম্ন স্কোর। এই রান টপকাতেও রাজস্থানকে দিতে হয়েছে পরীক্ষা। ৭০ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলেছেন ইংলিশ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান জস বাটলার। অবিচ্ছিন্ন চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের সঙ্গে তার ৯৮ রানের জুটেই ম্যাচ জিতিয়েছে দলকে।

দুই দলের পাওয়ার প্লের ছয় ওভার বিশ্লেষণ করলে দেখা যাবে চেন্নাই ছিল ভালো জাযগায়। দুই উইকেট হারিয়ে তারা তুলেছিল ৪৩ রান। কিন্তু মাঝের এবং ডেথ ওভারগুলোতে ব্যাটসম্যানদের উদ্যমহীনতার কারণে ১২৫ রানের বেশি তুলতে পারেনি। অন্যদিকে পাওয়ার প্লেতে ৩১ রান তুলতেই তিন উইকেট খোয়ানো রাজস্থান মাঝের ও ডেথ ওভারে দুর্দান্ত ব্যাট করেছে। ১৫ বল বাকি থাকতেই তারা পৌঁছে গেছে লক্ষ্যে।

৪৮ বলে ৭ চার ও ২ ছক্কায় অপরাজিত ৭০ করেছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ বাটলার। স্মিথ ২৬ রান করতে খেলেছেন ৩৪ বল, চার মেরেছেন দুটি। পেস বোলিংয়েই  রাজস্থানকে ভয় পাইয়ে দিয়েছিল চেন্নাই। চার ওভারে ১৮ রান দিয়ে বেন স্টোকস ও সঞ্জু স্যামসনকে ফেরান দীপক চাহার। চার ওভারে ১৯ রান দেওয়া জশ হ্যাজলউডের শিকার রবিন উথাপ্পা।

এর আগে রাজস্থানের পেস ও স্পিনে দুটিতেই কাবু হতে হয় চেন্নাই ব্যাটসম্যানদের। সাতে নেমে সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেছেন রবীন্দ্র জাদেজা ৩০ বলে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৮ রান ধোনির, ২৮ বলে করেছেন ২ চারে। একটি করে উইকেট নিয়েছেন জফরা আর্চার, কার্তিক ত্যাগী, শ্রেয়াস গোপাল ও রাহুল তেওয়াতিয়া। এটি ছিল ধোনির ২০০তম আইপিএল ম্যাচ, তাতে দুটি মাইলফলকও গড়েছেন সাবেক ভারত অধিনায়ক। চেন্নাইয়ের হয়ে পূর্ণ করেছেন ৪০০০ রান, উইকেটের পেছনে তার ডিসমিসাল ১৫০।

কিন্তু এমন অর্জনের দিনে ব্যর্থতার হাত ধরে হয়তো বুঝলেন, শেষের শুরু হয়ে গেছে। অথচ এবারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মুম্বাইকে হারিয়ে দিয়ে জাতীয় দলকে সদ্য বিদায় জানানো ধোনি শুরু করেছিলেন দুর্দান্ত আলো জ্বেলে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

চেন্নাই: ২০ ওভারে ১২৫/৫ (জাদেজা ২৫* ধোনি ২৮, কারেন ২২, গোপাল ১/১৪, তেওয়াতিয়া ১/১৮) ও রাজস্থান: ১৭.৩ ওভারে ১২৬/৩ (বাটলার ৭০*, স্মিথ ২৬, স্টোকস ১৯, চাহার ২/১৮, হ্যাজলউড ২/১৯)।

/পিকে/

লাইভ

টপ